আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে এ নির্বাচন মুক্ত চিন্তার মানুষের ॥ সাঈদ খোকন

প্রকাশিত : ২১ এপ্রিল ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার ॥ এ নির্বাচন শুধু ঢাকা শহরের নির্বাচন নয়। তিন সিটির নির্বাচন একাত্তরের পরাজিত শক্তির বিরুদ্ধে মুক্তিকামী মানুষের নির্বাচন। সাম্প্রদায়িক অশুভ শক্তির বিরুদ্ধে অসাম্প্রদায়িক এবং মুক্তচিন্তার মানুষের নির্বাচন। তাই এ নির্বাচনে পরাজিত হওয়ার সুযোগ আমাদের অত্যন্ত সীমিত বলে মনে করেন ঢাকা দক্ষিণে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী সাঈদ খোকন।

সোমবার বিকেলে রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলানায়তনে তার সমর্থনে আয়োজিত এক সুধী সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন। সমাবেশের আয়োজন করে দেশের বিশিষ্টজনদের সমন্বয়ে গঠিত সহস্র নাগরিক কমিটি।

শনিবার নাগরিক কমিটি আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ কর্মসূচী ঘোষণা করা হয়েছিল। পরবর্তী কর্মসূচীর মধ্যে রয়েছে, ২২ এপ্রিল চিড়িয়াখানা রোডের ৮নং ওয়ার্ড কমিউনিটি সেন্টারে

আনিসুল হকের পক্ষে বিকেল তিনটায় সুধী সমাবেশ। সেখানেও মেয়র প্রার্থীসহ দেশের বিশিষ্টজনরা উপস্থিত থাকবেন। এছাড়াও ২৪ এপ্রিল বিকেল পাঁচটায় সন্ত্রাস নৈরাজ্য ও নাশকতার বিরুদ্ধে অবস্থান তুলে ধরে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে দুই মেয়র প্রার্থীসহ শত বরেণ্য ব্যক্তি উপস্থিত হয়ে একশ’ পায়রা উড়িয়ে শান্তি ও সমৃদ্ধির ঢাকা গড়ে তোলার শপথ নেবেন।

সমাবেশে সাঈদ খোকন বলেন, স্থানীয় সরকার নির্বাচন হলেও বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে আসন্ন ঢাকা ও চট্টগ্রামের তিন সিটি নির্বাচন সরকারের মধ্যবর্তী নির্বাচনের মতো তাৎপর্য ও গুরুত্ব বহন করে। তিনি মনে করেন, এ নির্বাচনে যদি মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তির পরাজয় ঘটে তাহলে পরিস্থিতি অত্যন্ত ভয়াবহ হবে। তাই মুক্তিকামী এবং অসাম্প্রদায়িক চেতনায় বিশ্বাসী দেশের প্রতিটি নাগরিকের সমর্থন প্রত্যাশা করে তিনি ঢাকাবাসীর কাছে ভোট চান। তার বিশ্বাস, জাতির বিবেক বলে পরিচিত বুদ্ধিজীবীরা যদি শহরের মানুষের কাছে ভোট প্রার্থনা করেন তাহলে তারা তাদের খালি হাতে ফিরিয়ে দেবেন না। তাই সকলের সমর্থন প্রত্যাশা করেন সাঈদ খোকন।

অনেক কঠিন সময় পার করছেন উল্লেখ করে উপস্থিত সুধীদের উদ্দেশে সাঈদ খোকন বলেন, আমার এ কঠিন সময়ে আপনারা যদি আমাকে আগলে রাখেন, পাশে থাকেন তাহলে আমি কথা দিচ্ছি, নির্বাচিত হলে আমার পুরো মেয়াদকাল আপনাদের আমি আগলে রাখবো।

ঢাকাকে একটি আধুনিক ও বাসযোগ্য নগরীতে পরিণত করতে এবং ঢাকার মানুষের জন্য প্রয়োজনে নিজের জীবনকে উৎসর্গ করার প্রতিশ্রুতি দেন তিনি। সাঈদ খোকনকে সমর্থন জানিয়ে এবং তার পক্ষে কাজ করার অঙ্গীকার ব্যক্ত করে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সহস্র নাগরিক কমিটির আহ্বায়ক সব্যসাচি লেখক সৈয়দ শামসুল হক, সদস্য সচিব গোলাম কুদ্দুছ, শহীদজায়া শ্যামলী নাসরিন চৌধুরী, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক কামরুল হাসান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক মাকসুদ কামাল, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক হাসান আরিফ, বাংলাদেশ মেডিক্যাল এ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ডাঃ ইকবাল আর্সনাল প্রমুখ।

এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন, সাংবাদিক মঞ্জুরুল আহসান বুলবুল, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সাবেক সভাপতি নাসির উদ্দিন ইউসুফ বাচ্চু, বুয়েটের সাবেক প্রো-ভিসি অধ্যাপক মোঃ হাবিবুর রহমান প্রমুখ। আওয়ামী লীগ নেতাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সাবেক খাদ্যমন্ত্রী ড. আবদুর রাজ্জাক, নজরুল ইসলাম বাবু, বদিউজ্জামান ডাবলুসহ অন্যরা।

সমাবেশে সাঈদ খোকন বলেন, যে ছোট্ট শিশুটিকে কিছুদিন আগে পেট্রোলবোমা দিয়ে ঝলসিয়ে দেয়া হয়েছে, তার কি অপরাধ ছিল। সভ্য সমাজে কেন রক্তের হোলি খেলা? এর বিচার প্রক্রিয়া শুরু করতে ইলিশ মার্কায় ভোট দিন। পেট্রোলবোমা দিয়ে শিশুর শরীর ঝলসে দেয়ার বিচারও একদিন হবে।’

সুধী সমাবেশে বক্তারা, মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় আধুনিক ঢাকা গড়তে আসন্ন সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে দক্ষিণে সাঈদ খোকনকে ইলিশ মাছ ও উত্তরে আনিসুল হককে ঘড়ি মার্কায় ভোট দেয়ার জন্য জনগণকে অনুরোধ জানান। পাশাপাশি সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে উগ্র সাম্প্রদায়িক, মৌলবাদী গোষ্ঠী ও পেট্রোলবোমা দিয়ে মানুষ হত্যাকারীদের প্রতিনিধিত্বকারী মেয়র প্রার্থীদের ভোট না দিতে ভোটারদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে ‘সহস্র নাগরিক কমিটি’।

প্রকাশিত : ২১ এপ্রিল ২০১৫

২১/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: