আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৬ ডিসেম্বর ২০১৬, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

বাংলাদেশ যতটুকু এগিয়েছে, পাকিস্তান ঠিক ততটা পিছিয়েছে ॥ ইনজামাম

প্রকাশিত : ২০ এপ্রিল ২০১৫

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ সফরে প্রথম ওয়ানডেতে বাংলাদেশের কাছে ৭৯ রানের বড় ব্যবধানে হেরে যাওয়ায় পাকিস্তান ক্রিকেট দলকে ধুয়ে মুছে দিচ্ছে দেশটির সংবাদ মাধ্যম। পাকিস্তান জুড়ে অনেকটা হাহাকার পড়ে গেছে। তারই মাঝে বাস্তবটা তুলে ধরলেন সাবেক অধিনায়ক ইনজামাম-উল হক। এক সময়ের তুখোড় তারকা বললেন, এ সময় বাংলাদেশের ক্রিকেট যেমন অনেক এগিয়েছে, বিপরীতে কেবলই পিছিয়েছে পাকিস্তান। ‘প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ বিশ্বে ওয়ানডেতে জয়-পরাজয় থাকবে। তাই বলে এভাবে? বাংলাদেশের কাছে হারের ধরনই বলে দেয় পাকিস্তানের ক্রিকেট কোন পথে যাচ্ছে! গত ১৬ বছরে বাংলাদেশ যেখানে অনেক উন্নতি করেছে, সেখানে আমরা হাঁটছি উল্টো পথে। সত্যি বলতে, পাকিস্তান ক্রিকেটের এই অবস্থা দেখে উদ্বিগ্ন না হয়ে পারছি না।’ মুলতানে একটি ক্রিকেট একাডেমির উদ্বোধন করতে গিয়ে সংবাদ মাধ্যমকে অত্যন্ত দুঃখের সঙ্গে বলেন ৪৫ বছর বয়সী গ্রেট ইনজামাম। কথা হয় অনেক বিষয়ে। বিশ্বকাপে কেমন করল মিসবাহ-উল হক- শহীদ আফ্রিদিরা। নতুন অধিনায়ক আজহার আলিকে নিয়ে। কিন্তু সব ছাপিয়ে বড় হয়ে ওঠে বাংলাদেশের কাছে লজ্জাজনক হারের প্রসঙ্গই! প্রশ্ন একটাই, পাকিস্তানকে কিভাবে ৭৯ রানে হারিয়ে দিল বাংলাদেশ? যে বাংলাদেশকে এই কিছুদিন আগেও তুচ্ছতাচ্ছিল্য করত সবাই, সেই তাদের কাছেই এমন অসহায় আত্মসমর্পণ! কিভাবে বাংলাদেশ বদলে গেল, পাকিস্তানেরই বা কেন এই দুর্দশা? ‘১৯৯৯-এ প্রথমবার বিশ্বকাপে খেলতে নেমে আমাদের হারিয়েছিল বাংলাদেশ। সেটি ছিল অঘটন। কিন্তু এখন পরিস্থিতি ভিন্ন। ক্রিকেট নিয়ে দেশটির দীর্ঘ পরিকল্পনা ছিল। যার ফল পাচ্ছে তারা। গত বিশ্বকাপে সত্যি ভাল খেলেছে সাকিব আল হাসান-মাশরাফি বিন মর্র্তুজারা। বাস্তবতা হচ্ছে, হুট করে নয়, এই সময়ে পরিকল্পনা করে এগোনোর ফল পাচ্ছে বাংলাদেশ।’ যোগ করেন সাবেক তারকা। এমন জঘন্য হার ইনজামামকে খুব কষ্ট দিয়েছে। তবে কেবল সমালোচনায় সীমাবদ্ধ থাকেননি। উপলব্ধি করছেন বাস্তাবতা। তিনি আরও বলেন, ‘কেবল ক্রিকেটারদের দোষ দিয়ে লাভ নেই। গত ছয় বছর ধরে ঘরের মাটিতে আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলতে না পারায় আমাদের তরুণ প্রতিভা ঠিকমতো তাদের প্রস্তুত করে তুলতে পারেনি। এ জন্য ঘরের মাঠগুলোতে ভালমানের পিচও তৈরি হয়নি। এভাবে চলতে থাকলে পরিস্থিতি আরও খারাপ হবে। এটা চলতে দেয়া যায় না।’ বাস্তবতার বিচারে বাংলাদেশের কাছে সিরিজ হারলেও অবাক হবেন না ইনজামাম! পরিস্থিতি থেকে উত্তোরণের জন্য বরং পরিকল্পনা নিয়ে এগোনোর আহ্বান জানান তিনি। বলেন, ‘এই হারে অবাক হওয়ার কিছু নেই। এটা হওয়ারই কথা। আমাদের লক্ষ্য হওয়া উচিত আগামী বিশ্বকাপ। গোটা ক্রিকেট অবকাঠামোকেই ঢেলে সাজাতে হবে। খেলোয়াড় তৈরি না করে তাদের কাছে ফল চেয়ে লাভ নেই। দীর্ঘস্থায়ী ভালর জন্য ত্যাগ স্বীকার করতে হবে। এখন ক্রিকেটকে নতুন করে গড়ে তোলার সময়। এই সময়টা অপচয় করলে চলবে না।’ ২০০৯-এ লাহোরে সফরকারী শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটারদের ওপর সন্ত্রাসী হামলার জের ধরে কোন বিদেশী দল আর দেশটি সফর করেনি। পাকিস্তান তাদের দ্বিপক্ষীয় সিরিজগুলো নিরপেক্ষ ভেন্যু দুবাইয়ে খেলে আসছে। পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) ভেতরেও রয়েছে অন্তর্দ্বন্দ্ব। সবকিছু থেকেই বেরিয়ে আসতে হবে বলে মনে করেন ১৯৯২-এর বিশ্বজয়ী দলের সদস্য ইনজামাম।

প্রকাশিত : ২০ এপ্রিল ২০১৫

২০/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: