আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৭ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বুধবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

দুগ্ধ খামারির ঋণ সহায়তায় এক শ’ কোটি টাকার তহবিল গঠন

প্রকাশিত : ১৩ মে ২০১৫

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ প্রান্তিক দুগ্ধ খামারিদের মাঝে স্বল্প সুদে ও সহজ শর্তে ঋণ প্রদানের লক্ষ্যে বাংলাদেশ ব্যাংক এক শ’ কোটি টাকার একটি তহবিল গঠন করেছে। এ প্রকল্পের আওতায় খামারিরা ১১ শতাংশ সুদে কোন জামানত ছাড়াই এক থেকে পাঁচ লাখ টাকা পর্যন্ত ঋণ নিতে পারবেন। এ অর্থ বিশেষায়িত খাতের কর্মসংস্থান ব্যাংকের মাধ্যমে বিতরণ করা হবে। আর মাঠপর্যায়ে খামারি যাচাই-বাছাই প্রক্রিয়ার সঙ্গে সম্পৃক্ত থাকবে ‘প্রাণ ডেইরি লিমিটেড’। এ উপলক্ষে মঙ্গলবার রাজধানীর একটি হোটেলে প্রতিষ্ঠান দু’টির মধ্যে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর হয়েছে। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গবর্নর ড. আতিউর রহমান। অনুষ্ঠানে কর্মসংস্থানের ব্যাংকের চেয়ারম্যান আখতার জামিল এফসিএ, ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ওবায়েদ উল্লাহ আল মাসুদ, বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক নির্মল চন্দ্র ভক্ত, প্রাণ-আরএফএল গ্রুপের কর্পোরেট ফিন্যান্স ডিরেক্টর উজমা চৌধুরী এফসিএ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

ড. আতিউর বলেন, এ প্রকল্পের উদ্দেশ্য হচ্ছে, উন্নতমানের গাভী পালনের মাধ্যমে তরল দুধের উৎপাদন বৃদ্ধি করা, টেকসই আধুনিক দুগ্ধ শিল্প গড়ে তোলার মাধ্যমে বেকার যুবক ও যুব মহিলাদের আত্মকর্মসংস্থান সৃষ্টি করা এবং দুগ্ধ প্রদানকারী গাভীর চিকিৎসা, আবাসন, খাদ্য, প্রজনন ও দুগ্ধ সংরক্ষণের কারিগরি সহায়তা প্রদান করা। গবর্নর বলেন, উত্তরবঙ্গের খামারিরা দুধের ন্যায্যমূল্য পাচ্ছেন না। এ প্রকল্পের খামারিদের দুধ প্রাণ গ্রুপ কিনতে বাধ্য থাকবে বিধায় তারা দুধের ন্যায্যমূল্য থেকে বঞ্চিত হবে না। এ চুক্তির মাধ্যমে দেশের প্রান্তিক দুগ্ধ খামারি, কর্মসংস্থান ব্যাংক ও প্রাণ ডেইরি লিমিটেডÑ এ তিনপক্ষই লাভবান হবে। সেই সঙ্গে গ্রামীণ তথা জাতীয় অর্থনীতিতেও ইতিবাচক প্রভাব পড়বে

এই চুক্তিতে প্রাণ ডেইরির আওতাভুক্ত প্রকল্প ‘প্রাণ ডেইরি হাব’ আত্মকর্মসংস্থানে আগ্রহী সম্ভাবনাময় ও প্রতিভাবান যুবক বা দুগ্ধ খামারি বাছাই করে একটি তালিকা প্রস্তুত করবে। আগ্রহী খামারিদের কারিগরি সহযোগিতা প্রদানের দায়িত্বও তাদের। আর কর্মসংস্থান ব্যাংক প্রাণ গ্রুপের তালিকাভুক্ত দুগ্ধ খামারিদের মধ্য থেকে যাচাই-বাছাই করে যাদের যোগ্য মনে করবে তাদের অগ্রাধিকার ভিত্তিতে ঋণ প্রদান করবে। কর্মসংস্থান ব্যাংকের ঋণ নিয়ে যারা দুগ্ধ উৎপাদন করবে তাদের দুগ্ধ প্রাণ গ্রুপ কিনে নেবে। তবে, দুধের মূল্য পরিশোধ করার সময় পূর্ব নির্ধারিত কিস্তির সমপরিমাণ টাকা কেটে রেখে কর্মসংস্থান ব্যাংকের সংশ্লিষ্ট শাখায় জমা দেবে। ফলে, ঋণ আদায়ের কোন ঝুঁকি থাকছে না। এ প্রকল্পের আওতায় খামারিরা ১১ শতাংশ সুদে কোন সহায়ক জামানত ছাড়াই এক থেকে পাঁচ লাখ টাকা পর্যন্ত ঋণ নিতে পারবেন। কোন খামারি যদি দুই বছর মেয়াদে এক লাখ টাকা ঋণ নেন তাহলে তাকে মাসিক কিস্তি পরিশোধ করতে হবে মাত্র ৪ হাজার ৮৩৬ টাকা, যা দুধ বিক্রি করে সহজেই পরিশোধ করা সম্ভব।

গবর্নর বলেন, কৃষি আমাদের অর্থনীতির অন্যতম প্রধান উৎস। সেবা ও শিল্প খাতের প্রসারে কৃষির পরোক্ষ অবদান রয়েছে। সেবা ও শিল্প খাতে কাঁচামালের যোগান দিচ্ছে কৃষি। তাই দেশের উন্নয়ন ত্বরান্বিত করতে কৃষি ও কৃষিভিত্তিক শিল্প স্থাপনের ওপর গুরুত্ব দিতে হবে। এ কারণেই বাংলাদেশ ব্যাংক কৃষি ও কৃষিভিত্তিক শিল্প গড়ে তোলার ওপর বিশেষ নজর দিয়েছে। এ লক্ষ্যে বাংলাদেশ ব্যাংক নিজস্ব তহবিল থেকে মফস্বলে কৃষিভিত্তিক পণ্য প্রক্রিয়াজাতকরণ শিল্প স্থাপনের জন্য সহজ শর্ত ও স্বল্প ব্যয়ের একটি পুনর্অর্থায়ন স্কিম পরিচালনা করছে।

প্রকাশিত : ১৩ মে ২০১৫

১৩/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: