আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

ঠাকুরগাঁও ও আমতলীতে কালবৈশাখী

প্রকাশিত : ১৩ মে ২০১৫

নিজস্ব সংবাদদাতা, আমতলী (বরগুনা), ১২ মে ॥ মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে বরগুনার আমতলী ও তালতলী উপজেলার ওপর দিয়ে কালবৈশাখীর ঝড় বয়ে গেছে। এ ঝড়ে পায়রা নদীতে দুটি জেলে নৌকা ডুবে গেছে। বিভিন্ন স্থানে কাঁচাঘর ও রবি মোবাইল টাওয়ার বিধ্বস্ত হয়েছে। উপড়ে গেছে দু’শতাধিক গাছ।

খেপুপাড়া আবহাওয়া অফিস সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার কালবৈশাখী ঝড়ে ঘণ্টায় বাতাসের গতিবেগ ছিল ৩০ কিলোমিটার। এর স্থায়িত্ব ছিল ৪ মিনিট। সকাল আনুমানিক সাড়ে ৯টার দিকে কালবৈশাখী ঝড়ে পায়রা নদীর তেতুলবাড়ীয়া পয়েন্টে দুটি জেলে নৌকা ডুবে গেছে। জেলে মাসুদ চৌকিদার ও আল আমিন জানান, তারা সকালে মাছ ধরতে ৬ জেলেসহ নৌকা নিয়ে পায়রা নদীতে যায়।

নিজস্ব সংবাদদাতা ঠাকুরগাঁও থেকে জানান, ঠাকুরগাঁওয়ে মঙ্গলবার আকস্মিক কালবৈশাখীর ঝড়ে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

দুপুরে ঠাকুরগাঁও ও এর আশপাশ এলাকায় প্রথমে প্রচ- গতিতে ধূলাঝড় শুরু হয় এবং চারপাশ অন্ধকার হয়ে যায়। এ সময় লোকজন আতঙ্কিত হয়ে যে যেখানে পারে ঘরের ভেতর আশ্রয় নেয়। এ সময় ভূমিকম্প শুরু হলে লোকজন আবার দৌড়ে রাস্তায় বের হয়ে আসে। পরে বাতাসের সঙ্গে বৃষ্টি শুরু হলে আতঙ্কিত লোকজন ঘরের বারান্দায় দাঁড়িয়ে থাকে। ভূমিকম্পে ক্ষয়ক্ষতির খবর পাওয়া যায়নি, তবে ঝড়ে অনেক কাঁচা ঘরবাড়ি ও বিদ্যুতের তার ছিঁড়ে পড়েছে। এ কারণে শহর ও তার আশপাশে তিন ঘণ্টার অধিক সময় পর্যন্ত বিদ্যুত সরবরাহ বন্ধ থাকে।

বজ্রপাতে স্ত্রী নিহত স্বামী আহত

অপরদিকে নিজস্ব সংবাদদাতা জামালপুর থেকে জানান, জামালপুরে বজ্রপাতে স্ত্রী নিহত ও স্বামী আহত হয়েছে। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৮টায় জামালপুর সদর উপজেলার লক্ষ্মীরচর ইউনিয়নের গজারিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনাস্থলেই ময়না বেগম মারা যায় এবং তার স্বামী সিদ্দিকুর রহমান আহত হয়। এলাকাবাসী জানায়, সকালে বাড়ি নিকটবর্তী স্থানে ক্ষেত থেকে চিচিঙ্গা তুলছিলেন তারা। এ সময় বৃষ্টির সঙ্গে আকাশ থেকে বিকট শব্দে বজ্রপাত ঘটলে এই হতাহতের ঘটনা ঘটে।

চোরাচালান বন্ধে যশোরে বিজিবির ব্যতিক্রমী উদ্যোগ

স্টাফ রিপোর্টার, যশোর অফিস ॥ দক্ষিণ পশ্চিম সীমান্তের মানুষের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে ‘সমৃদ্ধ সীমান্ত’ নামে একটি ব্যতিক্রমী কার্যক্রম শুরু করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)। সীমান্তের দরিদ্র জনগোষ্ঠী যাতে চোরাচালান বা নারী ও শিশু পাচার কাজে লিপ্ত না হয় এজন্য তাদের বিকল্প হিসেবে তাদের স্বাবলম্বী করতে এ কার্যক্রম করা হচ্ছে। এ কার্যক্রমের আওতায় তাদের কম্পিউটার ও সেলাই মেশিন প্রশিক্ষণ এবং গরু-ছাগল পালনে উদ্বুদ্ধ ও সে অনুযায়ী উপকরণ সরবরাহ করা হবে। মঙ্গলবার দুপুরে এসব তথ্য জানিয়েছেন বিজিবির দক্ষিণ-পশ্চিম রিজিয়নের কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ডিএসএম শহীদুল ইসলাম এনডিসি।

বিজিবির দক্ষিণ-পশ্চিম রিজিয়ন সদর দফতরে চলতি ২০১৫ সালের জানুয়ারি থেকে এপ্রিল মাস পর্যন্ত রিজিয়নের অধীনে বিজিবির সাফল্য তুলে ধরার সময় তিনি এসব তথ্য জানান।

প্রকাশিত : ১৩ মে ২০১৫

১৩/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: