আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৬ ডিসেম্বর ২০১৬, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

বিশ্ব মিডিয়ায় বাংলাদেশের জয়গান

প্রকাশিত : ২৪ এপ্রিল ২০১৫
  • পাকি ক্রিকেটারদের আগ্রাসী মনোভাব কোথায়, ক্ষোভ ও বিস্ময়ের সুরে প্রশ্ন দেশটির সাবেক তারকা ক্রিকেটারদের, তদন্ত দাবি

জাহিদুল আলম জয় ॥ বাংলাদশের কাছে ‘চুনকাম’ হয়ে পাকিস্তান জুড়ে এখন হতাশা আর ক্ষোভ। দেশটির সাবেক ক্রিকেটাররা রীতিমতো ধুয়ে দিচ্ছেন পাকি ক্রিকেট বোর্ড ও ক্রিকেটারদের। এই মিছিলে আছেন রমিজ রাজা, ইমরান খান, জাভেদ মিঁয়াদাদসহ আরও অনেকে। এই সব সাবেক ক্রিকেটারদের প্রশ্ন একটাই, পাকিস্তানের ক্রিকেটারদের সেই আগ্রাসী মনোভাব আর দেশাত্ববোধ কোথায়? নিজেদের সমালোচনার পাশাপাশি বাংলাদেশের উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করে টাইগারদের জয়গান গেয়েছেন পাকিস্তানের বর্তমান ও সাবেক ক্রিকেটাররা।

টাইগারদের কাছে ওয়ানডে সিরিজে গোহারা যেন কিছুতেই মানতে পারছেন না পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক ও বর্তমানে ধারাভাষ্যকার রমিজ রাজা। এই রাজা বরাবরই সুযোগ পেলে বাংলাদেশের ক্রিকেট নিয়ে কুটূক্তি করেছেন। এবার তথাকথিত এই রাজাদের প্রজা বানিয়ে ছেড়েছেন মাশরাফি, তামিম, সাকিব, মুশফিক, সৌম্যরা। হেসে খেলে নাকানিচুবনি খাইয়েছেন আজহার, গুল, আজমলদের। তাই তো খুব মর্মপীড়া পেয়েছেন রমিজ রাজা। লজ্জার মাথা খেয়ে তাই বলতে বাধ্য হয়েছেন, আমাদের ছেলেদের রক্তে এখন তেজ নেই! রমিজ বলেন, বিশ্বকাপ থেকে এখন পর্যন্ত দলের পারফর্মেন্স অত্যন্ত হতাশাজনক। ক্রিকেটারদের মধ্যে জয়ের আগ্রহই নেই। আগ্রাসী মনোভাবটা তারা হারিয়ে ফেলেছে। বিশ্বকাপের পর দলের আমূল পরিবর্তন করা হয়েছে। যার যা ইচ্ছে হচ্ছে তাই করছে। এই ধারা চললে জিম্বাবুইয়ের কাছেও লজ্জায় ডুবতে হবে।

পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক ও তারকা অলরাউন্ডার ইমরান খান পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের দায়িত্বহীনতা আর স্বজনপ্রীতি নিয়ে সমালোচনা করেছেন। ১৯৯২ সালের বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়ক বলেন, ক্রিকেট পাগল পাকিস্তানকে তাদের ঘরোয়া ক্রিকেটে আরও উন্নতি করতে হবে। শুধু স্বজনপ্রীতি দিয়ে ক্রিকেটার বাছাই করলে হবে না। আমি বলব পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডকে অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেট বোর্ডের পথ অনুসরণ করতে। তাতে হয়ত পাকিস্তানের ক্রিকেটের সুদিন ফিরে আসবে। ২০১৩ সালে পাকিস্তান সর্বশেষ ওয়ানডে সিরিজ জয় করে। শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে ওই সিরিজ জয়ের দুই বছর পেরিয়ে গেলেও আর কোন সিরিজে জয়ের মুখ দেখেনি পাকিরা। হেরেছে পাঁচটি সিরিজে। ইমরান খান বলেন, পাকিস্তান থেকে প্রচুর মেধাবী ক্রিকেটার বের হয়। কিন্তু তাদের সঠিক পরিচর্যা করা হয় না। যতদিন বোর্ডে স্বজনপ্রীতি থাকবে ততদিন পাকিস্তান ক্রিকেটের উন্নতি হবে না। নিজেদের আত্মীয় দিয়েই দলে নতুন ও মেধাবী ক্রিকেটারদের পথ বন্ধ করে রেখেছে বোর্ডের কর্মকর্তারা। যাদের দিয়ে ক্রিকেট খেলানো হচ্ছে তাদের অনেকেরই কোন মেধা নেই। বাংলাদেশের কাছে লজ্জার হারের প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আমি চিন্তাই করতে পারছি না বাংলাদেশের কাছে ৩-০ ব্যবধানে পাকিস্তান হেরেছে।

বাংলাওয়াশের পাকিস্তান টেস্ট দলের অধিনায়ক মিসবাহ উল হক বলেছেন, এটা সেই বাংলাদেশ, যারা গত বছর এশিয়া কাপে আফগানিস্তানের মতো দলের কাছে হেরেছে। সেটিও আবার নিজেদের ঘরের মাঠে। কিন্তু বোর্ড কিংবা দলের সমর্থকরা তাদের ওপর থেকে বিশ্বাস হারিয়ে ফেলেনি। আর সে কারণেই বাংলাদেশ আজ এ উচ্চতায় উঠেছে, পরিণত ক্রিকেটারদের পেয়েছে। বুধবার পাকিরা যখন বাংলাওয়াশের পথে ছিল তখন দেশটির পার্লামেন্ট সদস্যরাও ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেন ক্রিকেটারদের ব্যর্থতায়। বিশেষ করে বিরোধী দলের সদস্যরা তুলোধুনো করেন সরকারকে। ক্রিকেটের এই পতনের জন্য বিরোধীরা সরাসরি দায়ী করে ক্রিকেট বোর্ডের দায়িত্বহীন কর্মকা- ও অপেশাদার পদ্ধতির। বিরোধী নেতা খুরশিদ শাহ নির্লজ্জ ব্যর্থতার জন্য সরাসরি দায়ী করেন দেশের ক্রীড়া মন্ত্রণালয় ও ক্রিকেট বোর্ডকে। তিনি বলেন, এদের অপেশাদার কর্মপদ্ধতি ও অযোগ্যতার কারণে পাকিস্তান ক্রিকেট আজ মরণাপন্ন। বিরোধী নেতার আক্রমণের জবাবে পাকিস্তানের আন্তঃপ্রদেশ সমন্বয় বিষয়ক মন্ত্রী হুসেইন পীরজাদা বলেন, এই সিরিজে বাংলাদেশ খুব ভাল খেলেছে। তাদের ক্রিকেটীয় অবকাঠামো পাকিস্তানের চেয়েও শক্তিশালী। ক্রিকেটে পাকিস্তান ভুগছে অবকাঠামোগত সমস্যার কারণে। সাত বছর ধরে এদেশে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট অনুষ্ঠিত হয় না। এটা একটা বিরাট সমস্যা। বাংলাদেশের কাছে নাস্তানাবুদ হওয়ার পর ব্যর্থতার দায় স্বীকার করে হতাশা ব্যক্ত করেছেন পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) চেয়ারম্যান শাহরিয়ার খানও।

বাংলাদেশের দুর্দান্ত সাফল্যকে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমও বেশ গুরুত্ব দিয়েছে। পাকিস্তানের ডন পত্রিকা লিখেছে, ‘পাকিস্তানকে হোয়াইটওয়াশ করে ঐতিহাসিক সিরিজ জিতল বাংলাদেশ। র‌্যাঙ্কিংয়ে অধপতন পাকিস্তানের। বাংলাদেশ, জিম্বাবুইয়ের খুব কাছে পাকিস্তান। পাকিস্তানের আরেক পত্রিকা দ্য এক্সপ্রেস ট্রিবিউনের একটি শিরোনাম এ রকম, ‘বাং... বাং... বাং...’। ভারতের টাইমস ইন্ডিয়ায় বাংলাদেশের প্রশংসা করে শিরোনাম করেছে, ‘সরকারের (সৌম্য) সেঞ্চুরিতে পাকিস্তানকে হোয়াইটওয়াশ করল বাংলাদেশ।’

প্রকাশিত : ২৪ এপ্রিল ২০১৫

২৪/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: