কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

সেনা মোতায়েনের সিদ্ধান্তে প্রার্থী ও ভোটার মহলে স্বস্তি

প্রকাশিত : ২২ এপ্রিল ২০১৫
  • চসিক নির্বাচন

মোয়াজ্জেমুল হক, চট্টগ্রাম অফিস ॥ চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচনের বাকি আজ থেকে মাত্র ৬ দিন। ৪১ ওয়ার্ডজুড়ে মেয়র ও কাউন্সিলরদের নির্বাচনী প্রচার বেশ জমে উঠেছে। প্রচারের সময় আছে মাত্র চারদিন। ২৬ এপ্রিল মধ্যরাত থেকে বন্ধ হয়ে যাবে প্রচার। এ অবস্থায় মেয়র ও কাউন্সিলর পদপ্রার্থীরা সকলেই শেষ মুহূর্তের প্রচারে লিপ্ত। যদিও মেয়র পদে দুই প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগ সমর্থিত আ জ ম নাছির উদ্দিন ও বিএনপি সমর্থিত এম মনজুর আলমের নির্বাচনী ইশতেহার নগরবাসীর পক্ষে ভোটাররা এখনও জানতে পারেনি। তবে আজ সকাল ১০টায় নগরীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে আ জ ম নাছির উদ্দিনের নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণার কথা রয়েছে। পক্ষান্তরে, আগামীকাল বা পরদিন মনজুর আলম তাঁর নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা দেয়ার কথা। মেয়র পদে এ প্রধান দুই প্রতিদ্বন্দ্বী তাঁদের নির্বাচনী ইশতেহার প্রকাশে বিলম্বের ঘটনায় ব্যাপক সমালোচনার সম্মুখীন হয়েছেন। যদিও স্বপ্নের মেগাসিটি করার অঙ্গীকার নিয়ে আ জ ম নাছির এবং জলাবদ্ধতা নিরসনসহ অসমাপ্ত কাজ সম্পন্ন করার অঙ্গীকার ব্যক্ত করে এম মনজুর আলম প্রতিদিন বিভিন্ন এলাকায় ভোট ভিক্ষা করে চলেছেন।

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের এবারের নির্বাচন পঞ্চম দফার। ১৯৯৪ সাল থেকে নির্বাচনী প্রক্রিয়ার মাধ্যমে এ কর্পোরেশনের মেয়র ও ওয়ার্ড কমিশনার পদে নির্বাচিত হয়ে আসছে। অন্যান্যবার এ কর্পোরেশন নির্বাচন যেভাবে জনগণকে কাছে টেনেছে এবং সারাদেশের দৃষ্টি আকর্ষণে সক্ষম হয়েছে এবার সেক্ষেত্রে কিছুটা ঘাটতি পরিলক্ষিত হচ্ছে। এর কারণ হিসেবে বিশ্লেষকরা বলছেন, একদিকে সরকারবিরোধী আন্দোলন চালাতে গিয়ে ২০ দলীয় জোট দেশজুড়ে যে অরাজক পরিস্থিতি সৃষ্টি করেছে তা নিয়ে সাধারণ মানুষের মাঝে শঙ্কা বিরাজ করছে। অপরদিকে, বিরোধী জোটের আন্দোলনবিরোধী তৎপরতা চালাতে গিয়ে জোট সমর্থিত সকল নেতাকর্মী ও সমর্থকের মাঝে এক ধরনের শঙ্কা বিরাজ করছে। এছাড়া সরকার ও বিরোধী জোটের মধ্যে চলমান নানা অপ্রীতিকর ঘটনার কারণে রাজনীতির সঙ্গে জড়িত নয়, এমন বহু সেক্টর ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বলি হয়েছে সাধারণ মানুষ। ব্যবসা-বাণিজ্যের ক্ষতি হয়েছে অচিন্তনীয়।

এ অবস্থায় ঢাকার দুটিসহ চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। মূলত রাজনৈতিক দলীয় সমর্থনেই এ নির্বাচনের মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীরা মাঠে জোরালো ভূমিকা রাখতে সক্ষম হচ্ছেন। জয়-পরাজয় ভবিষ্যতের ব্যাপার হলেও ভোটার মহলে এক ধরনের অস্বস্তিকর অজানা শঙ্কা বিরাজমান।

প্রকাশিত : ২২ এপ্রিল ২০১৫

২২/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: