রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

বার্গম্যানের পক্ষে ২৩ বিবৃতিদাতার রুলের শুনানি মুলতবি

প্রকাশিত : ১২ মে ২০১৫
  • যুদ্ধাপরাধী বিচার

স্টাফ রিপোর্টার ॥ ব্রিটিশ নাগরিক ডেভিড বার্গম্যানকে ট্রাইব্যুনালের জরিমানার রায়ের বিষয়ে উদ্বেগ জানিয়ে বিবৃতি দেয়া ২৩ বিশিষ্ট নাগরিকের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার অভিযোগে জারি করা রুলের শুনানি ১৪ মে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত মূলতবি করা হয়েছে। চেয়ারম্যান বিচারপতি ওবায়দুল হাসান শাহীনের নেতৃত্বে তিন সদস্যের আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-২ সোমবার এ আদেশ প্রদান করেছেন। ট্রাইব্যুনালে অন্য দুই সদস্য ছিলেন বিচারপতি মোঃ মুজিবুর রহমান মিয়া ও বিচারপতি মোঃ শাহিনুর ইসলাম।

সোমবার ট্রাইব্যুনালে শুনানি করেন প্রসিকিউটর ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজ। অপরদিকে উপস্থিত ছিলেন আইনজীবী ব্যারিস্টার আখতার ইমাম এবং শিরিন হক নিজে। আদালতে ১০ জনের পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার আসাদুজ্জামান এবং ২ জনের পক্ষে সিনিয়র আইনজীবী ব্যারিস্টার আখতার ইমাম ও রেহনুমা আনাম। ৩ জন নিজেরাই শুনানিতে অংশ নেন। বাকি ৮ জন বিদেশে আছেন। গত ২৩ এপ্রিল ২৩ নাগরিককে আদালত অবমাননার অভিযোগে কেন তাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হবে না- তার ব্যাখ্যা দিতে বলা হয়। সে অনুয়ায়ী গত ২৯ এপ্রিল ১৫ জন সশরীরে হাজির হয়ে ও বিদেশে থাকা বাকি ৮ জন ডাকযোগে রুলের জবাব দেন। হাজির থাকা ১৫ জনের ১০ জনের পক্ষে ব্যারিস্টার আসাদুজ্জামান ও ২ জনের পক্ষে সিনিয়র আইনজীবী ব্যারিস্টার আখতার ইমাম জবাব দাখিল করেন। বাকি ৩ জন জবাব দাখিল করে নিজেরাই শুনানি করবেন বলে জানান।

ডেভিড বার্গম্যানের সাজার বিষয়ে ২৩ বিবৃতিদাতার বিরুদ্ধে আদালত অবমাননা প্রশ্নে ১ এপ্রিল রুল জারি করেন ট্রাইব্যুনাল-২। ওইদিন আদেশে ২৩ এপ্রিল তাদের রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছিল। সে অনুযায়ী মোট ১৩ জন তাদের ব্যাখ্যা দিতে ট্রাইব্যুনালের কাছে চার সপ্তাহ সময়ের আবেদন করেন। তাদের এই আবেদন নামঞ্জুর করে ২৩ জনকেই গত ২৯ এপ্রিল হাজির হয়ে রুলের জবাব দিতে বলা হয়। রুলে জাফরুল্লাহ চৌধুরী, আনু মোহাম্মদ, শিরিন হক ও আলী আহম্মেদ জিয়া উদ্দিনসহ ২৩ জনের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার অভিযোগে কেন শাস্তিমুলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে নাÑ তা জানতে চাওয়া হয়েছে। অন্যরা হলেন সিআর আবরার, লুবনা মারিয়াম, মুক সাথী, তিত্রা আলী, দেলোয়ার খোকন, মাসুদ খান, জিয়াউর রহমান, জরিনা নাহার কবির, ফরিদা আক্তার, বিনা ডি কস্টা, আফসান চৌধুরী, রেহনুমা আহমেদ, শহিদুল আলম, শবনম নাদিয়া, মাহমুদ রহমান, নাসরিন সিরাজ এ্যানি, আনুশেহ আনাদিল, হানা শামস আহমেদ, লিসা গাজী।

গত বছর ২০ ডিসেম্বর দৈনিক প্রথম আলোতে ‘বার্গম্যানের সাজায় ৫০ নাগরিকের উদ্বেগ’ শীর্ষক প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। আদালত অবমাননার দায়ে দ-িত ব্রিটিশ সাংবাদিক ডেভিড বার্গম্যানের সাজার বিষয়ে বিবৃতি দেয়া নাগরিকদের কাছে ব্যাখ্যা চেয়ে গত ১৪ জানুয়ারি আদেশ দিয়েছিল ট্রাইব্যুনাল। আদেশে তাদের হাজির হয়ে অথবা আইনজীবীর মাধ্যমে ওই বিবৃতির বিষয়ে ব্যাখ্যা দিতে বলা হয়েছিল। মানবাধিকারকর্মী খুশী কবির বিবৃতি থেকে তার নাম প্রত্যাহার করে নেন। বিবৃতিদাতাদের মধ্যে ২৬ জন নিঃশর্ত ক্ষমার প্রেক্ষিতে অব্যাহতি পান। তাদের মধ্যে রয়েছেন আইনজীবী ড. শাহদীন মালিক, এম হাফিজউদ্দিন খান, রিজওয়ানা হাসান, আসিফ নজরুল, বদিউল আলম মজুমদার, রাশেদা কে চৌধুরী, ইমতিয়াজ আহমেদ, আমেনা মোহসিন, লায়লা খান, শাহনাজ হুদা, জাকির হোসেন, অরূপ রাহী, শাহীন আক্তার ও ইলোরা দেওয়ান।

প্রকাশিত : ১২ মে ২০১৫

১২/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: