মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

সবার সহযোগিতা পেলে পাঁচ বছরে ঢাকা হবে বাসযোগ্য নগরী

প্রকাশিত : ১১ মে ২০১৫
  • পোশাক ব্যবসায়ীদের তিন শীর্ষ সংগঠনের সংবর্ধনায় দুই মেয়র

স্টাফ রিপোর্টার ॥ নাগরিক সেবা দ্রুত নিশ্চিত করতে অবকাঠামো উন্নয়নে ব্যবসায়ীদের সহযোগিতা চাইলেন ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটির নবনির্বাচিত মেয়র আনিসুল হক এবং সাঈদ খোকন। একইসঙ্গে উন্নয়নমূলক কাজে দুই সিটিতে বিনিয়োগের দ্বার উন্মুক্ত রাখা হবে বলেও ঘোষণা দিয়েছেন তারা। দুই মেয়রই বলেছেন, ঢাকাবাসীর সমস্যা প্রশ্নে কোন রাজনৈতিক দলের দৃষ্টিভঙ্গি প্রশ্রয় দেয়া হবে না। রাজনীতি যার যার, মেয়র সবার। তবে একা তাদের পক্ষে সব সমস্যার সমাধান করা সম্ভব হবে না। এজন্য ব্যবসায়ী গোষ্ঠীসহ সমাজের সর্বস্তরের মানুষের সহযোগিতা প্রয়োজন। আর তা পেলে আগামী ৫ বছরে ঢাকাকে একটি বাসযোগ্য নগরী হিসেবে গড়ে তোলা সম্ভব হবে।

রবিবার রাজধানীর মহাখালীতে একটি কনভেনশন হলে পোশাক ব্যবসায়ীদের শীর্ষ তিন সংগঠন বাংলাদেশ গার্মেন্ট ম্যানুফ্যাকচারারস এ্যান্ড এক্সপোর্টার্স এ্যাসোসিয়েশন (বিজিএমইএ), বাংলাদেশ নিটওয়্যার ম্যানুফ্যাকচারারস এ্যান্ড এক্সপোর্টার্স এ্যাসোসিয়েশন (বিকেএমইএ) এবং বাংলাদেশ টেক্সটাইল মিলস এ্যাসোসিয়েশনের (বিটিএমএ) আয়োজিত এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আনিসুল হক এবং দক্ষিণ সিটির (ডিএসসিসি) মেয়র সাঈদ খোকন এসব কথা বলেন। বিজিএমইএ সভাপতি আতিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে এ সময় অন্যদের মধ্যে বিকেএমইএ সভাপতি সেলিম ওসমান, বিটিএমএ সভাপতি তপন চৌধুরী, এক্সপোর্টার্স এ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ইএবি) সভাপতি আবদুস সালাম মুর্শেদী, ব্যাংকার্স এ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (বিএবি) সভাপতি নজরুল ইসলাম খান, বিজিএমইএ সহসভাপতি শহীদুল্লাহ আজিমসহ বিভিন্ন ব্যবসায়ী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে ঢাকার ৪০০ বছরের স্বতন্ত্র সামাজিক ও রাজনৈতিক ইতিহাস সংক্ষেপে তুলে ধরে ডিএসসিসি মেয়র সাঈদ খোকন বলেন, ঢাকা একটি সমস্যা সঙ্কুল শহরে পরিণত হয়েছে। তবে শত-সহস্র সমস্যার মাঝেও আমরা মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে আছি। আমাদের সম্ভাবনাও আছে প্রচুর। চেষ্টা করলে সবাই মিলে একটি বাসযোগ্য নগর গড়ে তুলতে পারব। ব্যবসায়ীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, আপনাদের সহযোগিতার জন্য আমরা উন্মুখ হয়ে আছি, আপনারা এগিয়ে আসুন। ঢাকায় বিনিয়োগের দ্বার উন্মুক্ত ও নিরাপদ থাকবে। পাবলিক প্রাইভেট পার্টনারশিপের (পিপিপি) মাধ্যমে জনকল্যাণমূলক কাজের সুযোগ আছে। ঢাকাবাসীর সমস্যা প্রশ্নে কোন কিছুতেই দলীয় দৃষ্টিভঙ্গি প্রশ্রয় পাবে না। রাজনীতি যার যার, মেয়র সবার।

খোকনের আহ্বানে সমর্থন জানিয়ে ডিএনসিসি মেয়র আনিসুল হক বলেন, যারা ভোট দিয়েছেন, যারা ভোট দেননি এবং যারা ভোট দিতে পারেননি সবার জন্য আমাদের দায়িত্ব সমান। সবার জন্যই আমরা কাজ করব। তিনি বলেন, একা দুই মেয়র কিছু করতে পারবেন না। আপনাদের সহযোগিতা পেলে আগামী ৫ বছরে ঢাকার ইতিবাচক পরিবর্তন অনেক সহজ হবে।

মেয়রদের আহ্বানে তাৎক্ষণিকভাবে সাড়া দিয়ে অনুষ্ঠানে বিএবি সভাপতি নজরুল ইসলাম খান তার সংগঠনের তরফে দুই সিটিতে দুইটি ফুট ওভারব্রিজ নির্মাণ করে দেয়ার ঘোষণা দেন।

মেয়রদের উদ্দেশে বিজিএমইএ সভাপতি আতিকুল ইসলাম বলেন, ব্যবসার সুষ্ঠু পরিবেশ নিশ্চিত করা জরুরী। রাজধানীর যানজট সমস্যা নিরসন করা গেলে জনদুর্ভোগ কমার পাশাপাশি গার্মেন্ট ব্যবসায়ীদের উৎপাদন খরচও অনেক কমে যাবে। সিএসআর (সামাজিক দায়বদ্ধতা) কার্যক্রমের অংশ হিসেবে বিজিএমইএ ঢাকার যে কোন একটি রাস্তা পরিষ্কার রাখার দায়িত্বও নেবে বলে ঘোষণা দেন তিনি।

বিকেএমইএ সভাপতি সেলিম ওসমান বলেন, ঢাকা শহরের মানুষের চাহিদা কম। তারা শুধু রাতে মশার কামড় ছাড়া শান্তিতে ঘুমাতে চান আর দিনে আবর্জনার দুর্গন্ধ-যানজট এড়িয়ে নিরাপদে কর্মস্থলে যেতে চান। দুই মেয়র এটুকু চাহিদা পূরণ করতে পারলেই মানুষ খুশি হবে।

বিটিএমএ সভাপতি তপন চৌধুরী এ সময় বলেন, আগামী ৫ বছর দুই মেয়রের যোগ্যতা প্রমাণের চ্যালেঞ্জ। তাদের কাছে ব্যবসায়ী সমাজসহ নগরবাসীর প্রত্যাশা অনেক। নিজ নিজ ক্ষেত্রের অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে এই সময়ে মেয়ররা তাদের নির্বাচনী ওয়াদা পূরণে সচেষ্ট হবেন বলে তিনি আশাপ্রকাশ করেন।

দুই মেয়রকে আজ সংবর্ধনা দেবে এফবিসিসিআই ॥ ঢাকার দুই নবনির্বাচিত মেয়রকে সংবর্ধনা দিবে ব্যবসায়ী ও শিল্পপতিদের শীর্ষ সংগঠন এফবিসিসিআই। আজ সোমবার বেলা ১১টায় কাকরাইলের আইডিইবি ভবনে এই সংবর্ধনা দেয়া হবে। ইতোমধ্যে এফবিসিসিআইয়ের সংবর্ধনা নেয়ার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আনিসুল হক ও সাঈদ খোকন। রাজধানীর যানজট নিরসন ও মশামুক্ত মহানগরী গড়ে তুলতে দুই মেয়রকে অনুরোধ জানাবেন ব্যবসায়ীরা। এফবিসিসিআইয়ের সভাপতি কাজী আকরাম উদ্দিন আহমদের সভাপতিত্বে ওই অনুষ্ঠানে সংগঠনটির বর্তমান ও সাবেক নেতৃবৃন্দ, পরিচালকবৃন্দ, দেশের বিশিষ্ট শিল্পপতি ও ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ উপস্থিত থাকবেন বলে জানা গেছে।

প্রসঙ্গত, নবনির্বাচিত এই দুই মেয়রকে জিতিয়ে আনতে নিয়মিত প্রচারে অংশ নেন ব্যবসায়ীরা। এফবিসিসিআই সরাসরি সমর্থন করে ভোটও প্রার্থনা করে। অবশেষে কাক্সিক্ষত জয়ে খুশি হন ব্যবসায়ীরা। এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে কাজী আকরাম উদ্দিন আহমদ জনকণ্ঠকে বলেন, দুই মেয়রকে সংবর্ধনা দেয়া হবে। ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন এফবিসিসিআই এই দুই মেয়রপ্রার্থীকে সমর্থন দিয়েছিল। সেই সমর্থন ও নগরবাসীর ভোটে এরা নির্বাচিত হয়েছেন। এখন নগরবাসীর সেবা করার পালা। তিনি বলেন, যানজট ও মশা ঢাকার নিত্য সমস্যা। এছাড়া যত্রতত্র ময়লা ফেলার কারণে এ শহরে দুর্গন্ধও একটি সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে। আশা করছি, নবনির্বাচিত মেয়ররা এসব সমস্যা সমাধানে উদ্যোগী হবেন।

প্রকাশিত : ১১ মে ২০১৫

১১/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: