কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

মুখোমুখি বার্সা-বেয়ার্ন, রিয়াল-জুভেন্টাস

প্রকাশিত : ২৫ এপ্রিল ২০১৫
  • উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লীগ ফুটবলের সেমিফাইনালের ড্র অনুষ্ঠিত, কোচ গার্ডিওলাই কাতালানদের কাঁটা!

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ অদ্ভুত সাদৃশ্যই বটে। পেপ গার্ডিওলা ও কার্লো আনচেলত্তি সাবেক ক্লাবের বিরুদ্ধে ডাগআউটে দাঁড়াতে যাচ্ছেন। শুক্রবার উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লীগ ফুটবলের সেমিফাইনালের ড্র হওয়ার পর বিষয়টি নিশ্চিত হয়েছে।

ড্রতে ফাইনালের ওঠার লড়াইয়ে সেমিফাইনালে মুখোমুখি হবে বার্সিলোনা-বেয়ার্ন মিউনিখ ও জুভেন্টাস-রিয়াল মাদ্রিদ। আগামী ৫ ও ৬ মে সেমিফাইনালের প্রথম লেগের খেলা হবে। এরপর দ্বিতীয় লেগের ম্যাচ হবে ১২ ও ১৩ মে। ফাইনাল হবে আগামী ৬ জুন জার্মানির বার্লিনে। ড্রতে বেয়ার্ন-বার্সার মুখোমুখি নিশ্চিত হওয়ার পর থেকে সংবাদমাধ্যমের আলোচনায় উঠে এসেছেন কোচ পেপ গার্ডিওলা। এর কারণ ২০০৮-২০১২ সাল পর্যন্ত বার্সিলোনার হয়ে রেকর্ড ১৪ শিরোপা জয় করেন তিনি। কোচ হিসেবে ছয় মৌসুমের প্রতিবারই নিজের দলকে চ্যাম্পিয়ন্স লীগের সেমিফাইনালে তুলেছেন গার্ডিওলা। এর মধ্যে চারবার বার্সিলোনাকে আর দুইবার বেয়ার্নকে। শুধু গার্ডিওলাই নন, রিয়ালের কোচ কার্লো আনচেলত্তিও পুরনো দলের বিরুদ্ধে ডাগআউটে নামতে যাচ্ছেন। কেননা ১৯৯৯-২০০১ সাল পর্যন্ত টুরিনের ক্লাব জুভেন্টাসের কোচ ছিলেন তিনি। যে কারণে বলা হচ্ছে, এবার সেমিতে বার্সা ও জুভেন্টাসের কাঁটা গার্ডিওলা না আনচেলত্তি।

প্যারিস সেইন্ট-জার্মেইনকে সহজেই হারিয়ে সেমিফাইনালে উঠে এসেছে বার্সা। ২০১২-১৩ মৌসুমের চ্যাম্পিয়ন বেয়ার্ন প্রথম লেগে পোর্তোর মাঠে ৩-১ গোলে হেরে যাওয়ার বাদ পড়ার শঙ্কায় পড়েছিল। কিন্তু ফিরতি লেগে ৬-১ গোলে জিতে স্বরূপে ফিরেছে বাভারিয়ানরা। রিয়াল ও জুভেন্টাস কঠিন লড়াই করে সেমিফাইনালে উঠেছে। দুই লেগের লড়াইয়ে রিয়াল তাদের নগর প্রতিদ্বন্দ্বী এ্যাটলেটিকোকে হারায়। জুভেন্টাসও ঘাম ঝরিয়ে হারায় ফ্রান্সের মোনাকোকে। ২০০৩ সালের পর এই প্রথম ইউরোপ সেরার লড়াইয়ের শেষ চারে উঠেছে দুইবারের চ্যাম্পিয়ন জুভেন্টাস। ১৯৯৫-৯৬ মৌসুমে শেষবার শিরোপা জিতেছিল সিরি এ’র হ্যাটট্রিক চ্যাম্পিয়নরা।

১৯৯২ সালে বার্সার খেলোয়াড় হিসেবে ইউরোপিয়ান কাপ জেতা গার্ডিওলা ২০০৯ ও ২০১১ সালে কোচ হিসেবে দুবার চ্যাম্পিয়ন্স লীগ জিতেছেন। চার বছরের সোনালি সময়ে বার্সাকে ১৪ শিরোপা এনে দিয়েছিলেন, যার মধ্যে আছে এক বছরে ছয় শিরোপা জয়ের অনন্য রেকর্ড। কিন্তু ২০১৩ সালে বেয়ার্নের কাছে সেমিতে গোলবন্যায় ভেসেছিল গার্ডিওলার বার্সা। দুই লেগ মিলিয়ে ৭-০ গোলে জিতেছিল বেয়ার্ন। শেষ পর্যন্ত চ্যাম্পিয়নও হয়েছিল বাভারিয়ানরা। পরের বছর জার্মান ক্লাবটির দায়িত্ব নেন গার্ডিওলা। সেই গার্ডিওলাই এখন বার্সার পঞ্চম ইউরোপ সেরার ট্রফি জয়ের স্বপ্ন পূরণের পথে বাধা। ড্র’র পর বেয়ার্নের ক্রীড়া পরিচালক ম্যাথিউস সামার বলেছেন, কেবল ফুটবলেই এ রকম নাটকীয় গল্প লেখা হয়। ড্রতে বার্সাকে পেয়েছি শোনার পর পেপ বলেছে, ‘বেশ, চলো দেখা যাক! ডাগআউটে তার পাশেই থাকবেন সাবেক সতীর্থ লুইস এনরিকে। তিনি বলেন, এটা হবে বিশেষ একটা লড়াই। কারণ পেপ অন্যপাশে থাকবে। জুভেন্টাসের চেয়ে রিয়ালের বড় প্রতিপক্ষ ইতিহাস! কেননা চ্যাম্পিয়ন্স লীগের ইতিহাসে কোন দলের টানা দুইবার শিরোপা জয়ের দৃষ্টান্ত নেই।

প্রকাশিত : ২৫ এপ্রিল ২০১৫

২৫/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: