মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

দায়িত্ব বাড়ল এ্যান্ড্রুু স্ট্রসের

প্রকাশিত : ১২ মে ২০১৫

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ পিটার মুরস বরখাস্ত হওয়ার পর থেকেই প্রশ্নটা বাতাসে ভাসছে, কে হচ্ছেন ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলের নতুন কোচ? যে সব নাম শোনা যাচ্ছে তাদের মধ্যে এগিয়ে দুই সাবেক অস্ট্রেলিয়ান জেসন গিলেস্পি ও জাস্টিন ল্যাঙ্গার। একজন যোগ্য কোচ বেছে নেয়ার সকল দায়িত্বই দেয়া হয়েছে ইংলিশ ক্রিকেট বোর্ডের (ইসিবি) নতুন পরিচালক এ্যান্ড্রু স্ট্রসকে। সোমবার ইসিবি চেয়ারম্যান কলিন গ্রেভস এ কথা জানিয়েছেন। তবে দরজায় কড়া নাড়া নিউজিল্যান্ডের (২১ মে প্রথম টেস্ট) সঙ্গে সিরিজে দায়িত্বপালন করবেন এতদিন মুরসের সহকারী পল ফারব্রেস।

‘এক রাতের মধ্যে সিদ্ধান্ত নেয়া সম্ভব নয়। আমাদের সময় নিতে হবে। কোচ খুঁজতে পরিকল্পনার দায়িত্ব স্ট্রসকে দেয়া হয়েছে। বোর্ড নির্বাহী টম হ্যারিসনের সঙ্গে কথা বলে একমত হয়েছি, এ কাজের জন্য স্ট্রসই যোগ্য ব্যক্তি। কোচ বাছাইয়ে ও যেভাবে মনে করে সেভাবে কমিটি গঠন করা হবে। আপাতত নিউজিল্যান্ড সিরিজের দায়িত্ব পালন করবেন ফারব্রেস। আশা করছি এ্যাশেজের (৮ জুলাই থেকে) আগে কাউকে খুঁজে নেয়া যাবে। অনেকের কথা উঠে এসেছে, তবে আমরা ভেবে সিদ্ধান্ত নিতে চাই।’ বলেন ইসিবি বস।

তবে ব্রিটিশ সংবাদ মাধ্যমে গুঞ্জন, সাবেক অস্ট্রেলিয়ান পেসার গিলেস্পিই হতে পারেন ইংল্যান্ডের নতুন প্রাধান কোচ। উঠে আসছে গিলেস্পি সতীর্থ জাস্টিন ল্যাঙ্গারের নামও। ৪০ বছর বয়সী গিলেস্পি কাউন্টি দল ইয়র্কশায়ারকে গত তিন বছরে দারুণ সব সাফল্য এনে দিয়ে নজর কাড়েন। কিছুদিন আগে সাউথ অস্ট্রেলিয়ার প্রধান কোচ হওয়ার প্রস্তাব পেয়েছিলেন এক সময়ের গতি তারকা। গিলেস্পি যোগ্য হতে পারেন বলে মনে করছেন সাবেক ইংলিশ অধিনায়ক নাসের হুসেইন। ‘সত্যি বলতে আমার ওকে মনে ধরেছে। ওর অধীনে ইয়র্কশায়ার যা পারফর্ম করছে। দলটাকে দারুণভাবে গুছিয়ে নিয়েছে গিলি।’ বর্তমান জাতীয় দলের নির্ভরযোগ্য ক্রিকেটার জো রুট, গারি ব্যালান্স, টিম ব্রেসননরা ইয়র্কশায়ার থেকেই উঠে এসেছেন। সেদিকেও ইঙ্গিত করেন হুসেইন।

গিলেস্পি নিজেও আগ্রহী। ‘যদি সুযোগ আসে সেটা নিয়ে অবশ্যই ভাবব। ইংল্যান্ড জাতীয় দলের কোচ হিসেবে আমার নাম উঠে আসাটা দারুণ তৃপ্তিদায়ক। তবে এখন ক্লাবের হয়ে কাজে করতেই মনোযোগী আমি।’ একাধিক ব্রিটিশ গণমাধ্যম এ্যালিস্টার কুককে সরিয়ে জো রুটকে টেস্ট দলের অধিনায়ক করার পক্ষেও মত দিয়েছে। আর রুট বলেছেন, ‘কোচিং স্টাভে ফারব্রেসের সঙ্গে গিলেস্পি যোগ হলে সেটি হবে দারুণ ব্যাপার।’ উল্লেখ্য, মুরসকে বরখাস্তের দু’দিন আগে ইসিবির পরিচালকের দায়িত্ব পান স্ট্রস। এ নিয়ে ব্যাপক আলোচনার সৃষ্টি হয়। ইংল্যান্ড ক্রিকেটে বিশৃঙ্খলার শুরু ২০১৩-১৪ এ্যাশেজ থেকে। অস্ট্রেলিয়া সফরের ভরাডুবির পর সরিয়ে দেয়া হয় তারকা কোচ এ্যান্ডি ফ্লাওয়ারকে।

মুরস দায়িত্ব নেয়ার পর দলে অচ্ছুত হয়ে পড়েন তুখোড় ব্যাটসম্যান কেভিন পিটারসেন। বিশ্বকাপের মাত্র কয়েকদিন আগে এ্যালিস্টার কুকের হাত থেকে ওয়ানডে অধিনায়কের দায়িত্ব দেয়া হয় ইয়ন মরগানকে। বাংলাদেশের কাছে হেরে বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্ব থেকেই বিদায় নেয় ইংলিশরা! ক’দিন আগে র‌্যাঙ্কিংয়ে অনেক পিছিয়ে থাকা ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে এগিয়ে গিয়েও শেষ টেস্টে হেরে সিরিজ ড্র করে ফেরেন মুরস-কুকরা। দল দেশে ফেরার সঙ্গে সঙ্গেই ইসিবির ভেতরে আসে ব্যাপক পরিবর্তন।

প্রকাশিত : ১২ মে ২০১৫

১২/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: