মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

সুন্দরবনে র‌্যবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ২

প্রকাশিত : ১০ মে ২০১৫, ০৩:৪২ পি. এম.

স্টাফ রিপোর্টার, বাগেরহাট ॥ পূর্ব সুন্দরবনের চাঁদপাই রেঞ্জে র‌্যাব-৮-এর সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুই বনদস্যু নিহত হয়েছে। রবিবার ভোরে বনের নন্দবালা খাল এলাকায় এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। ঘটনাস্থল থেকে ১৩টি দেশি-বিদেশি আগ্নেয়াস্ত্র ও একশ গুলি উদ্ধার হয়েছে। নিহতরা হল- বনদস্যু ‘মাইঝ্যা বাহিনী’র সেকেন্ড ইন কমান্ড আলমগীর(৩৫) এবং সদস্য রিপন (৩০)। এদের নিহতের খবরে বনজীবীরা স্বস্তি প্রকাশ করেছেন। দস্যু দমনে অভিযান আরও জোরদারের আহ্বান জানিয়েছেন তাঁরা।

উদ্ধার হওয়া আগ্নেয়াস্ত্রের মধ্যে দুটি রাইফেল, একটি ওয়ান শ্যুটারগান, ১০টি দেশি-বিদেশি বন্দুক এবং বিভিন্ন ধরনের ১’শ গুলি রয়েছে।

র‌্যাব-৮ এর উপ-অধিনায়ক মেজর আদনান কবির জানান, মাইঝ্যা বাহিনীর সদস্যরা গত পাঁচ মাস ধরে সুন্দরবনের চাঁদপাই রেঞ্জের হারবাড়িয়া, ফেয়ারওয়ে বয়া এবং নন্দবালা খাল এলাকায় জেলে, বাওয়ালী ও মৌয়ালদের অপহরণ করে মুক্তিপণ ও চাঁদা আদায় করে আসছে। এ অবস্থায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানা যায়, বাহিনীর প্রধান ‘মাইঝ্যা’ তার সহযোগীদের নিয়ে ওই এলাকায় অবস্থান করছে। এ খবর পেয়ে র‌্যাব-৮ এর একটি দল সেখানে অভিযানে যায়। দস্যুরা র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে গুলি ছুঁড়তে শুরু করে। তখন র‌্যাবও পাল্টা গুলি চালায়। প্রায় আধাঘন্টা গোলাগুলির পর দস্যুরা বনের গহীণে চলে যায়। পরে ঘটনাস্থলে তল্লাশী চালিয়ে ১৩টি দেশি বিদেশি আগ্নেয়াস্ত্র ও একশ গুলিসহ গুলিবিদ্ধ অবস্থায় দুই দস্যুর লাশ পাওয়া যায়। সুন্দরবনের জেলে ও বাওয়ালীরা নিহত দুজনকে মাইঝ্যা বাহিনীর সদস্য বলে সনাক্ত করে। লাশ ও অস্ত্রশস্ত্র পুলিশের কাছে হস্থান্তর করা হয়েছে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

প্রকাশিত : ১০ মে ২০১৫, ০৩:৪২ পি. এম.

১০/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: