কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৩ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

ভুল স্বীকার করে সুস্থ ধারার রাজনীতিতে ফিরে আসুন ॥ নাসিম

প্রকাশিত : ১০ মে ২০১৫

বিশেষ প্রতিনিধি ॥ ধ্বংসাত্মক রাজনীতি পরিহার করে সুস্থ ধারার রাজনীতিতে ফিরে আসার জন্য বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়ার প্রতি আহ্বান জানিয়ে আওয়ামী লীগের সভাপতিম-লীর সদস্য, কেন্দ্রীয় ১৪ দলের মুখপাত্র এবং স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, নিজের ভুল স্বীকার করে নিয়ে সুস্থ ধারার রাজনীতিতে ফিরে আসুন। আগামী নির্বাচনের জন্য প্রস্তুতি নিন। অন্যথায় সদ্য সমাপ্ত সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের মতো আগামীতে তৃণমূলে স্থানীয় সরকার থেকে শুরু করে জাতীয় সংসদ নির্বাচনেও জনগণ আপনাদের প্রত্যাখ্যান করবে।

শনিবার শাহবাগের গণগ্রন্থাগার সেমিনার কক্ষে বিশিষ্ট পরমাণু বিজ্ঞানী ড. এমএ ওয়াজেদ মিয়ার স্মরণে আয়োজিত এক আলোচনাসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশের মানুষ বিএনপি-জামায়াত জোটের নেতিবাচক রাজনীতির বিরুদ্ধে অবস্থান করেছে। তিন মাসের হরতাল-অবরোধের নামে নাশকতায় দেশে ব্যাপক জানমালের যে ক্ষতি হয়েছে তাতে মানুষের মধ্যে এখনও ক্ষোভের আগুন নেভেনি। বিএনপি চেয়ারপার্সনের উদ্দেশ করে তিনি আরও বলেন, জ্বালাও-পোড়াও এবং নৈরাজ্যকর কর্মসূচী পরিহার করে বিকল্প কর্মসূচী দিন। এখন আর মানুষ হরতাল-অবরোধ, জ্বালা-পোড়াও পছন্দ করে না। মানুষ উন্নয়ন চায়। মানুষের হাতে আন্দোলন করার সময় নেই। এ কারণে আন্দোলন আন্দোলন খেলা বন্ধ করুন। জামায়াতের সঙ্গ ত্যাগ করুন। উন্নয়নের মাধ্যমে দেশকে কিভাবে আরও এগিয়ে নিয়ে যাওয়া যায় সে ব্যাপারে কোন পরামর্শ থাকলে তা দিন। জনগণ মনে করলে আপনাদের ক্ষমতায় আনবে। তিনি বলেন, আমরা ভুল শুধরে নিয়েছি বলেই এবার সিটি নির্বাচনে জনগণের সমর্থন পেয়েছি। আপনার কর্মসূচী ভাল হলে আপনিও পাবেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ঐতিহাসিক ঘটনা ঘটেছে গত দুদিন আগে। ঐতিহাসিক ইন্দিরা-মুজিব চুক্তি বাস্তবায়ন হয়েছে। স্থল সীমান্ত চুক্তি বিল ভারতে পাস হয়েছে। ৬২ বছরে ভারতে কোন সরকার এ বিল পাস করেনি, আমাদের দেশের কোন সরকারও এটা পাস করাতে পারেনি। শেখ হাসিনার নেতৃত্বের সরকার সফল কূটনৈতিক তৎপরতার মাধ্যমে বিলটি পাস করাতে সক্ষম হয়েছে। আমরা আশা করি, তিস্তার সমস্যারও সমাধান হবে। ওয়াজেদ মিয়ার স্মৃতিচারণ করে মোহাম্মদ নাসিম বলেন, বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যার পর শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানাকে আগলে রেখেছিলেন ওয়াজেদ মিয়া। ওয়াজেদ মিয়া ক্ষমতার খুব কাছে থেকেও কোনদিন ক্ষমতার অপব্যবহার করেননি। বাংলাদেশে কত কিছু করা হয়, কেন ওয়াজেদ মিয়ার নামে একটা বিজ্ঞান প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় হবে না? আমরা এটা অবশ্যই করব। ড. এমএ ওয়াজেদ মিয়া মেমোরিয়াল ফাউন্ডেশন আয়োজিত এ সভায় সভাপতিত্ব করেন আয়োজক সংগঠনের সভাপতি ফরহাদ হোসেন। সভায় আরও বক্তব্য রাখেন সংবিধান বিশেষজ্ঞ ব্যারিস্টার এম আমীর-উল-ইসলাম, এ্যাডভোকেট হোসনে আরা বেগম বাবলী এমপি, পরমাণু শক্তি কমিশনের পরিচালক কানাইলাল চক্রবর্তী, পাট ও বস্ত্র মন্ত্রণালয়ের উপসচিব তপন কুমার নাথ প্রমুখ।

ধন্যবাদ না জানিয়ে বিএনপি নিচু মনের পরিচয় দিয়েছে- খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ॥ খাদ্যমন্ত্রী এ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম ভারতের লোকসভায় স্থল সীমান্ত চুক্তি বিল পাস হওয়ার ঘটনাকে শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকারের বড় সাফল্য হিসেবে আখ্যায়িত করে বলেছেন, ঐতিহাসিক ছিটমহল সমস্যার সমাধান হওয়ার চূড়ান্ত পর্যায়ে এলেও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ না দিয়ে বিএনপি নিচু মানসিকতার পরিচয় দিয়েছে। আসলে তারা (বিএনপি) দেশ ও জাতির উন্নয়ন ও অগ্রগতি চায় না। শনিবার সকালে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি মিলনায়তনে স্বাধীনতা পরিষদ আয়োজিত এক আলোচনাসভায় তিনি এসব কথা বলেন।

প্রকাশিত : ১০ মে ২০১৫

১০/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

অন্য খবর



ব্রেকিং নিউজ: