কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৩ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

রুপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎ প্রকল্প এলাকায় চাকুরি দেওয়ার নামে প্রতারকচক্র ২০ ল

প্রকাশিত : ২৮ এপ্রিল ২০১৫, ১২:২১ পি. এম.

স্টাফ রির্পোটার, ঈশ্বরদী ॥ নির্মানাধীন রুপপুর পামানবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পের সুনামক্ষুন্ন করার জন্য চাকুরি দেওয়ার নামে গড়ে ওঠা একটি প্রতারক চক্র ৯৮ জন শিক্ষিত বেকার যুবকের নিকট ১৫ থেকে ২৫ হাজার টাকা করে প্রায় ২০ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। এতে এ প্রকল্পের সুনামক্ষুন্যের আশংকা দেখা দিয়েছে। টাকা দেওয়া চাকুরি প্রার্থীরা চাকুরি এবং প্রতারক চক্রের সদস্যদের না পেয়ে হতাশাগ্রস্থ হয়ে টাকা ফেরত পাওয়ার আশায় নানা জায়গায় ধরনা দিচ্ছেন। প্রতারিত চাকুরি প্রার্থীদের দেওয়া অভিযোগ সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

সূত্র মতে, স্থানীয় এমপি ও ভূমিমন্ত্রী বীরমুক্তিযোদ্ধা শামসুর রহমান শরীফের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় বর্তমান উন্নয়নমুখি সরকার দেশের বিদ্যুৎ চাহিদা পূরনের লক্ষে ২ হাজার মেগাওয়াট ক্ষমতাসম্পন্ন রুপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পের নির্মান কাজ শুরু করে। নিয়ম মাফিক বিভিন্ন ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান রাশিয়ানদের অধীনে কাজ শুরু করেছে। নির্মান কাজ সুন্দর ভাবেই এগিয়ে যাচ্ছে। এ সুযোগে স্থানীয় কয়েকজন যুবকের নেতৃত্বে গড়ে উঠে চাকুরি প্রদানকারী প্রতারকচক্র। এই চক্রের সদস্যরা প্রকল্প এলাকার নিকটস্থ রুপপুর পাকার মোড়ের চায়ের দোকানে ও প্রকল্প এলাকা মাঠের খোলা স্থানে গাছতলায় অফিস খুলে বসে। চেয়ার-টেবিল ও ঘরবিহীন ভুয়া অফিসে প্রতিদিন হাজিরা খাতা দেখিয়ে পিয়ারপুরের তমাল, সেলিম, রুবেল, সাঁড়াগোপলপুর এলাকার আলমগীর হোসেন কবীর, সানাউল ইসলামসহ ৯৮ জন বেকার শিক্ষিত যুবকের নিকট থেকে ১৫ থেকে ২৫ হাজার টাকা করে প্রায় ২০ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়ে উধাও হয়েছে। চাকুরি প্রার্থীরা টাকা দেওয়ার পরও চাকুরি নাপেয়ে হতাশাগ্রস্থ হয়ে ঐসব প্রতারক চক্রের সদস্যদের খুঁজে বেড়াচ্ছে। কিন্তু তাদের না পেয়ে টাকা উদ্ধারের জন্য প্রার্থীরা না স্থানে ধরনা দিচ্ছে। এদিকে এ প্রতারকচক্রের প্রতারনার খবর জানতে পেরে এলাকার উন্নয়নকামী মানুষের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। তারা প্রতারকচক্রের বিরুদ্ধে সুষ্ঠভাবে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনের দাবী করেছেন।

প্রকাশিত : ২৮ এপ্রিল ২০১৫, ১২:২১ পি. এম.

২৮/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: