আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৭ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বুধবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

ভোটের মাঝপথে বিএনপির বর্জন দুঃখজনক

প্রকাশিত : ২৯ এপ্রিল ২০১৫
  • মার্কিন রাষ্ট্রদূত ও ব্রিটিশ হাইকমিশনারের প্রতিক্রিয়া

স্টাফ রিপোর্টার ॥ নানা অভিযোগ তুলে বিএনপি তিন সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন বর্জন করলেও দেশী-বিদেশী পর্যবেক্ষকরা বলেছেন, নির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছে। তেমন কোন বিশৃঙ্খলা দেখা যায়নি। ভোটার উপস্থিতি অত্যন্ত আশাব্যঞ্জক। আনুষ্ঠানিকভাবে দেশী-বিদেশী পর্যবেক্ষণ সংস্থাগুলো এখনও তাদের প্রতিক্রিয়া না জানালেও নির্বাচন চলাকালে মঙ্গলবার নিজেদের মতামত প্রকাশ করেছেন সংস্থাগুলোর কর্মকর্তারা। এদিকে নির্বাচনের মাঝপথে বিএনপির সরে দাঁড়ানোর ঘটনানাকে দুঃখজনক ও হতাশাজনক বলে অভিহিত করেছেন ব্রিটিশ হাইকমিশনার রবার্ট ডব্লিউ গিবসন ও মার্কিন রাষ্ট্রদূত ব্লুম বার্নিকাট। সকালে নির্বাচন কেন্দ্র পরিদর্শন করে সার্বিক পরিস্থিতিতে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন তারা। অনিয়মের অভিযোগগুলোর স্বচ্ছ ও নিরপেক্ষ তদন্ত হওয়া জরুরী বলে মনে করেন তাঁরা।

জানা গেছে, তিন সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ৭৬ জন বিদেশীসহ সাড়ে তিন হাজারের বেশি পর্যবেক্ষক ছিলেন। দেশীয় ১৭টি সংস্থার পক্ষ থেকে এই নির্বাচন পর্যবেক্ষণ করেছেন বলে নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গেছে। বিদেশী পর্যবেক্ষকদের মধ্যে ৬৩ জন হচ্ছে ঢাকার বিভিন্ন দূতাবাসের প্রতিনিধি। এর মধ্যে সর্বাধিক ২৫ জন পর্যবেক্ষক ছিল যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাসের। এ ছাড়া যুক্তরাজ্যের ১৬ জন, ইউরোপীয় ইউনিয়নের ছয় জন, কানাডিয়ান হাইকমিশনের পাঁচজন, জাপান দূতাবাসের দু’জন, সুইজারল্যান্ডের একজন, ফ্রান্সের এক জন, সুইডেনের দু’জন, ডেনমার্কের দু’জন, জার্মান দূতাবাসের দু’জন এবং ইউএনডিপির দু’জন। বিদেশী সংস্থার মধ্যে ছিল ডেমোক্রেসি ইন্টারন্যাশনালের চার জন, দ্য এশিয়া ফাউন্ডেশনের তিন জন, এনডিআই বাংলাদেশের এক জন, ওয়ার্ল্ড হিউম্যান রাইটস সার্ভিস কাউন্সিলের দু’জন এবং ইন্টারন্যাশনাল ফাউন্ডেশন ফর ইলেকট্রোরাল সিস্টেমসের এক জন। বিদেশী এসব পর্যবেক্ষকের সঙ্গে ১৪৯ জন দোভাষীও ছিল। দেশীয় প্রতিষ্ঠানের মধ্যে সোসাইটি ফর রুর‌্যাল বেসিক নিড, জাতীয় নির্বাচন পর্যবেক্ষণ পরিষদ- জানিপপ, ওয়েভ ফাউন্ডেশন, খান ফাউন্ডেশন, বাংলাদেশ মানবাধিকার সমন্বয় পরিষদ- বামাসপ, ইনসিটটিউট ফর এনভায়রনমেন্ট এ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট (আইইডি), ডেমোক্রেসি ওয়াচ, মানবিক সাহায্য সংস্থা, ম্যাস্-লাইন মিডিয়া সেন্টার (এএমসি), কোস্ট ট্রাস্ট, আইন সহায়তা কেন্দ্র ফাউন্ডেশন, আভা ডেভেলপমেন্ট সোসাইটি, মানবাধিকার ও সমাজ উন্নয়ন সংস্থা, হোমসেটড রিসোর্স ডেভেলপমেন্ট এ্যাসিসটেন্ট, বাংলাদেশ মানবাধিকার বাস্তবায়ন সংস্থা, বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশন এবং ফেমা। দিনভর ঢাকার বিভিন্ন কেন্দ্র পরিদর্শন করেছেন ব্রিটিশ হাইকমিশনার রবার্ট ডব্লিউ গিবসন। সকালে ঢাকা সিটি উত্তরের কেন্দ্র বনানী বিদ্যানিকেতন স্কুল কেন্দ্র পরিদর্শন করে ব্যাপক ভোটার উপস্থিতিতে সন্তোষ প্রকাশ করেন তিনি। এ সময় তিনি সাংবাদিকদের বলেন, এখন পর্যন্ত কেন বিশৃঙ্খলা নেই। প্রিসাইডিং অফিসার বলেছে কোন সমস্যা হয়নি। আরেক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, কারও কোন অভিযোগ থাকলে নির্বাচন কমিশন আছে, তারা বিষয়টি দেখবেন। প্রায় একই কথা বলেন ঢাকা দক্ষিণ সিটির আজিমপুর গার্লস স্কুল এ্যান্ড কলেজ কেন্দ্র পরিদর্শনের পরেও। এরপর দুপুরে ঢাকার ব্রিটিশ হাইকমিশন থেকে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিন সিটি করপোরেশন নির্বাচনের মাঝ পথে বিএনপির সরে দাঁড়ানোর ঘটনায় গভীর দুঃখ প্রকাশ করেছেন ব্রিটিশ হাই কমিশনা। একই সঙ্গে অনিয়মের সব অভিযোগ দ্রুত এবং নিরপেক্ষতার সঙ্গে তদন্ত হওয়া জরুরী বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি। গিবসন বলেন, আইনের প্রতি শ্রদ্ধা রেখেই সব রাজনৈতিক দলের উচিত মঙ্গলবারের ঘটনার প্রতিক্রিয়া দেখানো। সব ভোটারের গণতান্ত্রিক অধিকার হিসেবে শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট দেয়ার বিধান নিশ্চিত করা সব ধরনের রাজনৈতিক দল, নির্বাচন কমিশন (ইসি) এবং আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর দায়িত্ব।

বিএনপির নির্বাচন বর্জনের সিদ্ধান্তে ঢাকা এবং চট্টগ্রামে আগামী কয়েকদিন সংহিসতা বা জনসাধারণের জীবনযাত্রায় বিঘœ সৃষ্টিকারী কোন ঘটনা ঘটবে না বলেও আশাবাদ ব্যক্ত করেন গিবসন।

এদিকে ভোর কেন্দ্রে ব্যাপক ভোটার উপস্থিতিতে খুশি মন্তব্য করে বাংলাদেশে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত ব্লুম বার্নিকাট সহিংসতার খবরে হতাশা প্রকাশ করেছেন। মঙ্গলবার বনানী বিদ্যানিকেতন স্কুল কেন্দ্র পরিদর্শন করে তিনি এ অভিমত ব্যক্ত করেছেন। এ সময় বিএনপির নির্বাচন বর্জন সম্পর্কে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, এটি নির্বাচন কমিশন দেখবে। নির্বাচন বয়কটের ফলে সহিংসতা বাড়বে কিনা সে সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি আশা করি জনগণ সহিংসতার পথ অনুসরণ করবে না। এখানে গণতন্ত্র আছে এবং জনগণের উচিত হবে সেটির ব্যবহার করা। ঢাকা উত্তরের বনানী বিদ্যানিকেতন কেন্দ্র পরিদর্শন শেষে দুপুর ১২টার পর তিনি সাংবাদিকদের বলেন, অর্থপূর্ণ নির্বাচনের জন্য ভোটারদের ভোটের সুযোগ দিতে হবে। এরপর সন্ধ্যায় যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাসের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, বিভিন্ন ভোট কেন্দ্রে ভোট জালিয়াতি, ভয়-ভীতি প্রদর্শন এবং সহিংসতার যেসব ঘটনা ঘটেছে বলে প্রত্যক্ষদর্শীদের কাছ থেকে ব্যাপক ও বিশ্বাসযোগ্য প্রতিবেদন পাওয়া গেছে। বিএনপি সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন বয়কটের যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে তাতে আমরা হতাশ। যে সমস্ত অনিয়মের ঘটনা ঘটেছে সেগুলোর স্বচ্ছ ও নিরপেক্ষ তদন্ত হওয়া জরুরী। আইনের আওতায় থেকে কাজ করার জন্য এবং যে কোন ধরনের সহিংসতা এড়ানোর জন্য আমরা সকল পক্ষের প্রতি আহবান জানাই। রাজনৈতিক লক্ষ্য অর্জনের জন্য যে কোন ধরনের সহিংসতার আশ্রয় গ্রহণের আমরা তীব্র নিন্দা জানাই। এদিকে দুপুরে আজিমপুর গার্লস স্কুৃল এ্যান্ড কলেজে কেন্দ্র পরিদর্শন করেন আইন সহায়তা কেন্দ্রের পর্যক্ষেকরা। সংস্থার কর্মকর্তা ফারহানা আ্ক্তার জনকণ্ঠকে বলেন, আমরা আটটির মতো কেন্দ্র পরিদর্শন করেছি। কোথাও কোন অনিয়ম চোখে পরেনি। সবগুলোর অবস্থাই ভাল। মানুষ অত্যন্ত সুষ্ঠু পরিবেশে আইনে দাঁড়িয়ে ভোট দিচ্ছে। ভোটার উপস্থিতিতেও ভাল। বিভিন্ন কেন্দ্র পরির্শন করেন ডেমোক্রেসি ওয়াসের কর্মকর্তা জগলুল আবেদীন। দুপুরে তিনি বলছিলেন, আমি বেশ কয়েকটি কেন্দ্র পরিদর্শন করেছি। কোথাও কোন অনিয়ম দেখিনি। যে যার মতো ভোট দিয়েছে। নির্বাচন পর্যবেক্ষণকারী সংগঠন ফেমার পর্যবেক্ষক শাহজাহান সিদ্দিক সিদ্ধেশরী গার্লস কলেজ, ভিকারুন্নেসা গার্লস কলেজসহ দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের আওতাধীন বেশ কয়েকটি ভোট কেন্দ্র পর্যবেক্ষণ করেছেন। তিনি বলেন, ভোট সুষ্ঠুভাবেই হচ্ছে। তবে ভোট কেন্দ্রের ভেতরে মেয়র প্রার্থী সাঈদ খোকনের এজেন্ট ছাড়া আর কারও এজেন্ট দেখা যায়নি। ভোট শুরুর দিকে ভোটাদের উপস্থিতি অনেক বেশি থাকলেও ঘণ্টাখানেক পরেই তা কমে আসতে শুরু করে। তবে পরিস্থিতি ভাল। নির্বাচন পর্যবেক্ষণ করে দুপুরে জাতীয় নির্বাচন পর্যবেক্ষণ পরিষদ- জানিপপ প্রধান ড. নাজমুল আহসান কলিমুল্লাহ সন্তোষ প্রকাশ করেছেন। তিনিও ভোটার উপস্থিতিতে সন্তোষ প্রকাশ করেন। এদিকে চট্টগ্রামে নির্বাচন পর্যবেক্ষক সংস্থা ফেমার সদস্যরা দুপুরে বলছেন, চট্টগ্রামে অবাধ পরিবেশে সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ ভোটগ্রহণ চলছে। চট্টগ্রামে তিনটি দলে ভাগ হয়ে নির্বাচন পর্যবেক্ষণের কাজ করেছে ফেমা। ২০টি কেন্দ্র পরিদর্শনের পর ফেমার কর্মকর্তা নাজমুল আহসান রবিন সাংবাদিকদের জানান, ভোটগ্রহণ শান্তিপূর্ণভাবেই চলছে, তবে কোথাও কোথাও একটু ধীর গতি মনে হয়েছে। কোথায় ধীর গতি? জানতে চাইলে তিনি বলেন, নারী ভোটারদের বুথগুলোতেই এমনটা চোখে পড়েছে। তিনি কয়েকজন কাউন্সিলর প্রার্থী, পোলিং এজেন্ট, প্রিসাইডিং অফিসারের সঙ্গে কথা বলে কোথাও কোন অভিযোগ পাননি।

প্রকাশিত : ২৯ এপ্রিল ২০১৫

২৯/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: