আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৭ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বুধবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

‘রিলিফ গুডস ক্যারিয়ার’ ঘোষণা দিয়ে নেপাল যাচ্ছে বিমান

প্রকাশিত : ২৭ এপ্রিল ২০১৫
  • মেডিক্যাল টিম প্রস্তুত

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বাংলাদেশ বিমান এয়ারলাইন্সের সব ফ্লাইট রিলিফ গুডস ক্যারিয়ার হিসেবে ঘোষণা দিয়ে নেপাল যাচ্ছে। ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের স্বাভাবিক অবস্থা ফিরে না আশা পর্যন্ত এভাবেই জরুরী ঘোষণায় চলবে বিমানের ফ্লাইট। রবিবার দুপুরে ত্রিভুবন বিমানবন্দরে বিমানের একটি যাত্রীবাহী ফ্লাইট সেখানে নামতে না পেরে ঢাকায় ফিরে আসে।

এদিকে শনিবারের ভূমিকম্পে বিমানবন্দরটির তেমন কোন ক্ষতি না হলেও দেশী-বিদেশী এয়ারলাইন্সগুলোর বিভিন্ন ফ্লাইটের ব্যাপক ওঠা-নামার দরুন রানওয়ে এবং বে-এরিয়ায় ঠাঁই পাওয়া ছিল দুষ্কর। বিশেষ করে ত্রাণ নিয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, জাতিসংঘের টিম ও ভারতীয় বিমান বাহিনীসহ অন্যান্য দেশের বিমানগুলো দিনভর ত্রিভুবন বিমানবন্দরের ওঠা-নামা করে। এসব বিমানগুলোকে রানওয়ের পাশে বে-তে রেখেই ত্রাণসামগ্রী সরানোর কাজ চলে। এতে ছোট্ট এই বিমানবন্দরটির বে-এরিয়া বিভিন্ন দেশের বাণিজ্যিক ও ত্রাণ বিমানে জট লেগে যায়। এ কারণে রবিবার দুপুরে ওই বিমানবন্দরের

বে-তে অবতরণ করতে না পেরে ফিরে আসে বাংলাদেশ বিমানের একটি যাত্রীবাহী প্লেন। কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন বিমানবন্দরের বে’তে (প্লেন রাখার জায়গা) স্থান না পাওয়ায় অবতরণ না করেই ফিরে আসে বিজি ৭০১ যাত্রীবাহী প্লেনটি। রবিবার বেলা আড়াইটায় হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ফিরে আসে প্লেনটি। এর আগে বেলা সোয়া এগারোটার দিকে ত্রিভুবনের উদ্দেশে ছেড়ে যায় প্লেনটি।

বাংলাদেশ বিমান এয়ারলাইন্সের জেনারেল ম্যানেজার খান মোশাররফ হোসেন জনকণ্ঠকে বলেন, বিকেল সাড়ে পাঁচটায় একটি ৭৩৭ উড়োজাহাজ ১০৫ যাত্রী নিয়ে রিলিফ গুডস ক্যারিয়ার হিসেবে নেপাল যায়। মোট কথা ত্রাণবাহী ফ্লাইট ঘোষণা দিয়েই ঢাকা ত্যাগ করে সেটি। রাত পৌনে নয়টায় সেটি ঢাকায় ফিরে আসার সিডিউল রয়েছে।

এদিকে ভূমিকম্প বিধ্বস্ত নেপালে উদ্ধার কাজে অংশগ্রহণসহ চিকিৎসা ও মানবিক সহায়তা দিতে ত্রাণ নিয়ে কাঠমান্ডু পৌঁছেছে বাংলাদেশের ৩৪ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল।

প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব এ কে এম শামীম চৌধুরী জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে বিমানবাহিনীর একটি সি ১৩০ পরিবহন বিমান রবিবার দশ টন ত্রাণসামগ্রী নিয়ে নেপালে পৌঁছায়। ত্রাণসামগ্রীর মধ্যে জরুরী ওষুধ, তাঁবু, বিস্কুটসহ টিনজাত শুকনো খাবার, পানি ও কম্বল রয়েছে। সেনাবাহিনীর ছয়টি চিকিৎসা দল ও বিমান বাহিনীর ক্রুরা রয়েছেন এই প্রতিনিধি দলে।

বিমান বাহিনীর ওই ফ্লাইটেই বাংলাদেশ অনুর্ধ্ব ১৪ বালিকা ফুটবল দল রাত নয়টায় ঢাকায় ফিরে আসে বলে জনকণ্ঠকে জানিয়েছেন, আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদফতরের সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ রেজা-উল-করিম।

সরকারী মেডিক্যাল টিম যাচ্ছে ॥ এদিকে ভূমিকম্পে আহতদের সহায়তা দিতে বাংলাদেশের একটি সরকারী মেডিক্যাল টিম নেপালে যাবে। স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিমের নির্দেশে দু’-একদিনের মধ্যে মেডিক্যাল টিমের ত্রিশ সদস্য ঢাকা ত্যাগ করবেন। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানায়, অর্থোপেডিক, নিউরোসায়েন্স বিশেষজ্ঞসহ অন্যান্য বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ও নার্সদের সমন্বয়ে ৩০ জনের একটি তালিকা জরুরীভিত্তিতে প্রস্তুত করার জন্য স্বাস্থ্যমন্ত্রী রবিবার সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দিয়েছেন। ইতোমধ্যে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ও স্বাস্থ্য অধিদফতরের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা এই লক্ষ্যে কাজ শুরু করে দিয়েছেন।

এই মেডিক্যাল টিমের সঙ্গে প্রয়োজনীয় ওষুধ, স্যালাইন, ব্যথানাশক ওষুধ, প্লাস্টার ও ড্রেসিং সামগ্রী প্রেরণ করা হবে। এদিকে নেপালে শনিবার ভূমিকম্পে নিহতদের পরিবারের প্রতি স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম আন্তরিক সমবেদনা জানিয়েছেন। তিনি আহতদের দ্রুত রোগমুক্তি ও নেপালের জনগণ যেন দ্রুত তাদের ক্ষয়ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে পারে সেই জন্য মহান আল্লাহতালার কাছে দোয়া কামনা করেন।

প্রকাশিত : ২৭ এপ্রিল ২০১৫

২৭/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: