কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

কলকাতা-চেন্নাই ফিরতি ম্যাচ আজ

প্রকাশিত : ৩০ এপ্রিল ২০১৫

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগে (আইপিএল) এক দিনের ব্যবধানেই আজ ফিরতি লড়াইয়ে মুখোমুখি হচ্ছে কলকাতা নাইটরাইডার্স ও চেন্নাই সুপার কিংস। মঙ্গলবার নিজেদের প্রথম দেখায় ২ রানের নাটকীয় জয় পায় চেন্নাই। ঘরের মাঠ ইডেন গার্ডেন্সে আজ তাই কলকাতার জন্য প্রতিশোধের ম্যাচ। তবে গৌতম গাম্ভীরের জন্য দুশ্চিন্তার বিষয় সুনিল নারাইনের বোলিং এ্যাকশন (জোরের ওপর করা অফব্রেক ডেলিভারি) নিয়ে ফের সন্দেহ পোষণ করেছেন আম্পায়ার। ভারতীয় ক্রিকেটে বোর্ডের (বিসিসিআই) তত্ত্বাবধানে পুনরায় পরীক্ষায় অংশ নিতে হবে ক্যারিবিয়ান তারকা স্পিনারকে। মঙ্গলবারের ম্যাচটি ছিল আসলেই চিত্তাকর্ষক। টি২০’র আকর্ষণ বলতে যা বোঝায় তার সবই ছিল চেন্নাই-কলকাতা ম্যাচে। কলাকাতা বোলারদের দারুণ বোলিংয়ের মুখে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৬ উইকেটে ১৩৪ রানের সাদামাটা ইনিংস গড়ে মহেন্দ্র সিং ধোনির চেন্নাই। এরপরও বোলিং-ফিল্ডিংয়ের অপরূপ প্রদর্শনীতে তুলে নেয় ২ রানের নাটকীয় জয়! ৩ উইকেট নিয়ে ম্যাচসেরা হন দলটির উইন্ডিজ রিক্রুটার ডোয়াইন ব্রাভো। জয়ের জন্য ব্রাভোর করা শেষ ওভারে কলকাতার প্রয়োজন ছিল ১৭ রান। কিন্তু প্রথম তিন বলে কোন রান নিতে ব্যর্থ হন রায়ান টেন ডয়েসচেট শেষ তিন বলে তুলে নেন যথাক্রমে ৬, ৪ ও ৪! ২ রানে হারে বলিউড বাদশাহ শহরুখ খানের মালিকানাধীন কলকাতা। ২৮ বলে ৩ চার ও ২ ছক্কায় অপরাজিত ৩৮ রান করেও হারের যন্ত্রণা নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয় দলটির ডাচ্ তারকাকে। চেন্নাইর জয়ের নায়ক ব্রাভোর বোলিং ফিগার ৩-০-২২-৩। স্পিনার রবিচন্দ্রন অশ্বিন ছিলেন আরও দুরন্ত ২-০-৫-২! কলকাতার হয়ে সর্বোচ্চ ৩৯ রান করেন ওপেনার রবিন উথাপ্পা। অধিনায়ক গৌতম গাম্ভীর ফেরেন শূন্য (০) হাতে। অধিনায়ক ধোনির কথায় ম্যাচে চিত্রটাই ফুটে ওঠে, ‘চিদম্বরম স্টেডিয়ামে ১৫০-৬০ রান হয়ত কিছুটা নিরাপদ, কিন্তু ১২৫-৩০ নয়। অল্প রানে জয় পেতে বোলারদের ভূমিকা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। ব্রাভো-অশ্বিন আসলেই দারুণ বোলিং করেছে। ফিল্ডিংও ভাল হয়েছে। সর্বোপরি ম্যাচটি ছিল চিত্তাকর্ষক। এখানে আমাদের অনেক শিখনীয় আছে। কারণ একদিন পর ইডেনে কলকাতার বিপক্ষে নামতে হবে। টপঅর্ডার ব্যাটসম্যানদের আরও দায়িত্বশীল হতে হবে।’ বলেন চেন্নাই সেনাপতি।

আছেন ব্রেন্ডন ম্যাককুলাম, ফাফ ডুপ্লেসিস, সুরেশ রায়না মতো তুখোর সব ব্যাটসম্যান। যারা কলকাতা ম্যাচে মোটেই সুবিধা করতে পারেননি। ঘুরিয়ে বললে নারাইনের অনুপস্থিেিত তারকাখচিত চেন্নাইকে রানের পাহাড়ে চড়তে দেননি পিযুষ চাওলা-আন্দ্রে রাসেলরা। সর্বোচ্চ ২৯ বলে অপরাজিত ২৯ রান আসে প্রোটিয়া ডুপ্লেসিসের ব্যাট থেকে। কলকাতার হয়ে চাওলা-রাসেল উভয়ে নেন ২ উইকেট।

প্রকাশিত : ৩০ এপ্রিল ২০১৫

৩০/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: