কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

বীরের বেশে সিংহাসন পুনরুদ্ধার মেসির

প্রকাশিত : ৮ মে ২০১৫

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ বীরের বেশে সিংহাসন পুনরুদ্ধার করেছেন লিওনেল মেসি। মঙ্গলবার জুভেন্টাসের বিরুদ্ধে এক গোল করে চ্যাম্পিয়ন্স লীগের ইতিহাসে ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ গোলের রেকর্ড গড়েন রিয়াল মাদ্রিদ তারকা ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো। কিন্তু মাত্র ২৪ ঘণ্টা পরই বুধবার রাতে হারানো সাম্রাজ্যের দখল নিয়েছেন আর্জেন্টাইন অধিনায়ক। বেয়ার্ন মিউনিখের বিরুদ্ধে জোড়া গোল করে মেসিই এখন চ্যাম্পিয়ন্স লীগের ইতিহাসে সেরা গোলদাতা।

বেয়ার্নের বিরুদ্ধে প্রথম গোল করে রোনাল্ডোকে স্পর্শ করেন মেসি। এ সময় দু’জনেরই গোলসংখ্যা হয় ৭৬টি করে। ম্যাচের ৮০ মিনিটে অসাধারণ এক গোল করে নিজের গোলসংখ্যা ৭৭-এ নিয়ে যান আর্জেন্টাইন অধিনায়ক। অনেক দিন ধরেই চ্যাম্পিয়ন্স লীগের ইতিহাসে গোলদাতাদের তালিকার শীর্ষস্থানটি এ দুজনের মধ্যে অদলবদল হচ্ছে। আবারও এটি এককভাবে মেসির দখলে গেল। চলমান আসরেও এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ গোলের মালিক মেসি। তার গোলসংখ্যা ১০টি। আর রোনাল্ডোর ৯টি।

অসাধারণ গোল আর রেকর্ড গড়ার পর শত্রু-মিত্র সবার প্রশংসার স্রোতে ভাসছেন মেসি। ম্যাচ শেষে বার্সা মিডফিল্ডার আন্দ্রেস ইনিয়েস্তা বলেন, মেসির দ্বিতীয় গোলটি অনন্য। সে আপনাকে বাকহীন করে দেয়, কারণ যা কেউ করে না। মেসি তাই করে যাচ্ছে। জ্যাভিয়ের মাশ্চেরানো বলেন, সে এমন একজন খেলোয়াড় যে, বর্ণনা করা যায় না। শুধু তাকে দেখতে হবে আপনাকে। না দেখলে এলেই বোঝা সম্ভব নয় মেসি কী করেছেন বা কী করে যাচ্ছেন। কিন্তু যারা কাছ থেকে মেসির এই কীর্তি দেখেন, তারা তো মেসিকে প্রশংসায় ভাসাবেনই। কোচ বা সতীর্থরাই শুধু নন, মেসিকে প্রশংসা বৃষ্টিতে ভাসিয়েছেন সাবেক অনেক ফুটবলারই। ইংল্যান্ডের সাবেক স্ট্রাইকার গ্যারি লিনেকার অনলাইনে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম টুইটারে বলেন, মেসির খেলা দেখাটা দারুণ এক আনন্দ। হল্যান্ড ও বার্সিলোনার সাবেক স্ট্রাইকার প্যাট্রিক ক্লুইভার্ট বলেন, সত্যি সে অন্য গ্রহ থেকে এসেছে। সাবেক শিষ্যের প্রশংসা করতে বাধ্য হয়েছেন বেয়ার্ন কোচ পেপ গার্ডিওলাও। তিনি বলেন, আপনাকে নিশ্চিত করতে হবে, সে যেন খেলায় না থাকে এবং বল না পায়। কারণ, যখন সে (এটা) পাবে, তখন আপনি কিছু করতে পারবেন না।

এদিকে ম্যাচ শেষে স্বয়ং মেসি বলেছেন তিনি নাকি ভাগ্যের জোরে গোল পেয়েছেন। সাংবাদিকদের মেসি বলেন, প্রথম গোলটা করা আমাদের জন্য ছিল ভাগ্যের ব্যাপার। পরের গোলটাও এলো খুব দ্রুত। ফিরতি লেগের আগে আমরা ভাল একটা ফল পেয়েছি। এমনটাই আমরা চেয়েছিলাম। কিন্তু জার্মানিতে গিয়ে খেলা খুব কঠিন। আমরা ভালভাবে জিতেছি। কিন্তু জার্মানিতে নিজেদের সেরাটাই খেলতে হবে। মেসির প্রথম গোলের পর বার্সার ফুটবলাদের উদ্যাপন ছিল দেখার মতো। গোলের পর এভাবে আনন্দে ফেটে পড়তে খুব কমই দেখা যায় মেসিকে। এমন উদ্নের কারণ কী? মেসি বলেন, ওই গোলটার গুরুত্ব খুব বেশি ছিল বলে আমার আনন্দটাও বেশি হচ্ছিল। আসলে আমরা কোনভাবেই গোল করতে পারছিলাম না। এমন গুরুত্বপূর্ণ একটা ম্যাচে ওই গোলটার গুরুত্বও অনেক বেশি।

প্রকাশিত : ৮ মে ২০১৫

০৮/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: