আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৬ ডিসেম্বর ২০১৬, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

দুই মেয়র প্রার্থীর গণসংযোগ অব্যাহত

প্রকাশিত : ২৪ এপ্রিল ২০১৫
  • নগরবাসীর সেবক হতে চাই ॥ নাছির
  • গণজোয়ার আমার কাজের স্বীকৃতি ॥ মনজুর

স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম অফিস ॥ বহুল আকাঙ্খিত চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচনে মেয়র পদে দুই প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী আ জ ম নাছির উদ্দিন ও বিএনপি সমর্থিত এম মনজুর আলম শেষ সময়ে প্রচার চালিয়ে যাচ্ছেন। আ জ ম নাছির উদ্দিন ৩৬ দফা নির্বাচনী ইস্তেহার ঘোষণা করেছেন। বৃহস্পতিবার ইস্তেহার ঘোষণা করেছেন এম মনজুর আলম। এর আগে উভয় প্রার্থী বৃহস্পতিবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত নগরীর বিভিন্ন ওয়ার্ডে ও সরকারী বেসরকারী কার্যালয়ে নির্বাচনী প্রচারণায় লিপ্ত হন।

নগরীর আগ্রাবাদ সরকারী কার্য ভবন, চট্টগ্রাম বন্দর, চট্টগ্রাম কাস্টম হাউসে গণসংযোগকালে নাছির বলেন, তিনি নগর পিতা হতে চান না। চান নগরবাসীর সেবক হতে। সকাল এগারোটায় নগরীর আগ্রাবাদ কার্য ভবনের বিভিন্ন ফ্লোরে কর অঞ্চল কর্মকর্তা-কর্মচারি, কর আইনজীবীসহ বিভিন্ন কার্যালয়ে তিনি গণসংযোগ করেন। এরপর তিনি যান চট্টগ্রাম কাস্টম হাউস ও বন্দর ভবনে। এ সময় তিনি বলেন, তাঁর পক্ষে পরিবর্তনের যে জোয়ার বইছে সে বার্তা নিয়ে তিনি হাজির হয়েছেন। তিনি বলেন, চট্টগ্রাম ভূ-প্রাকৃতিকভাবে সমৃদ্ধ হলেও যোগ্য নেতৃত্বের অভাবে এর অপরূপ সৌন্দর্য নষ্ট করেছেন সাবেক মেয়র এম মনজুর আলম। আমি নির্বাচিত হলে এ নগরীর সমস্যা চিহ্নিত করে তা সমাধানের চেষ্টা করব। তিনি বলেন, এখন সময় এসেছে পরিবর্তন ও প্রতিরোধের। কারও সন্তান যেন পানিতে না ডুবে, শিক্ষা সুবিধা ও স্বাস্থ্যসেবা থেকে বঞ্চিত না হয় সে জন্য তিনি তার হাতি মার্কায় ভোট চান। তিনি বলেন, আমি প্রধানমন্ত্রীর মনোনীত প্রতিনিধি হয়ে তাঁর পরিকল্পনা অনুযায়ী চট্টগ্রামের উন্নয়ন করব। চট্টগ্রাম কাস্টম হাউসে গণসংযোগকালে আ জ ম নাছির সমর্থকদের দু’গ্রুপের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। কাস্টমস ভবনে একযোগে কয়েক শ‘ সমর্থক প্রবেশের চেষ্টা করতে গিয়ে তাদের মধ্যে এ বিচ্ছৃঙ্খলার ঘটনা ঘটে। এ সময় বন্দর যুবলীগ নেতা বেলালকে কয়েকজন যুবলীগ কর্মী মারধর করে। ফলে বেলাল সমর্থকরাও প্রতিপক্ষের ওপর হামলে পড়ে। এ সময় নগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আলতাফ হোসেন চৌধুরী বাচ্চু হ্যান্ড মাইকে সকলকে শান্ত থাকতে বলেন। এরপর আলতাফ হোসেন চৌধুরী বাচ্চু সাংবাদিকদের জানান, ভুল বুঝাবুঝির কারণে এ ঘটনা ঘটেছে। এটা তেমন কোন বড় বিষয় নয়।

যুবলীগ ॥ আসন্ন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে নাগরিক কমিটি মনোনীত মেয়র পদপ্রার্থী আ.জ.ম নাছিরের সমর্থনে চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা যুবলীগ নগরীর হাজারী গলি, টেরী বাজার, আসাদগঞ্জ, খাতুনগঞ্জ, পাথরঘাটা, কোতোয়ালিসহ বিভিন্ন স্থানে গণসংযোগ করেন। গণসংযোগকালে উপস্থিত ছিলেন চটগ্রাম দক্ষিণ জেলা যুবলীগের সভাপতি আ.ম.ম টিপু সুলতান চৌধুরী, দক্ষিণ জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক পার্থ সারথী চৌধুরী, দক্ষিণ জেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি দিদারুল ইসলাম চৌধুরী, মাহবুবুর রহমান চৌধুরী, শহীদুল ইসলাম, কেন্দ্রীয় যুবলীগের সদস্য জাহেদুর রহমান সোহেল, যুগ্ম সম্পাদক মোঃ সোলায়মান প্রমুখ।

মনজুর আলম ॥ বিএনপি সমর্থত প্রার্থী মনজুর আলম বৃহস্পতিবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত পাঁচলাইশ ও আতুরার ডিপো এলাকায় গণসংযোগ করেন। এ সময় তিনি বলেন, নগর পিতার দায়িত্ব পালনকালে মানুষের সেবা করার কারণে এবার তার পক্ষে গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে। তাঁর মতে মানুষের কল্যাণে কাজ করলে গণজোয়ার সৃষ্টি হয়। তিনি বলেন, আমি কাজ করেছিলাম গণজোয়ার তারই প্রমাণ করছে। মানুষ আমার কাজের স্বীকৃতি দিতে প্রস্তুত। এ গণজোয়ার আগামী ২৮ এপ্রিল নির্বাচনের দিন পর্যন্ত অব্যাহত থাকবে বলে উল্লেখ করে বলেন, নগরবাসী আমাকে আবারও মেয়র পদে নির্বাচিত করবেন। মনজুরের নির্বাচনী গণসংযোগের সময় এলডিপি সভাপতি কর্নেল অলি আহমদসহ স্থানীয় নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

আমীর খসরু ॥ বিএনপির চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা সাবেক বাণিজ্যমন্ত্রী ও চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সভাপতি আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন খালেদা জিয়ার গাড়িবহরে হামলার মাধ্যমে আওয়ামী লীগের বাকশালী চরিত্র প্রকাশ পেয়েছে। তিনি অভিযোগ করে বলেন, নির্বাচন কমিশন বিএনপির কোন অভিযোগ আমলে নিচ্ছে না। বৃহস্পতিবার সকাল এগারোটায় তাঁর মেহেদীবাগের বাসভবনে চকবাজার ওয়ার্ড বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের সাথে মতবিনিময়কালে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন। মতবিনিময়কালে উপস্থিত ছিলেন হারুন জামান, ইয়াছিন চৌধুরী লিটন, আখতার খান, ওয়ার্ড বিএনপি নেতা জামাল আহমেদ প্রমুখ।

প্রকাশিত : ২৪ এপ্রিল ২০১৫

২৪/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: