আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৭ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বুধবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

লা লিগায় বিদ্রোহের সুর

প্রকাশিত : ৯ মে ২০১৫
  • তবু আজ রাতে মাঠে নামছে বার্সিলোনা ও রিয়াল মাদ্রিদ

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ স্প্যানিশ লা লিগায় দেখা দিয়েছে বিদ্রোহের সুর। স্পেনের সরকারের সঙ্গে টিভি স্বত্ব নিয়ে বিবাদের জের ধরে ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে দেশটির ফুটবল ফেডারেশন। যে কারণে চলমান ২০১৪-১৫ মৌসুমে লা লিগার শেষ দুই পর্বের খেলা নিয়ে জটিলতা সৃষ্টি হয়েছে।

এমন অরাজক পরিস্থিতির মাঝে অবশ্য আজ রাতে মাঠে নামছে দুই পরাশক্তি বার্সিলোনা ও রিয়াল মাদ্রিদ। দুটি দলই খেলবে নিজেদের মাঠে। নুক্যাম্পে বার্সিলোনার প্রতিপক্ষ রিয়াল সোসিয়েডাড। সান্টিয়াগো বার্নাব্যুতে ভ্যালেন্সিয়ার বিরুদ্ধে লড়বে রিয়াল মাদ্রিদ। চলমান আসরে রিয়াল ও বার্সাই আছে শিরোপা দৌড়ে। যে কারণে প্রতিটি ম্যাচই দল দুটির জন্য গুরুত্বপূর্ণ। বর্তমানে ৩৫টি করে ম্যাচ শেসে ৮৭ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে বার্সিলোনা। ৮৫ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে রিয়াল মাদ্রিদ।

পেশাদার ফুটবল লীগের নতুন টেলিভিশন সম্প্রচার স্বত্ব আইন নিয়ে সৃষ্টি হয়েছে জটিলতা। স্পেন সরকারের সঙ্গে এই দ্বন্দ্বে জড়িয়ে ১৬ মে থেকে স্পেনের সব ধরনের পেশাদার ফুটবল বন্ধ করে দেয়ার হুমকি দিয়েছে রয়্যাল স্প্যানিশ ফুটবল ফেডারেশন (আরএফইএফ)। ফলে স্পেনের ঘরোয়া ফুটবলে সব ধরনের খেলাই বন্ধ হওয়ার উপক্রম হয়েছে। ধর্মঘটের কারণে স্পেনজুড়ে ৬ লাখ খেলোয়াড় ও ৩০ হাজার ম্যাচের ওপর প্রভাব পড়বে। টিভি স্বত্ব নিয়ে সম্প্রতি স্পেনের মন্ত্রিসভায় নতুন আইন পাস হয়। আইনটি এখন পার্লামেন্টে পাস হওয়ার অপেক্ষায় আছে। স্পেনের পেশাদার ফুটবল লীগের (এলএফপি) সমর্থন নিয়ে এই আইন তৈরি করা হয়। টিভি স্বত্বের টাকা বণ্টনে আরও সাম্য আনার লক্ষ্যও আছে আইনটির। তবে স্পেনের ফুটবল ফেডারেশন ও প্লেয়ার্স ইউনিয়ন নতুন এই আইনের বিরুদ্ধে। ধর্মঘট ডাকার বিবৃতিতে স্পেনের ফুটবল ফেডারেশন উল্লেখ করে, সরকার আইনটি নিয়ে তাদের সঙ্গে যথাযথ আলোচনা করেনি।

আগে স্পেনের ফুটবল ক্লাবগুলো টেলিভিশন সম্প্রচার স্বত্ব নিয়ে নিজেরাই সুবিধামতো দর কষাকষি করে চুক্তি করতে পারত। কিন্তু নতুন আইনে এই স্বত্ব চুক্তি হবে ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগের মতো নিলামের মাধ্যমে। এতে রিয়াল মাদ্রিদ ও বার্সিলোনার মতো বড় ক্লাবগুলোর আর্থিক আধিপত্য কমবে এবং লাভবান হবে ছোট ক্লাবগুলো। আরএফইএফের দাবি, সরকার আলোচনা করে এ আইন করেনি। কাজেই এটা বাতিল করতে হবে। আরএফইএফ এও মনে করে, আইনটি তাদের প্রতি এক ধরনের অশ্রদ্ধাই। এমনকি ফুটবলে সরকারের অনাকাক্সিক্ষত হস্তক্ষেপও। এমন পরিস্থিতিতে লা লিগার চলতি মৌসুমের সর্বশেষ দুই পর্ব এখন অনিশ্চিত। এর মধ্যে আছে বার্সিলোনা-এ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের মতো গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচও।

শুধু তাই নয়, ৩০ মে বার্সিলোনা এ্যাথলেটিক বিলবাওয়ের মধ্যকার স্প্যানিশ কাপের ফাইনাল নিয়েও ধোঁয়াশা সৃষ্টি হয়েছে। কোন আলোচনা ছাড়া সরকার এ আইন পাস করায় প্রতিবাদ করেছে স্প্যানিশ ফুটবলার্স এ্যাসোসিয়েশনও (এএফই)। এএফইর প্রতি নিজের সমর্থন জানিয়ে বার্সা তারকা লিওনেল মেসি বলেন, এএফই আমাদের সঙ্গে দেখা করে কথা বলেছে। আমরা খেলোয়াড়রা তাদের সঙ্গেই আছি।

প্রকাশিত : ৯ মে ২০১৫

০৯/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: