আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৭ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বুধবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

অনলাইনে উচ্চশিক্ষা

প্রকাশিত : ৩ মে ২০১৫
অনলাইনে উচ্চশিক্ষা

যাদের জন্য অনলাইন শিক্ষা

বিশেষ করে সে সব মানুষের কাছে, যারা চাকরি বা অন্যান্য কাজ বা দায়িত্বের কারণে ইউনিভার্সিটি ক্যাম্পাসে গিয়ে পড়াশোনার জন্য আলাদা সময় বের করতে পারে না। এছাড়া যারা নিজের পরিবার ছেড়ে অন্য কোন শহরে বা দেশে গিয়ে পছন্দমতো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে পড়তে পারছে না, তাদের জন্যও কাক্সিক্ষত উচ্চ শিক্ষার সুযোগ করে দিয়েছে আধুনিক এ শিক্ষা পদ্ধতিটি।

বিশ্ববিদ্যালয় ও বিষয়

বিশ্বের সব বিখ্যাত বিশ্ববিদ্যালয়েই যে অনলাইন শিক্ষার সুবিধা রয়েছে, তা নয়। নামকরা বিশ্ববিদ্যালয়ে অনলাইনে আন্ডারগ্র্যাজুয়েট হতে পোস্ট-গ্র্যাজুয়েট পর্যায়ের পড়াশোনা করার সুযোগ রয়েছে। তন্মধ্যে কিছু বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম ও পড়ার বিষয় উল্লেখ করছি।

> ইউনিভার্সিটি অব ফনিক্স। বিষয়- এ্যাকাউন্টিং, বিজনেস এ্যাডমিনিস্ট্রেশন, ই-বিজনেস, ফিন্যান্স ইনফরমেশন সিস্টেম, ম্যানেজমেন্ট, মার্কেটিং, হেলথ এ্যাডমিন, হিউমেন সার্ভিস, আইটি ও নার্সিং।

> কালপান ইউনিভার্সিটি। বিষয়- ম্যানেজমেন্ট অব আইএস, ক্রিমিনাল জাস্টিস, বিজনেস এ্যাকাউন্টিং, এ্যানিমেশন, ডেটাবেজ, ওয়েব ডেভেলপমেন্ট ম্যানেজমেন্ট, নেটওয়ার্ক এ্যাডমিনিস্ট্রেশন, ই-বিজনেস, নার্সিং, হেলথ কেয়ার ম্যানেজমেন্ট।

> জোনস ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি। বিষয়- বিজনেস এ্যাডমিনিস্ট্রেশন ও কম্পিউটার ইনফরমেশন সিস্টেম।

> ওয়ালডেন ইউনিভার্সিটি। বিষয়- বিজনেস, এ্যাকাউন্টিং, ফিন্যান্স, এইচআর ম্যানেজমেন্ট, লিডারশিপ।

অনলাইন সুবিধাদানকারী বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট

> বোস্টন ইউনিভার্সিটি: িি.িনঁ.বফঁ

> ফ্লোরিডা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি: িি.িভরঁ.বফঁ

> ইউনিভার্সিটি অব লন্ডন: িি.িঁষবপ.ধপ.ঁশ

> স্ট্যানফোর্ড ইউনিভার্সিটি: িি.িংঃধহভড়ৎফ.বফঁ

> এজিএমএ কলেজ: িি.িধমসধপড়ষষবমব.পড়স

> ভিক্টোরিয়া ইউনিভার্সিটি: িি.িফরংঃধহপব.াঁরপ.পধ

> ওয়াশিংটন স্টেট ইউনিভার্সিটি: িি.িংিঁ.বফঁ

> জাকসনভিল ইউনিভার্সিটি: িি.িঔধপশংড়হারষষব.বফঁ

> ইউনিভার্সিটি অব স্ট্রেচক্লাইড অব লিভারপুল: িি.িরঃং.ংঃৎধঃয.ধপ.ঁশ

> ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি: িি.িড়হষরহব ফবমৎববংঃড়ফধু.পড়স

> অনলাইন কলেজ: িি.িড়হষরহব-পড়ষষবমব-পড়ঁৎংবং.হবঃ

> অনলাইন কলেজ কোর্সেস: িি.িড়হষরহব- পড়ষষবমব-পড়ঁৎংবং. রহভড়

> অনলাইনে বিএসসি কোর্স: িি.িড়হষরহব-নংপ.পড়স

> অনলাইনে এমএসসি কোর্স: িি.ি ঙহষরহব-সংপ.পড়স

> অনলাইনে এমবিএ: িি.িরব.বফঁ/ড়হষরহব গইঅ

> মাস্টার্স অব ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস: িি.িড়হষরহব-বফঁপধঃরড়হ-ফবমৎবব.পড়স

সুবিধা-অসুবিধা

অনলাইন শিক্ষার অনেক সুবিধা রয়েছে। বড় সুবিধা হলো কেউ নিজের সুবিধামতো সময়ে তার পড়ালেখার সময়টা নির্ধারণ করে নিতে পারবে। নিয়মিত শিক্ষার ক্ষেত্রে যেমন ক্লাসে উপস্থিত থাকতে হয়, ক্লাসে যেতে না পারলে লেকচার বাদ পড়ে যায়, কিন্তু এখানে সে রকম হওয়ার সুযোগ কম। আবার চাকরি করার সঙ্গে সঙ্গে নিজের চাকরি সম্পর্কিত কোন শিক্ষা অর্জন করতে চাইলে, এর চেয়ে ভাল কিছু হতে পারে না। ফলে চাকরি কিংবা পড়াশোনা কোনটিতেই সমস্যা হওয়ার সম্ভাবনা নেই। অনলাইনে শিক্ষার আরেকটি ভাল দিক হলো, এর মাধ্যমে সারাবিশ্বের অনেক দেশের শিক্ষকদের সঙ্গে শিক্ষার্থীদের যোগাযোগের মাধ্যমে প্রয়োজনীয় যে কোন সাহায্য নেয়া যায়, আলোচনা করা যায়, সেই সঙ্গে পড়াশোনায়ও সহায়তা পাওয়া যায়। অনলাইন শিক্ষার আরেকটি সুবিধা হলো কোর্স করা যায় পছন্দের বিষয়ে। অনলাইন পড়াশোনায় সুবিধার পাশাপাশি কিছু অসুবিধাও রয়েছে। কোন কোন প্রতিষ্ঠান অনলাইন শিক্ষার এই ডিগ্রীটাকে সাময়িক ডিগ্রীর মতো তেমন গুরুত্ব দিতে চায় না। ফলে তাদের কাজ পেতে কোথাও কোথাও সমস্যায় পড়তে হয়। অনলাইন শিক্ষার ক্ষেত্রে কিছু বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিগ্রী মানসম্পন্ন হয় না। তাই বিশ্ববিদ্যালয় নির্বাচনের ক্ষেত্রে সতর্ক থাকতে হবে।

খরচপাতি

অনলাইন শিক্ষার জন্য খরচের ব্যাপারে বেশ সুবিধা পাওয়া যায়। এখানে টিউশন ফি একটু বেশি। কিন্তু বিদেশে গিয়ে রেগুলার ডিগ্রী নিতে যে খরচ হয়, তার চেয়ে অনলাইনে শিক্ষার খরচ বেশ কম। বর্তমান সমসাময়িক শিক্ষার চেয়ে অনলাইন শিক্ষায় পড়াশোনার খরচ অনেক কম। বর্তমান শিক্ষার নোট, লেকচার, এ্যাসাইনমেন্ট পাওয়ার ক্ষেত্রে যে রকম অসুবিধায় পড়তে হয়, অনলাইনে এসব কোন সমস্যা নেই। কারণ অনলাইনে বসে আপনার মাউসের কয়েকটি ক্লিকের মাধ্যমেই প্রয়োজনীয় সব কিছু মাত্র কয়েক সেকেন্ডে চলে আসে আপনার হাতের মুঠোয়।

সঠিক অনলাইন শিক্ষার জন্য

অনেক শিক্ষার্থীই ভাল কোন বিশ্ববিদ্যালয় খুঁজে পাওয়া নিয়ে বেশ দুশ্চিন্তায় থাকেন। কারণ বর্তমানে অনলাইন প্রতারকের তো অভাব নেই। অনলাইন শিক্ষার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ধাপ হলো বিশ্ববিদ্যালয় নির্বাচন। ভাল বিশ্ববিদ্যালয় নির্বাচনের একটি উপায় হলো, বিশ্ববিদ্যালয় যে কোর্সগুলো অফার করছে, সেগুলোর সঙ্গে বর্তমান বিশ্বের খাপ খাওয়া এমন কোন কোর্স আছে কি-না তা দেখা। দ্রুত পরিবর্তনশীল প্রযুক্তির সঙ্গে কিভাবে এগিয়ে যাচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি, সেদিকেও নজর দেয়া উচিত। বর্তমান সময়ে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিনির্ভর এবং ব্যবসা-বাণিজ্য সম্পর্কিত কোর্সগুলোর চাহিদা সবচেয়ে বেশি। এসব কোর্স আপনার নির্বাচিত বিশ্ববিদ্যালয়ে আছে কি-না, সে খোঁজ নিন। যদি থাকে, তবে জেনে নিন তাদের সিলেবাস কি পরিমাণ আপডেটেড। অনলাইন শিক্ষার খরচ কম, তবে বিশ্ববিদ্যালয়ের টিউশন ফি একটু বেশি। কোন বিশ্ববিদ্যালয় যদি কম টিউশন ফি অফার করে থাকে তখন বুঝতে হবে শিক্ষার মান কেমন হবে। কোন্ বিশ্ববিদ্যালয়ে গ্রেড কেমন, তা আগেই জেনে নিন।

দেশে অনলাইনে শিক্ষা

বাংলাদেশে এখনও অনলাইন শিক্ষা তেমনভাবে শুরু হয়নি। তবে বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের যে দূরশিক্ষণ শিক্ষা কার্যক্রম রয়েছে, তাতে সীমিত পরিসরে ইন্টারনেটে কিছু প্রোগ্রাম চালু রয়েছে।

অনলাইন শিক্ষার বাজার

অনলাইন শিক্ষা বা ই-লার্নিংকে কেন্দ্র করে বর্তমানে বেশ বড় ধরনের বাজার সৃষ্টি হয়েছে। এই বাজারের পরিমাণ হবে ৪০ বিলিয়ন ইউরো। ইউরোপিয়ান ইউনিয়নে এই বাজারের মোট ২০ ভাগ রয়েছে। বিশ্বের অসংখ্য অনলাইন শিক্ষার্থীকে সাহায্য করার জন্য অনেক প্রতিষ্ঠান রয়েছে। এগুলোÑ নজেল, এনিহোয়ার, স্কিলসফট, অ্যাপিক, টাটা ইন্টারেকটিভ সিস্টেমস, লার্নকি, সোমানুর, ব্লুইড, লার্নিস্টেপস ডটকম। বিশ্বের অনলাইন শিক্ষাদানকারী দেশগুলোর মধ্যে আমেরিকা সবচেয়ে এগিয়ে।

এসএম নাজমুল হক ইমন

প্রকাশিত : ৩ মে ২০১৫

০৩/০৫/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: