মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১১ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

ঢাবিতে নারী নিপীড়নের বিরুদ্ধে প্রতিবাদী কর্মসূচী অব্যাহত

প্রকাশিত : ২১ এপ্রিল ২০১৫
ঢাবিতে নারী নিপীড়নের বিরুদ্ধে প্রতিবাদী কর্মসূচী অব্যাহত
  • রাজু ভাস্কর্য থেকে কার্জন হল পর্যন্ত মানববন্ধন

বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার ॥ বর্ষবরণের দিনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে নারীদের ওপর যৌন নিপীড়নের ঘটনায় বিভিন্ন প্রতিবাদ কর্মসূচী অব্যাহত রয়েছে। ঘটনার পর ছয় দিন অতিবাহিত হলেও জড়িতদের কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। এদিকে এ ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে সোমবার দিনভর বিক্ষোভ মিছিল, মানববন্ধন ও সমাবেশ পালিত হয়েছে।

এ দিন বেলা ১১টায় পূর্বঘোষিত ‘রাজু ভাস্কর্য থেকে কার্জন হল পর্যন্ত মানববন্ধন কর্মসূচী’ পালন করে বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন। মানববন্ধনে প্রায় এক কিলোমিটার হাতে হাত রেখে দাঁড়িয়ে অবিলম্বে জড়িতদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনার দাবি জানানো হয়। মানববন্ধন শেষে টিএসসির রাজু ভাস্কর্য পাদদেশে এক সমাবেশে মিলিত হয় তারা। সমাবেশে বক্তব্য দেন- ঢাবির সমাজবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক সামিনা লুৎফা, ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি হাসান তারেক, ঢাবির সাবেক সভাপতি মারুফ বিল্লাহ তন্ময়, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি লিটন নন্দীসহ বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। সমাবেশ শেষে রাজু ভাস্কর্যের সামনের সড়কে প্রতিবাদী ছাপচিত্র কর্মসূচী পালন করা হয়।

সোমবার সকাল থেকেই অপরাজেয় বাংলার পাদদেশে জড়ো হতে থাকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকেও শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা আসেন। মানববন্ধন কর্মসূচীতে একাত্মতা প্রকাশ করে যোগ দেয় উদীচী, বাংলাদেশ মহিলা পরিষদসহ বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক এবং ছাত্র সংগঠনের নেতাকর্মীরা। বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগ ক্লাস বন্ধ করে মানববন্ধন কর্মসূচীতে অংশ নেয়। কলা, সামাজিক ও ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের শিক্ষার্থীরা অপরাজেয় বাংলা, কেন্দ্রীয় লাইব্রেরি ও টিএসসির আশপাশে ও বিজ্ঞান অনুষদের শিক্ষার্থীরা কেন্দ্রীয় খেলার মাঠ, কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার হয়ে টিএসসির মানব প্রাচীরে মিলিত হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন ছাত্র ইউয়িনের সভাপতি হাসান তারেক, সাধারণ সম্পাদক লাকি আকতার, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের ঢাবি সভাপতি রাশেদ শাহরিয়ারসহ অন্যান্য নেতাকর্মীরা।

মানববন্ধনে ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী লিটন নন্দী বলেন, এতবড় ঘটনার পরও বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের কর্তারা মিথ্যাচার করছেন। সঠিক দায়িত্ব পালন না করে, অন্যায়কে প্রশ্রয় দিতে চেষ্টা চালাচ্ছেন। ঘটনায় জড়িতদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনতে হবে।

ঢাবি শিক্ষক সমিতি ॥ একই ঘটনায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি। সোমবার বেলা সাড়ে ১১টায় অপরাজেয় বাংলার পাদদেশে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। মানববন্ধনে শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ বলেন, বাঙালীর একটি সর্বজনীন অনুষ্ঠানকে প্রশ্নবিদ্ধ করার প্রয়াস নিয়ে পরিকল্পিতভাবে নারীর ওপর নির্যাতন চালানো হয়েছে। সচেতন নাগরিক হিসেবে এ ঘটনার প্রতিবাদ না জানিয়ে থাকতে পারি না। যারা এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত তাদের অবিলম্বে চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনতে হবে। সমিতির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মাকসুদ কামাল বলেন, মুক্তবুদ্ধির চর্চাকেন্দ্রে নারীর ওপর আঘাত কোনভাবেই মেনে নেয়া যায় না। যারা এ ধরনের ঘটনা ঘটিয়েছে তাদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনতে হবে। এ কর্মসূচী থেকে সাত দিনের মধ্যে জড়িতদের গ্রেফতারের জন্য সময় বেঁধে দেয়া হয়।

প্রকাশিত : ২১ এপ্রিল ২০১৫

২১/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

অন্য খবর



ব্রেকিং নিউজ: