কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৫ ডিসেম্বর ২০১৬, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

ইয়েমেন থেকে দেশে ফিরলেন ৩৩৭ জন

প্রকাশিত : ১৯ এপ্রিল ২০১৫, ১২:৪৫ পি. এম.

স্টাফ রিপোর্টার ॥ ইয়েমেনে কর্মরত আরও ৩৩৭ জন বাংলাদেশী ঢাকায় পৌঁছেছেন। রবিবার ভোরে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে তাদেরকে অভ্যর্থনা জানান পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম ।

ভারতের কেরালা রাজ্য থেকে বাংলাদেশ বিমানের দুটি বিশেষ ফ্লাইটে তারা আসেন। এদের মধ্যে ১৯০ জনকে নিয়ে প্রথম ফ্লাইটটি ঢাকা পৌঁছায় ভোর সাড়ে ৪টায়। এর ১৫ মিনিটের ব্যবধানে বাকি ১৪৭ জনকে নিয়ে আসে পরের ফ্লাইটটি। এদের সবাই ‘সুস্থ’ আছেন বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম।

জানা গেছে, এর আগে ভারত সরকারের সহায়তায় নৌবাহিনীর জাহাজের মাধ্যমে ওই বাংলাদেশীদের ইয়েমেন থেকে আফ্রিকার দেশ জিবুতিতে নিরাপদ স্থানে নিয়ে যাওয়া হয়। জিবুতি থেকে ভারতীয় নৌবাহিনীর জাহাজে দলটিকে কোচি বন্দরে নিয়ে আসা হয়।

বাংলাদেশীদের ইয়েমেনের বিভিন্ন শহর থেকে আফ্রিকার দেশ জিবুতিতে নিয়ে আসা এবং জিবুতি থেকে বাংলাদেশে পৌঁছানো পর্যন্ত সব খরচ বাংলাদেশ সরকার বহন করছে। এমনকি তাদের খাওয়া খরচ এবং বিভিন্ন স্থানে রাতযাপনের খরচও বাংলাদেশ সরকার বহন করছে।

সর্বশেষ প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, কয়েক দফায় ৪৯৬ জন বাংলাদেশীকে জিবুতিতে নিরাপদ স্থানে স্থানান্তরিত করা হয়েছে, যার মধ্যে ৪৭৬ জন ভারতীয় নৌবাহিনীর জাহাজ এবং ২০ জন এয়ার ইন্ডিয়ার মাধ্যমে ইয়েমেন থেকে জিবুতিতে পৌঁছান। সেখান থেকে ভারত হয়ে বাংলাদেশে আনা হয়।

উল্লেখ্য, ইয়েমেন ও জিবুতিতে কোনো মিশন নেই বাংলাদেশের। তবে ইয়েমেন থেকে উদ্ধার অভিযান সমন্বয়ের জন্য প্রতিবেশী আফ্রিকার ছোট দেশ জিবুতিতে একটি কন্ট্রোল সেল চালু করেছে ঢাকা।

বাংলাদেশ সরকারের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, ইয়েমেনে ৫০০ জনের কিছু বেশি বাংলাদেশী রয়েছেন।

তবে অপর একটি সূত্রে জানা গেছে, ইয়েমেনে প্রায় ৩ হাজার বাংলাদেশী কর্মরত। এরা সবাই তেলক্ষেত্র, মাছ ধরার জাল তৈরির কারখানা, হাসপাতাল পরিষ্কারক, সমুদ্রে মাছ ধরাসহ বিভিন্ন পেশার সঙ্গে জড়িত।

প্রকাশিত : ১৯ এপ্রিল ২০১৫, ১২:৪৫ পি. এম.

১৯/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: