কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

পুরুষদের ম্যাচে নারী ক্রিকেটারের চমক!

প্রকাশিত : ২২ এপ্রিল ২০১৫

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ পুরুষদের ম্যাচে নারী ক্রিকেটার! যেন চমকে উঠার মতোই খবর। তবে অবিশ্বাস্য মনে হলেও তা বাস্তবে রূপ দিলেন ইংল্যান্ডের কেট ক্রস। শুধু তাই নয় রীতিমতো চমক জাগানিয়া পারফর্মেন্সও উপহার দিলেন তিনি। প্রথম নারী হিসেবে সেন্ট্রাল ল্যাঙ্কাশায়ার লীগে (সিএলএল) খেলার ইতিহাস গড়লেন ম্যানচেস্টারের বংশোদ্ভূত কেট ক্রস। সিএলএলের সুদীর্ঘ ১২৩ বছরের ইতিহাসে প্রথম ছেলেদের সঙ্গে ম্যাচ খেলার বিরল নজির গড়লেন তিনি।

রবিবারই প্রথম লীগে খেলতে নামেন কেট ক্রস। আর নিজের অভিষেক মাচেই ১৯ রানের বিনিময়ে ৩ উইকেট নেন হেইউড ক্রিকেট ক্লাবের হয়ে পুরুষদের সঙ্গে খেলতে নামা ইংল্যান্ডের এই প্রমীলা ক্রিকেটার। এর ফলে তার দল ৮ উইকেটের সহজ জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে। ল্যাঙ্কাশায়ার লীগে খেলতে পেরে উচ্ছ্বসিত কেট ক্রস। ম্যাচ শেষের সংবাদ সম্মেলনে কেট ক্রস বলেন, ‘আমি এখানে বড় হয়েছি এবং ক্রিকেটের যা কিছু শিখেছি সব এই ক্লাব থেকেই। তবে আমি কখনই চিন্তা করতে পারিনি যে হেইউড প্রথম ক্লাবের হয়ে খেলার সুযোগ পাব। প্রথম মেয়ে হয়ে আমাদের লীগে খেলতে পারায় গর্ববোধ করছি আমি। আশা করি এখানে আমি আরও ম্যাচ খেলার সুযোগ পাব।’ এই ক্লাবে কেট ক্রসের ভাই ববি ক্রসও খেলেন। তাই ভাইয়ের সঙ্গে খেলতে পেরে আরও রোমাঞ্চিত কেট। এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘আমার ভাইয়ের সঙ্গে একত্রে খেলার অভিজ্ঞতাটা বেশি স্পেশাল। তিনি আমার আদর্শ।’ এ সময় লীগ কর্তৃপক্ষের প্রতি কৃতজ্ঞতাও প্রকাশ করেছেন কেট, ‘আমাকে খেলার অনুমতি জন্য কেন্দ্রীয় ল্যাঙ্কাশায়ার লীগ কমিটির কাছে কৃতজ্ঞ। এখানকার প্রতি মুহূর্তই আমি উপভোগ করেছি।’ এ সময় কেট ক্রসের ভাই ববি ক্রস বলেন, ‘এই লীগে কেট ক্রসের খেলার সুযোগ পাওয়াটা দেখার আনন্দই অন্যরকম। সে ম্যাচে যেভাবে বোল করেছে তা দেখে আমি সত্যিই খুবই আনন্দিত।’ হেইউড চেয়ারম্যান জন রোডস বলেন, ‘ক্লাবের হয়ে ক্রসের আত্মপ্রকাশ একটি গর্বের বিষয়। আমি মনে করি এই ঘটনা নারী ও মেয়েদের ক্রিকেট খেলার দিকে আরও আগ্রহী করে তুলবে। ম্যাচে তিন উইকেট নিয়েছে সে।

বাংলাদেশ যুবাদের জয় অব্যাহত

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ দক্ষিণ আফ্রিকা অনুর্ধ-১৯ দলের বিপক্ষে একের পর এক জয় তুলেই নিচ্ছে বাংলাদেশ অনুর্ধ-১৯ দল। দক্ষিণ আফ্রিকা যুব দলের বিপক্ষে বাংলাদেশ যুব ক্রিকেট দলের জয় অব্যাহত রয়েছে। মঙ্গলবার দক্ষিণ আফ্রিকান দলের বিপক্ষে বাংলাদেশের যুবারা ৪৫ রানের জয় পেয়েছে।

টস জিতে বাংলাদেশ যুব দল ৪৬.২ ওভারে সব উইকেট হারিয়ে ২১৯ রান সংগ্রহ করেছে। সর্বোচ্চ রান সংগ্রহ সাইফুল হায়াত হৃদয়। তিনি ৯৬ বলে ৫ চার ও ১ ছক্কায় ৮৩ রান সংগ্রহ করে। এছাড়া দলে ফেরা মেহেদি হাসান মিরাজ ৫৭ রানের ইনিংস খেলেন। দক্ষিণ আফ্রিকার বোলারদের মধ্যে সর্বোচ্চ ৩ উইকেট নিয়েছেন ডিয়েন ফক্সক্রফট। এ ছাড়া লেসিগো সেনেকাউয়ানে নিয়েছে ২ উইকেট।

জবাবে দক্ষিণ আফ্রিকা যুব দল সালেহ আহমেদ সোহান ও নাহিদুজ্জামানের বোলিং তোপে ১৭৪ রানেই গুটিয়ে যায়। সোহান ৫ ও নাহিদুজ্জামান ৩ উইকেট নিয়েছেন। দক্ষিণ আফ্রিকার ব্যাটসম্যানদের মধ্যে ওপেনার রিভালদো ৬১ রানের ইনিংস খেলেন। এছাড়া আব্দুল গালিম ৩৬ রান করেছেন।

উল্লেখ্য, এই জয়ে বাংলাদেশ যুবদল ৭ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ ৫-১ ব্যবধানে এগিয়ে রয়েছে। সর্বশেষ ম্যাচ কক্সবাজার শেখ জামাল স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে ২৩ এপ্রিল।

প্রকাশিত : ২২ এপ্রিল ২০১৫

২২/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: