আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৬ ডিসেম্বর ২০১৬, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

কয়েকটি মজাদার রেসিপি দিয়েছেন শামীমা বেগম

প্রকাশিত : ২০ এপ্রিল ২০১৫

আমের ঝুরি আচার

যা লাগবে : আম ১ কেজি, লবণ আধা চা চামচ, হলুদের গুঁড়া আধা চা চামচ, জিরা গুঁড়া আধা চা চামচ, সরিষার তেল এক পোয়া, সামান্য রসুন কুচি, শুকনা মরিচ কুচি ৩/৪ টা, সিরকা পোয়া কাপ, ধনিয়া গুঁড়া আধা চা চামচ, পাঁচফোড়ন ১ চা চামচ, সাদা সরিষা গুঁড়া ১ চা চামচ, আদা বাটা।

যেভাবে করবেন : আম ভালভাবে ধুয়ে খোসা ছাড়িয়ে সবজি কুরনি দিয়ে ঝুরি করে কুরিয়ে নিতে হবে। অল্প হলুদের গুঁড়া ও অল্প তেল মাখিয়ে রোদে দিতে হবে। ভালভাবে নেড়ে নিতে হবে। ভালভাবে আমগুলো শুকাতে হবে। ফ্রাইপ্যানে তেল গরম করে তার মধ্যে সামান্য রসুন ও আদা বাটা দিয়ে ভালভাবে নেড়ে নামিয়ে ফেলতে হবে। তারপর ঐ তেলের মধ্যে হলুদের গুঁড়া, মরিচের কুচি, ধনিয়ার গুঁড়া, জিরা গুঁড়া, পাঁচ ফোড়ন, সরিষার তেল, সাদা সরিষার গুঁড়া দিয়ে ভালভাবে নেড়ে নিতে হবে। এরপর কুচি শুকানো আমগুলো ঐ তেলের মধ্যে ছেড়ে দিতে হবে। ১০/১৫ মিনিট চুলায় রেখে নামানোর আগে সিরকা দিয়ে নামিয়ে নিতে হবে। ঠা-া করে বয়ামে ভরে মাঝে মাঝে রোদে দিতে হবে। ফ্রিজে রাখলে রোদে দিতে হবে না।

আমের চাটনি

যা লাগবে : কাঁচা আম চিনি, গুড়, মরিচ গুঁড়া, ধনে গুঁড়া, জিরা গুঁড়া ও ট্রাফিকা পাউডার, সিরকা অল্প পরিমাণ ও একটু লবণ।

যেভাবে করব : আম কেটে ধুয়ে ভাল করে সেদ্ধ করে ব্লেন্ডারে অথবা পাটায় ভাল করে বেটে পেস্ট বানিয়ে নিতে হবে। চিনি, মরিচ গুঁড়া, ধনে, জিরা গুঁড়া দিয়ে চুলায় জ্বাল দিয়ে আমের পেস্ট দিয়ে কিছুক্ষণ চুলায় রেখে উতলে উঠলে গ্যাস বন্ধ করে ট্রাফিকা পাউডার দিয়ে ৫ মি. নেড়ে নামিয়ে ফেলতে হবে। তার আগে সিরকা দিতে হবে। ট্রাফিকা না থাকলে একটু কর্নফ্লাওয়ার গুলে দিতে পারেন। হয়ে যাবে আমের টক ঝাল মিষ্টি চাটনি।

আমের টক-ঝাল

যা লাগবে : আম ১ কেজি, পাঁচফোড়ন ১ চা চামচ, জিরা গুঁড়া ১/২ চা চামচ, কয়েকটা শুকনা মরিচ, সরিষার গুঁড়া ১ চা চামচ, এ্যাসিটিক এ্যাসিড ২ ফোঁটা,

লবণ পরিমাণমতো, সয়াবিন বা সরিষার তেল ২ কাপ, ধনিয়া গুঁড়া আধা চা চামচ, মরিচ গুঁড়া ২ টেবিল চামচ, হলুদ গুঁড়া ১/২ চা চামচ, চিনি ১ চা চামচ, সোডিয়াাম বেনজুয়েট ১ চিমটি, সিরকা ১ কাপ।

যেভাবে করবেন : কাঁচা আম খোসাসহ টুকরা করে কেটে পরিমাণমতো পানি দিয়ে হালকা সেদ্ধ করে নিন। তারপর সেদ্ধ আমের টুকরাগুলো ঝুড়িতে ঢেলে পানি ঝরিয়ে নিন। একটি পাত্র গ্যাসে চড়িয়ে দিন এবং গ্যাস চালু করুন। পাত্রে তেল, পাঁচফোড়ন ও শাকসবজি ছিঁড়ে একটু ফুটে গেলে ধনিয়া গুঁড়া, জিরার গুঁড়া মরিচের গুঁড়া ও হলুদের গুঁড়া দিয়ে দিলে খুনতি দিয়ে একটু নেড়ে আমের টুকরা এবং চিনি দিয়ে আবার নেড়ে দিয়ে কিছুক্ষণ চুলায় রেখে ১৫ থেকে ২০ মি., সরিষার গুঁড়া দিয়ে একটু নেড়ে ৫ মি. পরে গ্যাস বন্ধ করে সিরকা দিয়ে নাড়াচাড়া করে আচার ঠা-া করে বয়ামে ভরুন। যদি বাজারজাত করতে চান তবে এ্যাসিটিক এ্যাসিড ও সোডিয়াম বেনজুয়েট দিতে হবে, না হলে সিরকা দিলেও চলবে।

[এ্যাসিটিক এ্যাসিড দিয়ে ১০ মি. চুলায় রেখে সরিষার গুঁড়া দিয়ে একটু নেড়ে ৫ মি. পরে গ্যাস বন্ধ করে সোডিয়াম বেনজুয়েট দিয়ে ৫ মি. রাখুন।

আমের কাশ্মীরী আচার

যা লাগবে : কাঁচা আমের টুকরা, শুকনা মরিচ কুচি ২ চা চামচ, চিনি দেড় কাপ, আদা সøাইস করে ২ চা চামচ, সিরকা আধা কাপ, দারুচিনি ২/৩ টুকরা, এলাচফল ৩/৪টা, ফিটকারী আধা চা চামচ গুঁড়া।

যেভাবে করবেন : আম খোসা ছিলে ইচ্চামতো টুকরা করতে হবে। ফিটকারীর পানিতে ১ ঘণ্টা ভিজিয়ে আম রাখুন। তারপর হালকা গরম পানিতে ভাপ দিতে হবে। ঝুড়িতে ঢেলে পানি ঝরাতে দিন ৫মিঃ, একটি পাত্রে আম ঢেলে দিয়ে তার মধ্যে পরিমাণ মতো চিনি দিয়ে আম চিনি ভাল করে কাঁচের চামচ দিয়ে মাখিয়ে নিন। পাত্রটি গ্যাসে চড়িয়ে গ্যাস চালু করতে হবে। আদা নক্সা করে বা জুলিয়ান কাট আদা দিতে হবে। গোটাফল ও দারুচিনি দিন। যখন এগুলো উৎলাবে তখন শুকনা মরিচের বীচি ফেলে কাচি দিয়ে রিং রিং করে কেটে দিতে হবে। শেষে সিরকা দিয়ে নামিয়ে ফেলুন। ফ্রিজে রাখলে অনেক দিন রাখা যায়।

[বাজারজাত করতে চাইলে সিরকা বাদ দিয়ে শেষে উৎলে উঠলে আগে এ্যাসিটিক এ্যাসিড একটু পরে সাইট্রিক এ্যাসিড দিয়ে একটু নেড়ে দিন। এর পর আবার যখন উৎলাবে তখন গ্যাস বন্ধ করে, সোডিয়াম বেনজোয়েট দিয়ে ১ মিঃ রেখে নামিয়ে ফেলুন। এভাবে হয়ে যাবে আমের কাশ্মীরি আমের আচার।

প্রকাশিত : ২০ এপ্রিল ২০১৫

২০/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: