আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৬ ডিসেম্বর ২০১৬, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

ফেরত পাঠানো হবে দেড় লাখ

প্রকাশিত : ২৪ এপ্রিল ২০১৫
  • অভিবাসী বিষয়ে ইউরোপীয় ইউনিয়নের সিদ্ধান্ত ॥ পুনর্বাসিত হবে মাত্র পাঁচ হাজার

ভধ্যসাগর পার হয়ে ইউরোপে চলে যাওয়া বেশির ভাগ অভিবাসীকেই ফেরত পাঠানো হবে। ব্রাসেলসে বৃহস্পতিবারের শীর্ষ বৈঠকে ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) নেতারা ওই মতৈক্যে পৌঁছাবেন বলে জানা যায়। বৈঠকের গোপনীয় খসড়া বিবৃতিতে দেখা যায় যে, জরুরী সঙ্কট মোকাবেলার প্রস্তাবের আওতায় মাত্র ৫,০০০ অভিবাসীকে ইউরোপে নতুন করে বসতি স্থাপন করতে দেয়া হবে এবং অন্তত ১ লাখ ৫০ হাজার লোককে তাদের নিজ নিজ দেশে ফেরত পাঠানো হবে। খবর গার্ডিয়ান অনলাইনের।

যারা ওই সমুদ্র যাত্রার মধ্যে টিকে থেকে ইতালিতে পৌঁছেছে, তাদের বেশির ভাগকে এক নতুন দ্রুত প্রত্যাবর্তন কর্মসূচীর আওতায় অনিয়মিত অভিবাসী হিসেবে ফেরত পাঠানো হবে। গত বছর ১ লাখ ৫০ হাজার লোক ইতালিতে পৌঁছায়। ইইউর সীমান্ত সংস্থা ফ্রন্টেক্স ওই কর্মসূচীর সমন্বয় সাধন করে। চলতি বছর এ পর্যন্ত নৌকায় করে ৩৬ হাজারেরও বেশি লোক ইতালি, মাল্টা ও গ্রীসে পৌঁছায়। ওই খসড়ার একটি অনুলিপি গার্ডিয়ানের হাতে রয়েছে।

খসড়ার সিদ্ধান্তগুলো থেকে এ আভাসও পাওয়া যায় যে, মানবিক বিপর্যয় উত্তরণের চেষ্টায় ভূমধ্যসাগরে তল্লাশি ও উদ্ধার তৎপরতা বাড়ানোর আশা ভঙ্গ হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে, যদিও এ নিয়ে ক্রমবর্ধমান চাপ রয়েছে। বিবৃতিটিতে চলমান সীমান্ত নজরদারি তৎপরতা অপারেশন ট্রাইটন ও অপারেশন পসেইডনের জন্য ২০১৫ ও ২০১৬ সালে অর্থ বরাদ্দ দ্বিগুণ এবং সম্পদকে শক্তিশালী করার সিদ্ধান্তকে অনুমোদন করা হয়। ইইউর পররাষ্ট্র ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রীরা সোমবার ওই সিদ্ধান্ত নেন। সীমান্ত নজরদারি তৎপরতার আওতায় ইতালির উপকূলের ৩০ মাইলের ভেতর টহল দেয়া হয়। ইউরোপীয় কাউন্সিলের সিদ্ধান্তে বলা হয়, ওই পদক্ষেপ ফ্রন্টেক্সের ম্যান্ডেটের আওতায় তল্লাশি ও উদ্ধারের সম্ভাবনা বাড়াবে বলে প্রত্যাশা করা যায়। ফ্রন্টেক্সের প্রধান বুধবার বলেন যে, প্রধানত তল্লাশি ও উদ্ধারের লক্ষ্যেই ট্রাইটন অপারেশন চালানো উচিত নয়।

এর পরিবর্তে ইইউ নেতারা মানব পাচারকারীদের হাতে ব্যবহৃত হওয়ার আগে নৌযানগুলোকে চিহ্নিত, আটক ও ধ্বংস করার পরিকল্পিত চেষ্টা চালানোর অবিলম্বে প্রস্তুতি নিতে একমত হবেন বলে মনে হয়। আন্তর্জাতিক আইনের আওতার ভেতর যৌথ ইইউর সামরিক তৎপরতা চালানো হবে। বিবৃতিতে ওই সঙ্কটকে এক বেদনাদায়ক ঘটনা বলে বর্ণনা করা হয়। এতে বলা হয়, ইইউ সমুদ্রে আরও প্রাণহানি ঠেকাতে এবং মানবিক বিপর্যয়ের মূল কারণগুলো দূর করতে যথাসাধ্য সব প্রচেষ্টা চালাবে। শরণার্থীরা যে সব দেশে জন্মগ্রহণ করেছিল এবং যে সব দেশের মধ্য দিয়ে এসেছিল, সেসব দেশের সঙ্গেও সহযোগিতা করা হবে। এতে বলা হয়, আমাদের তাৎক্ষণিক লক্ষ্য হলো সমুদ্রে আরও লোকের মৃত্যু রোধ করা। সে জন্য আমরা সমুদ্রে আমাদের উপস্থিতি বাড়ানো, মানব পাচারকারীদের দমন, অবৈধ অভিবাসী আগমন ঠেকানো এবং অভ্যন্তরীণ সংহতি আরও শক্তিশালী করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এতে আরও বলা হয়, ইইউ নেতারা লিবিয়াতে সরকারের কর্তৃত্ব পুনর্প্রতিষ্ঠা করা এবং সিরিয়ার পরিস্থিতির মতো যে সব কারণে লোকজন দেশত্যাগে বাধ্য হচ্ছে, সে সব কারণ দূর করার সব চেষ্টা সমর্থন করতে চান। ইইউ নেতারা সম্মুখ সারির সদস্য রাষ্ট্র ইতালি, মাল্টা ও গ্রীসকে ক্রমবর্ধমান জরুরী সাহায্য দেয়ারও প্রতিশ্রুতি দেন।

সম্ভাব্য অভিবাসীরা যাতে ভূমধ্যসাগরের তীরে না আসতে পারে, সে জন্য নিজ নিজ স্থল সীমান্ত পাহারা ও নিয়ন্ত্রণ করতে তিউনিসিয়া, মিসর, সুদান, মালি ও নাইজারকে সাহায্য দান বাড়ানো হবে। সোমবার ইইউ মন্ত্রীরা ও ইউরোপীয় কমিশন ট্রাইটন মিশন জোরদার করতে, এর তহবিল ও সম্পদ বৃদ্ধি করতে এবং ট্রাইটনের কার্যক্ষেত্র সম্প্রসারিত করতে সম্মত হন। ফ্রন্টেক্স ট্রাইটন পরিচালনা করে থাকে। কিন্তু ফ্রন্টেক্স প্রধান ক্যাবরাইচ লেগারি শীর্ষ সম্মেলনের প্রাক্কালে বলেন, অভিবাসীদের জীবন বাঁচানো তার নৌ টহলের প্রথম অগ্রাধিকারপ্রাপ্ত লক্ষ্য নয়। এর পরিবর্তে তিনি বিমান যোগে আকাশে টহল দানের ব্যবস্থা করার আহ্বান জানান, যাতে আরও দুর্ঘটনার বিষয়ে পূর্বাভাস পাওয়া যেতে পারে।

প্রকাশিত : ২৪ এপ্রিল ২০১৫

২৪/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: