আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

বিমানের অভ্যন্তরীণ সব রুটে ভাড়া বাড়ল

প্রকাশিত : ৬ মে ২০১৫
  • লাভজনক করতে হলে এর বিকল্প নেই ॥ কর্তৃপক্ষ

আজাদ সুলায়মান ॥ দীর্ঘদিন পর চালু হওয়া বিমানের অভ্যন্তরীণ রুটের ভাড়া এত কম ছিল যে, তাতে যাত্রীরাও হতবাক। সব রুটের এক ভাড়া- মাত্র ২৭০০ টাকা। এতে সাড়াও ছিল সে রকম। গত এক মাসে প্রতিটি ফ্লাইটের গড় লোড ফ্যাক্টর ছিল শতকরা নব্বই ভাগেরও বেশি। এ অবস্থায় বিমান হঠাৎ করেই ভাড়া বাড়িয়ে দেয় সব রুটে। গত শুক্রবার থেকে নতুন ভাড়া কার্যকর করা হয়েছে। এখন প্রশ্ন ওঠেছে-বর্ধিত ভাড়ায় লোড ফ্যাক্টরে কোন নেতিবাচক প্রভাব ফেলে কিনা।

মার্কেটিং বিভাগের পরিচালক মোহাম্মদ শাহনেওয়াজ জনকণ্ঠকে জানিয়েছেন, বিমানের সব অভ্যন্তরীণ রুটের ভাড়া বাড়ানো হয়েছে। যেমন চট্টগ্রাম ও কক্সবাজার রুট ছাড়া ৫টি অভ্যন্তরীণ রুটের ভাড়া ২৭শ’ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৩১শ’ টাকা করা হয়েছে। ১ মে থেকে নতুন এই ভাড়া কার্যকর করা হয়েছে। ঢাকা চট্টগ্রাম ও ঢাকা কক্সবাজারের নতুন ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে যথাক্রমে সাড়ে ৩ হাজার ও ৪ হাজার টাকা। ভাড়া বাড়ানোর পরও এখনও অন্যান্য প্রাইভেট এয়ারলাইন্সের তুলনায় সেটা কম। কাজেই ভাড়া বাড়ানোর কারণে লোড ফ্যাক্টরে কোন নেতিবাচক প্রভাব পড়বে না।

দীর্ঘদিন পর গত ৬ এপ্রিল সোমবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা লিজে আনা দুটি টার্বো প্রপ উড়োজাহাজ দিয়ে বিমানের অভ্যন্তরীণ ৭টি রুট উদ্বোধন করেন। শুরুতে উড়োজাহাজ দুটি নিয়ে কিছুটা সমস্যা হলেও সময়ের ব্যবধানে যাত্রীদের কাছে ব্যাপক জনপ্রিয় হয়ে উঠে অভ্যন্তরীণ রুটগুলো।

কেন ভাড়া বাড়ানো হলো জানতে চাইলে বিমানের কোন বিভাগই এর যৌক্তিক কারণ দেখাতে পারেনি। বিমান চেয়ারম্যান এয়ার মার্শাল জামাল উদ্দিন আহমদ শুধু বলেছেন, এত কম ভাড়ায় কি করে চলে? বিমানের সেবা তো অন্য যে কোন এয়ারলাইন্সের চেয়েই উন্নত মান ও নিরাপদের। কিন্তু জ্বালানিসহ অন্যান্য ব্যয় তো কম নয়। এ সব বিবেচনায় বাড়ানো হয়েছে। লাভজনক করতে হলে ভাড়া বাড়ানোর বিকল্প নেই।

মার্কেটিং বিভাগ সূত্রে জানা যায়, উদ্বোধনের পর থেকেই সব রুটের যাত্রীদের জন্য ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছিল ২৭শ’ টাকা। সম্পূর্ণ নতুন উড়োজাহাজ দিয়ে এই ভাড়ায় বিমানের লোকসান হচ্ছিল। এ কারণে ভাড়া ৪শ’ টাকা বাড়ানো হয়েছে। তবে চট্টগ্রাম ও কক্সবাজার রুটের ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে সাড়ে ৩ হাজার ও ৪ হাজার টাকা। আগামী ৩১ মে পর্যন্ত এই ভাড়া কার্যকর থাকবে।

জানা যায়, উড়োজাহাজ দুটি দিয়ে অভ্যন্তরীণ রুট ছাড়াও কয়েকটি আন্তর্জাতিক রুট পরিচালনা করা হবে। সে ক্ষেত্রে প্রয়োজন হলে এ ধরনের আরও একটি উড়োজাহাজ ভাড়া নেয়া হতে পারে। এক ঘণ্টারও কম সময়ের ফ্লাইটে অভ্যন্তরীণ গন্তব্যের বিমান ভাড়া ক্ষেত্রবিশেষে কোন কোন আন্তর্জাতিক রুটের সমান। তারপরও টানা অবরোধ-হরতালে বাড়তি বিমান ভাড়া দিয়ে নির্দিষ্ট গন্তব্যে যেতে বাধ্য হয়েছে অনেকেই।

জানা যায়, সাম্প্রতিক বিএনপি জামায়াতের লাগাতার হরতাল অবরোধের দরুন সড়ক পথে অচলাবস্থার সুযোগে ভাড়া বাড়িয়ে দেয় প্রাইভেট এয়ারলাইন্সগুলো। ঢাকা কক্সবাজার রুটে একটি আসা যাওয়া ১০ হাজার টিকেট ১৫ থেকে ২০ হাজার টাকা পর্যন্ত বিক্রি করা হয়েছে। গত তিন মাসের এই মনোপলি ব্যবসায় প্রাইভেট এয়ারলাইন্সগুলো গলাকাটা ব্যবসা করে। এ অবস্থায় বিমান একযোগে পাঁচটি রুটে ফ্লাইট চালু করায় এই মনোপলি ব্যবসায় বড় ধরনের আঘাত আনে। বিমানের তুলনায় প্রাইভেট এয়ারলাইন্সগুলোর যাত্রী হঠাৎ হ্রাস পেতে থাকে। মাত্র ২৭শ’ টাকা ভাড়া যাত্রীদের জন্য বেশ সুলভ মূল্য হিসেবে বিবেচিত হওয়ায় বাড়তে থাকে বিমানের জনপ্রিয়তা। এতে অভ্যন্তরীণ রুটের ব্যবসা চাঙ্গা হয়ে ওঠে।

উল্লেখ্য, উড়োজাহাজ সঙ্কট ও ক্রমাগত লোকসানের কারণে আড়াই বছর আগে অভ্যন্তরীণ রুটে ফ্লাইট বন্ধ করে দেয় বিমান। এই সুযোগে অভ্যন্তরীণ রুটে বেসরকারী এয়ারলাইন্সগুলোর বিকাশ ঘটে। ফলে তারা একচেটিয়া অব্যাহতভাবে ভাড়া বাড়াতে শুরু করে।

প্রকাশিত : ৬ মে ২০১৫

০৬/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: