আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৬ ডিসেম্বর ২০১৬, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

এক যুগ পর চ্যাম্পিয়ন্স লীগের শেষ চারে জুভেন্টাস

প্রকাশিত : ২৪ এপ্রিল ২০১৫

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ দীর্ঘ এক যুগের অপেক্ষার অবসান হয়েছে জুভেন্টাসের। উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লীগ ফুটবলে ১২ বছর পর সেমিফাইনালে উঠেছে ইতালিয়ান চ্যাম্পিয়নরা। বুধবার রাতে কোয়ার্টার ফাইনালের দ্বিতীয় লেগে ফরাসী ক্লাব মোনাকোর সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করে এ কৃতিত্ব দেখিয়েছে জিয়ানলুইজি বুফনের দল। এর আগে ১৪ এপ্রিল টুরিনে প্রথম লেগের ম্যাচে ১-০ গোলে জিতেছিল জুভরা। দুই লেগ মিলিয়ে তাই এক গোলের জয় নিয়ে সেরা চার নিশ্চিত করেছেন তেভেজ, পিরলো, ভিদালরা। সর্বশেষ ২০০৩ সালের ফাইনালে স্বদেশী ক্লাব এসি ?মিলানের কাছে হারের পর আর সেমিতে উঠতে পারেনি জুভেন্টাস। মোনাকোর মাঠ স্টেড লুইস টু স্টেডিয়ামে কিছুটা রক্ষণাত্মক ফুটবল খেলে জুভেন্টাস। প্রথম লেগের ম্যাচে আর্টুরো ভিদালের পেনাল্টি গোলের সুবাদে এগিয়ে থাকে ম্যাসিমিলিয়ানো এ্যালেগ্রির দল। এ কারণে ম্যাচে হার এড়ালেই সেমি নিশ্চিত। অন্যদিকে স্বাগতিক হিসেবে প্রথম থেকেই প্রতিপক্ষের রক্ষণভাগকে ব্যস্ত রাখে মোনাকো। এরপরও ম্যাচেই সত্যিকারের নিয়ন্ত্রণ ছিল ইতালিয়ান চ্যাম্পিয়নদের দখলেই। অভিজ্ঞ গোলরক্ষক বুফনকে খুব একটা হুমকির মুখে পড়তে হয়নি। ম্যাচের শেষ মিনিটে আন্দ্রে পিরলোর ফ্রিকিকে জুভেন্টাস প্রায় গোল পেয়েই গিয়েছিল। কিন্তু বারে লেগে বলটি ফেরত আসায় আপসোসে ডুবতে হয় অতিথিদের।

শেষ আটে মোনাকোর যাত্রা থেমে গেলেও পুরো আসরে তাদের দৃষ্টিনন্দন ফুটবল সবার নজর কেড়েছে। যদিও এবারের মৌসুমে চ্যাম্পিয়ন্স লীগে চারটি হোম ম্যাচে তারা মাত্র তিনটি গোল করতে সক্ষম হয়েছে। নিজেদের মাটিতে গত নয় ম্যাচের মধ্যে দুটিতে জয় পেয়েছে। মোনাকো কোচ লিওনার্ডো জারডিম পর্তুগীজ তারকা বারনার্ডো সিলভার ওপর মূল একাদশে আস্থা রেখেছিলেন। এই পর্তুগীজ মিডফিল্ডার শেষ তিন ঘরোয়া আসরের ম্যাচেই গোল করেছেন। তার সঙ্গে আক্রমণভাগে দিমিটার বারবাটোভের স্থানে ছিলেন তরুণ এ্যান্থনি মার্শাল। তবে মাঠে নামনেনি অভিজ্ঞ ডিফেন্ডার রিকার্ডো কারভালহো। সব মিলিয়ে তারুণ্যনির্ভর দল নিয়েই খেলতে নেমেছিল স্বাগতিকরা। বিপরীতে রক্ষণাত্মক কৌশলে খেলতে নামা অপেক্ষাকৃত শক্তিশালী দল জুভেন্টাস প্রথম থেকে মোনাকোকে চাপে রাখে। কিন্তু দু’দলের কৌশলে শেষ পর্যন্ত জয়ী হয় জুভেন্টাস। প্রয়োজনীয় ড্র করেই শেষ চার নিশ্চিত করে তারা। ইতোমধ্যে সেমিফাইনালের চার দল নিশ্চিত হয়েছে। আজ সুইজারল্যান্ডের নিওনে বার্সিলোনা, বেয়ার্ন মিউনিখ, রিয়াল মাদ্রিদ ও জুভেন্টাসের মধ্যে সেমিফাইনালের ড্র অনুষ্ঠিত হবে। এরপর নির্ধারণ হবে ফাইনালে ওঠার দ্বৈরথে কে কার বিরুদ্ধে লড়বে। আগামী ৫ ও ৬ মে সেমিফাইনালের প্রথম লেগ এবং ১২ ও ১৩ মে দ্বিতীয় লেগের ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। ৬ জুন জার্মানির বার্লিনে ফাইনাল ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। মজার বিষয় হচ্ছে, এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ গোলদাতার শীর্ষে সেমিতে ওঠা চার দলের কোন ফুটবলার নেই।

প্রকাশিত : ২৪ এপ্রিল ২০১৫

২৪/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: