মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১১ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

অনন্য কীর্তির আশায় পেপ গার্ডিওলা

প্রকাশিত : ১২ মে ২০১৫
  • ম্যানসিটিতে যাওয়ার গুঞ্জন উড়িয়ে দিলেন বেয়ার্ন কোচ

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ চ্যাম্পিয়ন্স লীগের ইতিহাসে কখনও কোন দল সেমিফাইনালের দ্বিতীয় লেগে ৩-০ গোলে পিছিয়ে থেকে খেলতে নামেনি। এই প্রথমবারের মতো বেয়ার্ন মিউনিখ খেলতে নামছে। প্রতিপক্ষ স্প্যানিশ পরাশক্তি বার্সিলোনা। নিজের কোচিং ক্যারিয়ারেও এমন অবিশ্বাস্য কঠিন পরীক্ষায় কখনও পড়েননি বেয়ার্ন মিউনিখের কোচ পেপ গার্ডিওলা। বাঁচা মরার লড়াইয়ের সামনে এসেও তাই শিষ্যদের উৎসাহ যোগাচ্ছেন তিনি। বলেছেন, বার্সাকে বড় ব্যবধানে হারানো সম্ভব। তবে এ জন্য নিজেদের সেরাটা নিংড়ে দিতে হবে।

আজ রাতে বার্সার বিরুদ্ধে কঠিন লড়াইয়ের আগে গার্ডিওলা বলেন, আমি বাস্তববাদী। জয় ছাড়া কোন পথ নেই। আমাদের এখনও স্বপ্ন বেঁচে আছে। আমাদের হাতে ৯০ মিনিট সময় আছে। কাজটা সহজ হবে না। কিন্তু আমি যোদ্ধা, লড়াই করতে পছন্দ করি। কঠিন পরীক্ষার আগে কোচ গার্ডিওলার মতো নিজেদের টগবগে রাখার চেষ্টা করছেন বেয়ার্নের খেলোয়াড়রাও। সেই তালিকায় আছেন দুই স্ট্রাইকার টমাস মুলার ও বাস্টিয়েন শোয়েনস্টেইগার। মুলার বলেন, আমরা জানি অনেক বড় পরীক্ষা। কিন্তু সহজে হাল ছাড়ছি না। তবে মুলারের মতো লড়াইয়ের ঘোষণা দেননি শোয়েনস্টোইগার। অলৌকিকতার আশা করে তিনি বলেন, মাঝে মাঝে ফুটবলে অবিশ্বাস্য কিছু ঘটে। আমরা আশা করছি ম্যাচের দিনও এমন কিছু ঘটবে। যা আমাদের পক্ষে আসবে।

চলতি মৌসুম শেষে বেয়ার্ন মিউনিখ ছেড়ে যাচ্ছেন পেপ গার্র্ডিওলা! কয় মাস ধরেই এমন গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে। এবার চাউর হয়েছে, ইংলিশ ক্লাব ম্যানচেস্টার সিটিতে যেতে পারেন সাবেক বার্সিলোনা কোচ। এর আগেও একবার বলেছেন, সোমবার আরেকবার এই গুজব ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দিয়েছেন স্পেনের তারকা এই কোচ। সাক্ষাতকারে গার্ডিওলা বলেন, আমি কোন প্রস্তাব পাইনি। আমি কোন কিছুর জন্য অপেক্ষাও করছি না। আমি এখানে (বেয়ার্ন মিউনিখ) অনেক সুখী আছি। এটা অসাধারণ একটা ক্লাব। তিনি আরও বলেন, আমি আমার চুক্তির পুরোটুকু এখানে থাকতে চাই। এই মুহূর্তে আমি কোথাও যাওয়ার কথা ভাবছি না। এর আগে ফেব্রুয়ারি মাসে গুঞ্জন রটে, বেয়ার্ন মিউনিখ ছেড়ে কাতারের কোচ হতে পারেন গার্ডিওলা। ২০২২ সালে মরুর দেশে অনুষ্ঠিত হবে বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় ও প্রত্যাশিত ক্রীড়াযজ্ঞ বিশ্বকাপ ফুটবল। নিজ দেশে অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপে বিশ্ববাসীকে চমকে দিতে চলতি মৌসুম শেষেই নাকি গার্ডিওলাকে কোচ হিসেবে নিয়োগ দিতে চায় কাতার! আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমের উদ্ধৃতিতে এমন গুঞ্জনই শোনা যায়। ওই সময় সংবাদমাধ্যমের উদ্ধৃতিতে বলা হয়, কাতার যে কোন মূল্যে গার্ডিওলাকে কোচ হিসেবে চায়। এ জন্য নাকি তারা বর্তমান বেয়ার্ন মিউনিখ কোচের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রেখে চলেছে। চলতি মৌসুম শেষ হলেই মিউনিখ ছেড়ে মরুর দেশে পাড়ি জমাতে পারেন স্পেনের এই কোচ।

৪৪ বছর বয়সী গার্ডিওলা তার খেলোয়াড়ি জীবনে দু’বছর কাতারের ক্লাবে খেলেছিলেন। ২০০৩ থেকে ২০০৫ সাল পর্যন্ত আল-আহলি ক্লাবে খেলেন তিনি। সম্প্রতি মিউনিখের অনুশীলনের ফাঁকে গার্ডিওলাকে প্রায়শই গালফ্ স্টেটে যেতে দেখা গেছে। যে কারণে ফুটবল সমর্থকদের মাঝে কৌতুহল জন্মেছে ২০২২ বিশ্বকাপকে সামনে রেখে কাতার তাদের জাতীয় দলের জন্য গার্ডিওলার দিকে দৃষ্টি দিচ্ছে।

এদিকে বেয়ার্নের সাবেক কিংবদন্তি ফ্রেঞ্জ বেকেনবাওয়ার গার্ডিওলার সমালোচনা করে বলেছেন, গত জানুয়ারিতে জারডান শাকিরির মতো তারকাকে ক্লাবটি ছেড়ে দেয়ায় এখন মূল্য দিতে হচ্ছে। এ জন্য দায়ী গার্ডিওলা। এ ছাড়া লোথার ম্যাথিয়াসও কড়া সমালোচনা করেছেন সাবেক বার্সা কোচের। তিনি বলেন, গার্ডিওলা ইতোমধ্যে জানিয়েছে তাদের মৌসুম শেষ। সেই সঙ্গে সে দলে প্রচুর অদল বদল করছে। তার সময়ে বেয়ার্নে খুব বেশি সাফল্য লক্ষ্য করা যায়নি। ম্যাথিয়াস আরও বলেন, বেশ কয়েকটি কারণে দলের ফুটবলাররা গার্ডিওলার প্রতি বিশ্বাস হারাচ্ছে। এটা দলের জন্য দুঃসংবাদ বয়ে আনবে।

প্রকাশিত : ১২ মে ২০১৫

১২/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: