কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৫ ডিসেম্বর ২০১৬, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

নির্বাচনী খেলায় জিততে হলে জামায়াত ছাড়তে হবে

প্রকাশিত : ৮ মে ২০১৫
  • বগুড়ায় ছাত্রলীগের সম্মেলনে খালেদা জিয়ার উদ্দেশে স্বাস্থ্যমন্ত্রী নাসিম

স্টাফ রিপোর্টার, বগুড়া অফিস ॥ খালেদা জিয়াকে ২০১৯ সালে সাধারণ নির্বাচনে খেলার জন্য প্রস্তুতি নেয়ার আহ্বান জানিয়ে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে শেখ হাসিনাও ওই নির্বাচনে খেলে বিএনপিকে হোয়াইট ওয়াশ করবে। যেমনটি বাংলার টাইগাররা ক্রিকেটে পাকিস্তানকে হোয়াইট ওয়াশ করেছে। তিনি পরিষ্কার জানিয়ে দেন কোন তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন হবে না। মোহাম্মদ নাসিম সিঙ্গাপুর ও মালয়েশিয়ার উদাহরণ টেনে বলেন, ওইসব দেশের জনগণ লি কুয়ান ও মাহাথির মোহাম্মদকে দেশ গড়ার জন্য দীর্ঘ সময় দিয়ে ক্ষমতায় রেখেছিল বলেই উন্নত হয়েছে। বাংলাদেশকে উন্নয়নের ধারায় এগিয়ে নিতে শেখ হাসিনাকে দীর্ঘ সময় ক্ষমতায় রাখার আহ্বান জানান। মন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সভাপতিম-লীর সদস্য মোহাম্মদ নাসিম বৃহস্পতিবার বিকেলে শহরের শহীদ খোকন পার্কে জেলা ছাত্রলীগের বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন। জেলা ছাত্র লীগের সভাপতি আল-রাজী জুয়েলের সভাপতিত্বে এই সম্মেলনে প্রধান অতিথি বলেন, ছাত্রলীগকে অবশ্যই শিক্ষিত হবে। কোন সন্ত্রাসী যেন ছাত্রলীগে প্রবেশ করতে না পারে। তিনি বলেন, এর আগের সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগ যে ভুল করেছিল এবার তা শুধরে নিয়ে মন্ত্রীরা প্রতিটি এলাকায় কর্মীর মতো কাজ করে মানুষের ভালবাসা পেয়ে নির্বাচনে জিতেছে। অন্য দিকে খালেদা জিয়া নির্বাচনী খেলায় পরাজিত সৈনিকের মতো নির্বাচনের দিনে মধ্য পথে পালিয়ে গেলেন। মোহাম্মদ নাসিম খালেদা জিয়াকে উদ্দেশ্য করে বলেন, নির্বাচনী খেলায় জিততে হলে জামায়াতকে ছাড়তে হবে। জামায়াতকে ছেড়ে নির্বাচনে থাকলে আসন পেতেও পারতেন। মন্ত্রী বললেন গত কয়েক যুগেও কোন সরকারের আমলে যা হয়নি সেই সীমান্ত চুক্তি বাস্তবায়িত হতে যাচ্ছে। এর আগে গঙ্গার পানি চুক্তি, পার্বত্য চট্টগ্রাম চুক্তি হয়েছে। আগামীতে তিস্তার চুক্তিও হবে। বিএনপির উদ্দেশে মন্ত্রী বলেন, মানুষ হত্যা করে ট্যাক্সি ড্রাইভারকে পুড়িয়ে দেশে নৈরাজ্য সৃষ্টি করে আওয়ামী লীগকে ক্ষমতা থেকে নামাতে চেয়েছিলেন তা পারেননি। সাধারণ মানুষ বিএনপিকে ভালভাবেই চিনেছে। বগুড়ায় বিএনপির নেতৃত্বে জামায়াতের সহযোগিতায় কত বাড়িঘর জ্বালিয়ে দিয়েছে তা সাধারণ মানুষ দেখেছে। তিন মাস ধরে হরতাল অবরোধ করে মানুষকে যে দুর্ভোগের মধ্যে ফেলেছিলেন তারপরও কি করে আশা করেন জনগণ আপনাদেরে ভোট দেবে। নির্বাচন অবশ্যই হবে এবং তা হবে ২০১৯ সালে। সংলাপ হবে তবে খুনীর সঙ্গে নয়। অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন বগুড়া-১ আসনের সংসদ সদস্য মোঃ আব্দুল মান্নান, কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মমতাজ উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক মজিবর রহমান মজনু, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নাজমুল আলম, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ নেতা মোরশেদ আলম চৌধুরী, হাসানুল হক বান্না, মারুফ বিল্লাহ প্রমুখ। সংসদ সদস্য আব্দুল মান্নান বলেন, ছাত্রলীগে তারাই থাকবে যাদের সঙ্গে লাইব্রেরি ও লেবরেটরির সম্পর্ক রয়েছে। শেখ হাসিনার সরকার যেভাবে হাল ধরেছেন তাতে আগামী ২০১৯ সালের মধ্যে মধ্যম আয়ের দেশ এবং ২০৪১ সালে বাংলাদেশ হবে ধনী দেশ।

প্রকাশিত : ৮ মে ২০১৫

০৮/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: