কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৫ ডিসেম্বর ২০১৬, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

১ম জাতীয় জীববিজ্ঞান অলিম্পিয়াড

প্রকাশিত : ২৪ এপ্রিল ২০১৫
  • আরিফুর সবুজ

ক্যান্সারের প্রতিষেধক আবিষ্কার করা কি খুব কঠিন? সিজোফ্রেনিয়া হলে আত্মহত্যার প্রবণতা বাড়ে কেন? জেনেটিকাল পরিবর্তন করে যদি উন্নত জাত তৈরি করা যায়, তবে মানুষের দেহে ক্লোরোফিল স্থাপন কেন সম্ভব নয়, খুদে শিক্ষার্থীদের এমন হাজারো প্রশ্ন আর মজার মজার উত্তরে জমে উঠেছিল ‘প্রথম জাতীয় জীববিজ্ঞান উৎসব’। এ উৎসবে অংশগ্রহণ করেন দেশের প্রথিতযশা জীববিজ্ঞানীসহ বিভিন্ন স্কুল-কলেজের ছয় শতাধিক শিক্ষার্থী। সম্প্রতি রাজধানীর শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে আয়োজন করা হয় জাতীয় জীববিজ্ঞান উৎসবের। ‘জীবনের আমন্ত্রণে এসো মিলি প্রাণের উৎসবে’ এই সেøাগানকে সামনে রেখে বাংলাদেশ জীববিজ্ঞান অলিম্পিয়াড কমিটি এ উৎসবের আয়োজন করে। শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভোর থেকেই দেশের বিভিন্ন প্রান্তের খুদে জীববিজ্ঞানপ্রেমী শিক্ষার্থীরা আসতে শুরু করে। এর পর মজার নানা প্রশ্ন নিয়ে শুরু হয় ৩০ মিনিটের পরীক্ষা। জুনিয়র, সেকেন্ডারি ও হায়ার সেকেন্ডারি এ তিনটি বিভাগে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। পরীক্ষা শেষে বেলা সাড়ে ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের অডিটোরিয়ামে শুরু হয় শিক্ষার্থীদের নিয়ে মজার প্রশ্নোত্তরপর্ব। প্রশ্নোত্তরপর্বে শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন উৎসবে উপস্থিত জীববিজ্ঞানীরা। জীববিজ্ঞান উৎসবে তিনটি বিভাগে ৫৭ জন বিজয়ী হয়েছে। চ্যাম্পিয়নদের চ্যাম্পিয়ন হয়েছে ঢাকার সানিডেল স্কুলের শৈতী প্রাবন্তী হালদার। পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর শাদাত উল্লা। বিজয়ী শিক্ষার্থীদের পুরস্কার হিসেবে দেয়া হয় মেডেল, সনদ ও বই। ডেনমার্কের আর্হাস শহরে আন্তর্জাতিক জীববিজ্ঞান অলিম্পিয়াডে বাংলাদেশ থেকে চার সদস্যের প্রতিনিধি দল নির্বাচন করতে বাংলাদেশ জীববিজ্ঞান অলিম্পিয়াড কমিটি এ আয়োজন করে। ৫৪টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রায় ৬০০ শিক্ষার্থী এতে অংশ নেয়। প্রশিক্ষণের মাধ্যমে শ্রেষ্ঠ চারজনকে আন্তর্জাতিক জীববিজ্ঞান অলিম্পিয়াডে পাঠানো হবে।

বাংলাদেশ জীববিজ্ঞান অলিম্পিয়াড কমিটি শিক্ষার্থীদের মাঝে জীববিজ্ঞান বিষয়টিকে আরও জনপ্রিয় করার লক্ষ্যে ২০১২ সাল থেকে ধারাবাহিকভাবে বাংলাদেশের বিভিন্ন আঞ্চলিক ভেন্যুতে জীববিজ্ঞান উৎসবের আয়োজন করে আসছে। তবে এবারই প্রথম জাতীয়ভাবে এ উৎসবের আয়োজন করা হয়। আর এ আয়োজন প্রতিবছর অব্যাহত থাকবে।

সবাই জীববিজ্ঞান নিয়ে চিন্তা করছে, জীববিজ্ঞান নিয়ে স্বপ্ন দেখছে আর বাংলাদেশ তথা পৃথিবীটাকে বদলে দেয়ার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করছে। বিজ্ঞান বিষয়ে শিক্ষার্থীদের আগ্রহ বাড়ানোই তাদের লক্ষ্য। গাজীপুর, ফরিদপুর, রাজশাহীসহ বিক্ষিপ্তভাবে জীববিজ্ঞানের অলিম্পিয়াড হলেও জাতীয় পর্যায়ে এবারই প্রথম। উৎসব বলা হলেও প্রকৃতপক্ষে এ যেন বিজ্ঞান আন্দোলন।

প্রকাশিত : ২৪ এপ্রিল ২০১৫

২৪/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: