কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

একনেকে দ্বিতীয় সাবমেরিন প্রকল্পসহ ১০ প্রকল্প অনুমোদন

প্রকাশিত : ১৩ মে ২০১৫, ০১:২৭ এ. এম.

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় দ্বিতীয় সাবমেরিন প্রকল্পসহ ১০টি প্রকল্পের চূড়ান্ত অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে এনইসির সম্মেলন কক্ষে একনেক সভায় এ অনুমোদন দেয়া হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন একনেক চেয়ারপার্সন ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বৈঠক শেষে পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল সাংবাদিকদের বলেন, একনেক সভায় অনুমোদন দেয়া ১০টি প্রকল্পের মোট ব্যয় ২ হাজার ৩শ’ ৬৫ কোটি টাকা ধরা হয়েছে। এর মধ্যে সরকারের নিজস্ব তহবিল থেকে ১ হাজার ৫৩১ কোটি টাকা, প্রকল্প সাহায্য ৬শ’ ৮১ কোটি টাকা এবং অবশিষ্ট অর্থ সংস্থা বহন করবে।

এছাড়া ১০টি প্রকল্পের মধ্যে সব থেকে বেশি ব্যয় ধরা হয়েছে আঞ্চলিক সাবমেরিন টেলিযোগাযোগ প্রকল্পে। এর মোট ব্যয় ৬শ’ ৬১ কোটি টাকা। প্রকল্পটিতে মূল অর্থায়নকারী ইসলামিক ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক (আইডিবি) দেবে ৩শ’ ৫২ কোটি টাকা। প্রকল্পটি চালু হলে থ্রিজি মোবাইল সার্ভিসে চালু হওয়া ব্যান্ডউইথ চাহিদা পূরণে আরও সক্ষম হবে।

প্রকল্পটির বিষয়ে ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে একনেক সভা পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, দ্বিতীয় সাবমেরিন কেবলটি ২০ হাজার কিলোমিটার দীর্ঘ। বর্তমানে কেবলে সমস্যা হলে বা কোন কারণে কাটা পড়লে কিংবা অন্য কোন সমস্যা দেখা দিলে তা মেরামত করতে ৭ থেকে ১০ দিন লেগে যায়। এ থেকে উত্তরণ পেতে ব্যাকআপ হিসেবে নতুন সাবমেরিন প্রকল্পের সঙ্গে যুক্ত হতে হচ্ছে। এর ফলে আরও ১ হাজার ৩০০ জিপিএস সাবমেরিন কেবল ব্যান্ডউইথ পাওয়া যাবে। পরিকল্পনামন্ত্রী আরও বলেন, এ প্রকল্পের ফলে ডাটা ও ভয়েসের ক্ষেত্রে দেশের ব্যান্ডউইথ চাহিদা বৃদ্ধির সঙ্গে সরবরাহ বৃদ্ধি পাবে। ফলে দেশে নিরবচ্ছিন্ন ইন্টারনেট সংযোগ দেয়া যাবে। ইন্টারনেট পৌঁছানো যাবে দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলেও। সেই সঙ্গে ইন্টারনেটের সক্ষমতা ও গতি দুটোই বাড়বে। এতে কল সেন্টার, সফটওয়্যার রফতানি, ডাটা এন্ট্রি খাত প্রসারিত হবে বলে আশা করেন পরিকল্পনা মন্ত্রী।

এছাড়া একনেক সভায় বিসিক শিল্প নগরী, মীরসরাই, অন্তর্বর্তীকালীন পানি সরবরাহ, পানি সরবরাহ, স্যানিটেশন ও স্বাস্থ্য শিক্ষা, দিনাজপুর-বিরল-পাকুয়া-রাধিকাপুর স্থলবন্দর, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ^বিদ্যালয়ের কৃষি অর্থনীতি ও পল্লী উন্নয়ন অনুষদের সুবিধা সৃষ্টি, বঙ্গবন্ধু দারিদ্র্য বিমোচন প্রশিক্ষণ কমপ্লেক্স; বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্ক, গাজীপুর, জাতীয় ভূমি জোনিং এবং বিএডিসির বিদ্যমান বীজ উৎপাদন, প্রক্রিয়াজাতকরণ ও বিতরণ ব্যবস্থাদির আধুনিকীকরণ এবং উন্নয়ন প্রকল্পেরও অনুমোদন দেয়া হয়।

প্রকাশিত : ১৩ মে ২০১৫, ০১:২৭ এ. এম.

১৩/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: