মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

মৃতের সংখ্যা ৩৮শ’ ছাড়াল

প্রকাশিত : ২৮ এপ্রিল ২০১৫
  • নেপালে ভূমিকম্প

জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ নেপালে শনিবার আঘাত হানা স্মরণকালের ভয়াবহ ভূমিকম্পে নিহতের সংখ্যা সোমবার সন্ধ্যা পর্যন্ত ৩ হাজার ৮শ’ ছাড়িয়েছে। আহতের সংখ্যা ৫ হাজারের বেশি। ধ্বংসস্তূপের নিচে এখনও অনেকে আটকা পড়ে আছেন বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। খবর বিবিসি, টাইমস অব ইন্ডিয়া ও ওয়েবসাইটের।

নেপালে শনিবারের ভূমিকম্পে নিহতের সংখ্যা ৩ হাজার ৮শ’ ছাড়িয়েছে। আশঙ্কা করা হচ্ছে মৃতের সংখ্যা আরও বাড়বে। উদ্ধারকারীরা এখনও দুর্গম পার্বত্য এলাকাগুলোতে পৌঁছানোর চেষ্টা করে যাচ্ছেন। নেপালের সরকার সাহায্য হিসেবে আরও তাঁবু এবং খাবার পানি দেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। এভারেস্ট এলাকায় তুষারধসের শিকার পর্বতারোহীদেরকে এখন হেলিকপ্টার দিয়ে উদ্ধারের চেষ্টা চলছে। ফের ভূমিকম্পের আতঙ্কে তারা নিজেদের ক্ষতিগ্রস্তরা বাড়ি ফিরতে পারছেন না বলে বিবিসির প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে। হিমালয়ের কোলে ২ কোটি ৭০ লাখ মানুষের এ দেশে রাজধানীর বাইরে প্রত্যন্ত এলাকার পরিস্থিতি কতটা ভয়াবহ সে চিত্র এখনও স্পষ্ট নয়। বিদ্যুত ও যোগাযোগ ব্যবস্থা বিপর্যস্ত হওয়ায় ঠিকমতো খবর পাওয়া যাচ্ছে না। ধ্বংসাবশেষ সরিয়ে কিছু এলাকায় পৌঁছাতে উদ্ধারকর্মীদের সময় লাগছে। নেপালের আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাষ মতে, আর কদিনের মধ্যে দেশটিতে বর্ষা মৌসুম শুরু হচ্ছে। ভারি বর্ষণ শুরু উদ্ধার তৎপরতা স্বাভাবিকভাবেই ব্যহত হবে, বিষয়টি নিয়ে উদ্ধারকর্মীরা উদ্বিগ্ন।

এডিবির সহায়তা ॥ ভূমিকম্পে বিধ্বস্ত নেপালে ত্রাণ ও পুনর্বাসনের জন্য ১ হাজার ৬২৪ কোটি টাকা সহায়তা দেবে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক (এডিবি)। তাৎক্ষণিকভাবে ত্রাণ হিসেবে ২৪ কোটি ও পরবর্তীতে আরও ১৬শ’ কোটি টাকা দেবে এডিবি। সোমবার এডিবির ঢাকা কার্যালয়ের কর্মকর্তা গোবিন্দবারের পাঠানো এক বার্তায় এ তথ্য জানানো হয়েছে। মানবিক চাহিদা পূরণের এশিয়া প্যাসিফিক ডিজাস্টার রেসপন্স ফান্ড থেকে অবিলম্বে এ টাকা দেয়া হবে।

সিলেটে স্বদেশীদের সাহায্যে নেপালী শিক্ষার্থীরা ॥ স্টাফ রিপোর্টার সিলেট অফিস থেকে জানান, ভয়াবহ ভূমিকম্পে নিজ দেশের ক্ষতিগ্রস্ত অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়াতে সিলেটের রাস্তায় নেমেছেন সিলেটে বসবাসরত নেপালী শিক্ষার্থীরা। সোমবার নগরীর বিভিন্ন বিপণীবিতান ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে তারা সাহায্য তুলেছেন। নেপালে ভূমিকম্পে ক্ষতিগ্রস্তদের সাহায্যার্থে নগরীর জিন্দাবাজার ও বন্দরবাজার এলাকায় ‘সাহায্যের বাক্স’ নিয়ে রাস্তায় নামেন রাগীব রাবেয়া মেডিক্যাল কলেজে ও লিডিং ইউনিভার্সিটিতে অধ্যয়নরত নেপালী শিক্ষার্থীরা। সিলেটের ব্যবসায়ী ও সাধারণ মানুষের কাছে তারা সাহায্য চান। সাহায্য সংগ্রহকারী শিক্ষার্থীরা জানিয়েছেন, তারা নগরীতে দুটি দলে ভাগ হয়ে সাহায্য সংগ্রহ করছেন। সংগৃহীত টাকা তারা নেপালে ক্ষতিগ্রস্ত লোকদের কাছে পাঠিয়ে দেবেন।

এনাম মেডিক্যালে নেপালী শিক্ষার্থীদের মধ্যে স্বজন হারানো আতঙ্ক ॥ নিজস্ব সংবাদদাতা, সাভার থেকে জানান, নেপালে প্রলয়ঙ্কারী ভূমিকম্পে ব্যাপক ধবংসযজ্ঞ ও প্রাণহানীর ঘটনায় উদ্বিগ্ন ও আতঙ্কিত হয়ে পড়েছে এনাম মেডিক্যালে অধ্যায়নরত নেপালী শিক্ষার্থীরা। চোখে-মুখে তাদের চরম দুশ্চিন্তা আর উদ্বেগের ছাপ। পিতা-মাতাসহ অন্যান্য আত্মীয়দের সঙ্গে যোগাযোগ করতে না পেরে ঘটনার দিন থেকেই ভেঙ্গে পড়েছে তারা। অনেকে পরিবারের সদস্যদের কোন খোঁজ না পেয়ে সড়ক পথেই রওনা দিয়েছে নেপালে নিজ গন্তব্যে।

সাভার এনাম মেডিক্যাল কলেজ এ্যান্ড হাসপাতালের বিভিন্ন ব্যাচে অধ্যয়ন করছে ১১৭ জন নেপালী শিক্ষার্থী। এদের মধ্যে অধিকাংশই ছাত্রী- যাদের প্রায় সকলেই ভূমিকম্প আক্রান্ত এলাকার অধিবাসী।

প্রকাশিত : ২৮ এপ্রিল ২০১৫

২৮/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: