কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৩ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

আন্তর্জাতিক নৃত্য দিবসের সপ্তাহব্যাপী অনুষ্ঠান শুরু শিল্পকলায়

প্রকাশিত : ২৪ এপ্রিল ২০১৫
আন্তর্জাতিক নৃত্য দিবসের সপ্তাহব্যাপী অনুষ্ঠান শুরু শিল্পকলায়
  • সংস্কৃতি সংবাদ

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বৈশাখী বিকেলে শিল্পকলা একাডেমির উন্মুক্ত আঙিনায় বাজছে ঢাকের আওয়াজ। সেই ঢাকের তালে নেচে উঠল সাদা একঝাঁক শিশু। কিছুক্ষণ পর আনন্দ-উচ্ছ্বাসমাখা অভিব্যক্তিতে নৃত্য পরিবেশনায় শামিল হলো বড়রাও। একাডেমির খোলা প্রাঙ্গণজুড়ে যেন বয়ে গেল প্রাণের হিল্লোল। আর এমন সুন্দর দৃশ্যের উপলক্ষ ছিল আন্তর্জাতিক নৃত্য দিবস উপলক্ষে সপ্তাহব্যাপী অনুষ্ঠানমালার উদ্বোধনী আয়োজন। সন্ত্রাস রুখে দাও নৃত্যের শিরোনামে যৌথভাবে এ অনুষ্ঠানমালার আয়োজক বাংলাদেশ নৃত্যশিল্পী সংস্থা ও বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি। আগামী ২৯ এপ্রিল আন্তর্জাতিক নৃত্য দিবদের অনুষ্ঠানমালার উদ্বোধন করা হয় বৃহস্পতিবার বিকেলে। সপ্তাহব্যাপী বর্ণিল আয়োজনে রয়েছে মেলা, সেমিনার, কর্মশালা, আনন্দ শোভাযাত্রা, আলোচনা, গুণীশিল্পী সম্মাননা প্রদান ও নৃত্যানুষ্ঠান।

একাডেমির নন্দনমঞ্চের পাশের খোলা আঙিনায় একঝাঁক বর্ণিল উড়িয়ে উৎসব উদ্বোধন করেন বরেণ্য চিত্রশিল্পী মুস্তাফা মনোয়ার। এ সময় তাঁর হাতে হাত ধরে অংশ নেন সংস্থার শিল্পীরা। এর আগে জাতীয় পতাকা ও নৃত্যশিল্পী সংস্থার পতাকা উত্তোলন করা হয়। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন নৃত্যশিল্পী সংস্থার সভাপতি মীনু হক, সাধারণ সম্পাদক মাহ্ফুজুর রহমান, নৃত্যশিল্পী রাহিজা খানম ঝুনু, আমানুল হক, গোলাম মোস্তফা খান, সামিনা হোসেন প্রেমা, ওয়ার্দা রিহাবসহ নবীন-প্রবীণ শিল্পীরা।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের অংশ হিসেবে আরেকটি আয়োজন ছিল একাডেমির জাতীয় চিত্রশালা প্লাজার উন্মুক্ত প্রাঙ্গণে। খোলা আঙিনায় পরিবেশিত হয় মনোমুগ্ধকর তিনটি নৃত্য। ‘আনন্দধারা বহিছে ভুবনে’ গানের সুরে নৃত্য পরিবেশেন করে সংস্থার প্রবীণ শিল্পীরা। রিনিঝিনি রিনিঝিনি বাজে ঢোল গানের সুরে ওয়ার্দা রিহাবের পরিচালনায় মণিপুরী নৃত্য পরিবেশন করে ধৃতি নর্তনালয়ের শিল্পীরা। এছাড়াও দলীয় নৃত্য পরিবেশন করে দিব্য সাংস্কৃতিক সংগঠন।

শিল্পী মুস্তাফা মনোয়ার উদ্বোধনী বক্তব্যে বলেন, একসময় বাংলাদেশের মানুষ নৃত্যবিমুখ ছিল। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর চাইতেন প্রতি ঘরে পৌঁছে যাক নৃত্যকলা। তিনিই নৃত্যের মার্জিত এবং শিল্পিত রূপ দিয়েছিলেন। প্রাচীনকালে বিভিন্ন সম্প্রদায়ের মানুষের মিলনমেলা হতো নৃত্যের মাধ্যমে। বর্তমানের নৃত্যচর্চা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, কি কারণে এখন যেন শিল্পীদের পরিবেশনার মধ্যে সমন্বয় ঘটছে না। পোশাকের সঙ্গে আলোকসজ্জা কিংবা কোরিওয়াগ্রাফিÑসবকিছুর মধ্যে মেলবন্ধন ঘটাতে হবে। এছাড়া দর্শকের হাততালি প্রাপ্তির অভিপ্রায়ে শিল্পীদের অতি দ্রুত কিছু করার ভাবনা থেকে সরে আসতে হবে। নাচের অন্তর্নিহিত সৌন্দর্যকে তুলে ধরতে হবে। নান্দনিক বোধের সাধনায় ব্রতী হতে হবে।

উদ্বোধনী আনুষ্ঠানিকতা শেষে সন্ধ্যায় অনুষ্ঠানস্থল চিত্রশালা প্লাজায় দলীয় নৃত্য পরিবেশনা অনুষ্ঠিত হয়। এ পর্বের আয়োজনের প্রথম সন্ধ্যায় সুরাইয়া বেগমের পরিচালনায় প্রতিবন্ধী শিশুদের অংশগ্রহনে সুইট বাংলাদেশ, লায়লা হাসানের পরিচালনায় নটরাজ, বুলবুল ললিতকলা একাডেমি, লতা ম-লের পরিচালনায় নৃত্য নন্দন, সাজু আহমেদের পরিচালনায় কত্থক নৃত্য সম্প্রদায়, বেনজীর সালামের পরিচালনায় নৃত্যছন্দ, দীপা খন্দকারের পরিচালনায় দিব্য, আইরীন পারভীনের পরিচালনায় ঝংকার, গোলাম মোস্তফা খানের পরিচালনায় বেনুকা ললিত কলা একাডেমি, জিনিয়ার পরিচালনায় জিনিয়া একাডেমি এবং ফারহানা চৌধুরী বেবীর পরিচালনায় নৃত্য পরিবেশন করে বাংলাদেশ একাডেমি।

আগামী ২৮ এপ্রিল পর্যন্ত এখানে প্রতিদিন বেলা ৩টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত থাকছে মেলা ও নৃত্যনুষ্ঠান। মেলায় ঠাঁই পেয়েছে প্রায় ৪০টি স্টল। এগুলোতে উপস্থাপিত হচ্ছে নৃত্যের নানা সরঞ্জাম, পোশাকের পাশাপাশি শাড়ি, বুটিক ও হস্তশিল্প। রয়েছে খাবারের দোকান। মেলার পাশের খোলা জায়গায় স্থাপিত মঞ্চে প্রতিদিন থাকবে নৃত্যের আয়োজন।

আয়োজনের অংশ হিসেবে ২৬ থেকে ৩০ এপ্রিল প্রতিদিন বেলা সাড়ে ৩টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত একাডেমির জাতীয় সঙ্গীত ও নৃত্যকলা কেন্দ্রের মহড়াকক্ষে নবচেতনা সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের সহযোগিতায় ড. অর্কদেব ভট্টাচার্যের পরিচালনায় থাকছে ভরত নাট্যম নৃত্যের কর্মশালা। ২৮ এপ্রিল বেলা ৩টায় শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালার সেমিনার কক্ষে ‘সন্ত্রাস প্রতিরোধে নৃত্যকলার অবস্থান’ শীর্ষক সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করবেন মিনা মোঃ নজরুল ইসলাম। ২৯ এপ্রিল বেলা ৩টায় আন্তর্জাতিক নৃত্য দিবস উপলক্ষে বের করা হবে আনন্দ শোভাযাত্রা। ওই দিন সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় একাডেমির জাতীয় নাট্যশালা মিলনায়তনে আলোচনা ও গুণী নৃত্যশিল্পী সম্মাননা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর।

কবিগুরুর সৃষ্ট কাবুলিওয়ালার ভাবনায় আলোকচিত্র ॥ কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের কালজয়ী ছোটগল্প কাবুলিওয়ালা। আর এই গল্পের ভাবনায় গ্যাটে ইনস্টিটিউটের আয়োজনে আজ শুক্রবার থেকে দৃক গ্যালারিতে শুরু হচ্ছে আলোকচিত্র প্রদর্শনী। শিরোনাম ‘কাবুল থেকে কোলকাতা : সম্পদ, স্মৃতি ও পরিচয়’। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের সেই অমর রচনার দ্বারা প্রভাবিত হয়ে এই দুই আলোকচিত্রী ও সাংবাদিক মোস্কা নাজিব একং নাজেস আফরোজের ছবি নিয়ে অনুষ্ঠিত হবে এই প্রদর্শনী।

গ্যাটে ইনস্টিটিউটের আয়োজনে এবং দৃক গ্যালারির সহযোগিতায় আজ শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৫টায় দৃক গ্যালারিতে উদ্বোধন হবে ‘কাবুল থেকে কোলকাতা : সম্পদ, স্মৃতি ও পরিচয়’ শীর্ষক এই ভিন্নধর্মী আলোকচিত্র প্রদর্শনী। শিল্পকলায় মঞ্চস্থ যামিনীর শেষ সংলাপ ॥ শব্দ নাট্যচর্চা কেন্দ্রের ২২তম প্রযোজনা ‘যামিনীর শেষ সংলাপ’। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় শিল্পকলা একাডেমির স্টুডিও থিয়েটার হলে নাটকটির ১৭তম প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হয়। একজন বয়োবৃদ্ধ থিয়েটার কর্মীর আত্মোপলব্ধিকে উপজীব্য করে নাটকটি রচনা করেছেন মমতাজ উদ্দিন আহমদ। নাটকটি নির্দেশনা দিয়েছেন খোরশেদুল আলম।

প্রকাশিত : ২৪ এপ্রিল ২০১৫

২৪/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: