আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৭ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বুধবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

বরিশালে ধান নিয়ে কৃষক দিশেহারা

প্রকাশিত : ৮ মে ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার, বরিশাল ॥ বরিশালসহ গোটা দক্ষিণাঞ্চলজুড়ে ইরি-বোরা ধান কাটার ধুম পড়লেও ধানের দরপতনে কৃষকরা এখন দিশেহারা হয়ে পড়েছেন। গত সাত বছরের মধ্যে এবার বোরো ধানের দর সর্বনিম্নে রয়েছে। ফলে লাখ লাখ কৃষক বোরো চাষ করে লাভের মুখ দেখাতো দূরের কথা, এখন তাদের উৎপাদন ব্যয় উঠবে কি-না তা নিয়ে মহাদুশ্চিন্তায় রয়েছেন।

জানা গেছে, বরিশালসহ গোটা দক্ষিণাঞ্চলের বাজারে এখন প্রতিমণ বোরো ধান বিক্রি হচ্ছে চার থেকে সাড়ে চারশ’ টাকায়। অথচ প্রতিমণ ধানে কৃষকের উৎপাদন ব্যয় হয়েছে প্রায় ছয়শ’ টাকা। বিভিন্ন ব্লকের ম্যানেজাররা জানান, ডিজেল নির্ভর সেচ ব্যবস্থার ব্লকে প্রতিমণ ইরি- বোরো ধানের উৎপাদন ব্যয় হয়েছে প্রায় ৭শ’ টাকা। দক্ষিণাঞ্চলের বোরো ব্লকের ৬০ ভাগ সেচ ব্যবস্থা এখনও ডিজেল চালিত সেচযন্ত্রের ওপর নির্ভর। মাঠ পর্যায়ের উপ-সহকারী কৃষি অফিসাররা জানিয়েছেন, চলতি বছর অধিকাংশ এলাকায় অধিক ফলনশীল হাইব্রীড জাতের ধান আবাদ হয়েছে। এতে চলতি মৌসুমে প্রতি হেক্টরে ৭.২ মেট্রিক টন ধান উৎপাদিত হলেও এ সব ধান আবাদে সার ও বালাই ব্যবস্থাপনা যথেষ্ট ব্যয়বহুল। অথচ কৃষকেরা ধানের ন্যায্য দাম না পাওয়ায় আগামীতে বোরো চাষে অনেকেই আগ্রহ হারিয়ে ফেলবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

ন্যায্যমূল্য দাবিতে র‌্যালি, পথসভা

নিজস্ব সংবাদদাতা, কলাপাড়া থেকে জানান, সরকার নির্ধারিত দামে বোরো ধান ক্রয়ের দাবিতে কলাপাড়ায় কৃষকরা র‌্যালি করেছে। বৃহস্পতিবার সকালে এ র‌্যালি পৌর শহর প্রদক্ষিণ করে। র‌্যালি শেষে প্রেসক্লাবের সামনে পথসভা করেন কৃষকরা। সভায় বক্তব্য রাখেন, নীলগঞ্জ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আঃ মালেক খান, কৃষক মৈত্রীর সাধারণ সম্পাদক লাইলী বেগম, উপকূলীয় জনকল্যাণ সংঘের সভাপতি জয়নাল আবেদীন প্রমুখ।

বাগেরহাটে স্মার্ট প্রকল্পের কাজ শুরু

স্টাফ রিপোর্টার, বাগেরহাট ॥ বাগেরহাটের পাঁচটি উপজেলায় ইকো- কোঅপারেশনের সহযোগিতায় কোডেক স্মার্ট প্রকল্পের আওতায় ভূমিহীন ও প্রান্তি জনগোষ্ঠীর দারিদ্র্য নিরসন, জলবায়ু পরিবর্তন ও প্রাকৃতিক প্রতিকূল পরিবেশে টেকসই জীবিকা নিশ্চিতকরণের লক্ষ্যে কাজ শুরু হয়েছে। বৃহস্পতিবার বাগেরহাট সার্কিট হাউসে এ প্রকল্পের অবহিতকরণ কর্মশালার উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক মোঃ জাহাঙ্গীর আলম। কোডেক ফোকাল-সাইফুল্লাহর সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য দেন জয়নুল আবেদিন, ডিএলও ডাঃ সুখেন্দু গায়েন, ডিএফও নারায়ণ মণ্ডল প্রমুখ।

ইস্ট ওয়েস্ট ভার্সিটিতে নবীনবরণ

ইস্ট ওয়েস্ট বিশ্ববিদ্যালয় গ্রীষ্মকালীন সেমিস্টারের নবীন শিক্ষার্থীদের বরণ করল। রাজধানীর আফতাব নগরের নিজস্ব ক্যাম্পাসে বিশ্ববিদ্যালয়ের ১১টি বিভাগ, নিজ নিজ শিক্ষার্থীদের জন্য পৃথক নবীনবরণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। এবারে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর শ্রেণীতে এগারো শ’রও বেশি শিক্ষার্থীকে বরণ করা হয়।

এতে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারপার্সন ও বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গবর্নর ডক্টর মোহাম্মদ ফরাসউদ্দিন ও বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক আহমদ শফি। -বিজ্ঞপ্তি।

সোনালী ব্যাংকের শিক্ষাবৃত্তি প্রদান

দেশব্যাপী আর্থিকভাবে অনগ্রসর ও প্রত্যন্ত অঞ্চলের দরিদ্র, আদিবাসীর সন্তান ও প্রতিবন্ধী মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে সোনালী ব্যাংকের শিক্ষাবৃত্তি প্রদানের অংশ হিসেবে বুধবার ঢাকা অঞ্চলের ৪১ দরিদ্র মেধাবী শিক্ষার্থীর মাঝে ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ে শিক্ষাবৃত্তির চেক প্রদান করা হয়। এককালীন জনপ্রতি ১৫ হাজার টাকার শিক্ষাবৃত্তির চেক প্রদান করেন ব্যাংকের ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টর মোঃ খোরশেদ হোসেন ও দিদার মোঃ আব্দুর রব। সোনালী ব্যাংক সিএসআরের আওতায় ২০১৪ সালে দেশব্যাপী ১২শ’ দরিদ্র মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে এক কোটি আশি লাখ টাকা বিতরণ করেছে । -বিজ্ঞপ্তি।

প্রকাশিত : ৮ মে ২০১৫

০৮/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: