কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৩ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

লাফার্জ-হোলসিমে মার্জারে সব বাধা দূর

প্রকাশিত : ৪ মে ২০১৫

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ বিশ্বের বড় দুই সিমেন্ট কোম্পানি লাফার্জ ও হোলসিমের একীভূতকরণের (মার্জার) সব বাধা দূর হয়ে গেছে। মার্জারের বিরোধী লাফার্জের অন্যতম শীর্ষ শেয়ারহোল্ডার ইউরোসিমেন্ট তার মত পাল্টেছে। একেবারে শেষ মুহূর্তে এসে মার্জারের প্রতি সমর্থন জানিয়েছে কোম্পানিটি।

এদিকে সদ্য শেষ হওয়া প্রান্তিকে দুটি কোম্পানিরই আয় বেড়েছে। এদিকে মার্জারের অনিশ্চয়তা কেটে যাওয়া, অন্যদিকে মুনাফায় প্রবৃদ্ধি-এ দুই বিষয়ের প্রভাবে লাফার্জের শেয়ারের দামও বেশ বেড়েছে।

সম্প্রতি প্রকাশিত আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যম ব্লুমবার্গ, রয়টার্স ও ফাইন্যান্সিয়াল টাইমসের প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, শেয়ারহোল্ডারদের জন্য শেষমেশ সুখবরই বয়ে আনতে যাচ্ছে কোম্পানি দুটি।

এক বিবৃতিতে হোলসিম জানিয়েছে, বছরের প্রথম প্রান্তিকে তাদের নিট আয় চারগুণ বৃদ্ধি পেয়েছে। আর একই সময়ে লাফার্জের মুনাফা বেড়েছে প্রত্যাশার চেয়ে বেশি। ব্যারি ডিক্সন নামের এক বিশেষজ্ঞ জানান, মার্জারে ইউরোসিমেন্ট তাদের সমর্থন জানিয়েছে; এখন শান্তিপূর্ণভাবে আগামী ৮ মে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া ভোট সম্পন্ন করা উচিত।

এদিকে ব্লুমবার্গ টেলিভিশনের এক সাক্ষাতকারে লাফার্জেন নির্বাহী প্রধান ব্রুনো ল্যাফন্ট জানান, ইউরোসিমেন্টের সমর্থন মার্জার সম্পন্ন করার জন্য অনেক বেশি মূল্যবান। ব্লুমবার্গের প্রতিবেদনে বলা হয়, সুইজারল্যান্ডের জুরিখে বৃহস্পতিবার হোলসিমের শেয়ারের দাম ২.৬ শতাংশ পর্যন্ত বেড়ে যায়। আর ফ্রান্সের প্যারিসে লাফার্জের শেয়ারের দাম উঠে ৬.৩ শতাংশ পর্যন্ত।

প্রসঙ্গত, মার্জার চুক্তিতে গত বছর একমত হওয়ার পর থেকে লাফার্জের নৈপুণ্য নিয়ে দুশ্চিন্তায় ছিলেন হোলসিমের বিনিয়োগকারীরা। এই দুশ্চিন্তা কাটাতে গত কয়েক সপ্তাহে চুক্তিকে একটি বেশি চেপে ধরেছে কোম্পানি দুটি। মার্জার চুক্তি সম্পন্ন হলে সুইস কোম্পানি হোলসিম এখন যৌথ কোম্পানির বড় একটি অংশ দখল করবে।

খবরে আরও বলা হয়, সুদ, কর ও অপচয় বাদ দিয়ে প্রথম প্রান্তিকে লাফার্জের আয় ১৭ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪০ কোটি ৩০ লাখ ইউরোতে। এই প্রান্তিকে কোম্পানিটির লক্ষ্য ছিল ৩৬ কোটি ৮০ লাখ ইউরো আয় করা।

প্রকাশিত : ৪ মে ২০১৫

০৪/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: