কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৫ ডিসেম্বর ২০১৬, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

অবশেষে আমদানি বাড়ছে

প্রকাশিত : ৫ মে ২০১৫

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ চলতি বছর প্রথমবারের মত মার্চ মাসে আমদানি বেড়েছে। এ মাসে দেশে ৩৯৭ কোটি টাকা মূল্যের পণ্য আমদানি করা হয়েছে। গত বছরের একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ৩৬২ কোটি ডলার। গত বছরের মার্চের তুলনায় এবছর আমদানি বেড়েছে প্রায় ১৪ শতাংশ। পণ্য আমদানির জন্য খোলা ঋণপত্রের ভিত্তিতে এ হিসাব নির্ধারণ করা হয়েছে। আমদানি করা পণ্যের মধ্যে ভোগ্য পণ্য, শিল্পের কাঁচামাল এবং মূলধনী যন্ত্রপাতি রয়েছে। শুধু গতবছর নয়, আগের মাসের তুলনায়ও মার্চে আমদানি বেড়েছে। চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে ৩০৫ কোটি ডলার মূল্যের পণ্য আমদানি করা হয়েছিল।

বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য পর্যালোচনা করে দেখা যায়, বেশ কিছু দিন ধরেই আমদানিতে ধীর গতি চলছিল। দেশে রাজনৈতিক অস্থিরতার কারণে নতুন শিল্প স্থাপন ও বিদ্যমান শিল্পের সম্প্রসারণ মুখ থুবড়ে পড়ায় কাঁচামাল ও মূলধনী যন্ত্রপাতির আমদানি কমেছে। অন্যদিকে বিশ্ববাজারে ভোগ্য পণ্যের মূল্যের নিম্নগতির কারণে একই পরিমাণ পণ্য আমদানিতে আগের চেয়ে কম অর্থ পরিশোধ করতে হচ্ছে। মূলত এই দুই কারণে আমদানি কমেছে গত কয়েক মাসে।

মার্চে ঋণপত্রের নিষ্পত্তি হয়েছে ৩৩৪ কোটি ডলারের। আগের বছরের মাসে এর পরিমাণ ছিল ২৭১ কোটি ডলার। এ হিসেবে ঋণপত্র নিষ্পত্তি বেড়েছে প্রায় ২৩ শতাংশ। ঋণপত্রের নিষ্পত্তিকেই প্রকৃত আমদানি বিবেচনা করা হয়। তবে সামগ্রিক আমদানি বাড়লেও মার্চে মূলধনী যন্ত্রপাতির আমদানি কমেছে। গত বছর মার্চে ১৯ কোটি ৪৫ লাখ ডলার মূল্যের মূলধনী যন্ত্রপাতি আমদানি করা হলেও, গত মার্চে এসেছে ১৯ কোটি ৩৩ লাখ ডলারের পণ্য।

প্রকাশিত : ৫ মে ২০১৫

০৫/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: