কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

রবির টাওয়ারে আগুন ॥ তিন জেলার নেটওয়ার্ক বিচ্ছিন্ন

প্রকাশিত : ১৯ এপ্রিল ২০১৫

নিজস্ব সংবাদদাতা, নোয়াখালী, ১৮ এপ্রিল ॥ নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলাস্থ বৃহত্তর বাণিজ্য কেন্দ্র চৌমুহনীতে রবি টাওয়ারে অগ্নিকা-ের ঘটনা ঘটেছে। এতে বৃহত্তর নোয়াখালীর লক্ষ্মীপুর, নোয়াখালী ও ফেনী জেলার কয়েক লাখ রবি গ্রাহকের নেটওয়ার্ক বিচ্ছিন্ন রয়েছে। শনিবার সকাল ১০টার দিকে ডালিয়া সুপার মার্কেটের ৪র্থ তলায় বৈদ্যুতিক শটসার্কিট থেকে এ অগ্নিকা-ের ঘটনা ঘটে।

এতে রবি টাওয়ার ছাড়াও ওই মার্কেটের ৮-১০টি প্রতিষ্ঠানের ৫টি সিসি ক্যামেরা, ৫টি কম্পিউটার পিসি ১৫০ থেকে ১৮০টি বৈদ্যুতিক ব্লাপ ও বেশ কয়েকটি বৈদ্যুতিক পাখা বিস্ফোরণ ঘটে বিদ্যুতায়িত হয়। এতে প্রায় পাঁচ লাখ টাকার ক্ষতি হয় বলে জানিয়েছে ক্ষতিগ্রস্তরা। তবে রবি কার্যালয়ের কি পরিমাণ ক্ষতি হয়েছে কেউ নিশ্চিত করতে পারেনি।

প্রত্যক্ষদর্শী ও ডালিয়া সুপার মার্কেট সমবায় সমিতির সাধারণ সম্পাদক ফিরোজ খান বলেন, সকাল ১০টার দিকে হঠাৎ মার্কেটের ৪র্থ তলায় অবস্থিত রবি টাওয়ারে আগুনের লেলিহান দেখা যায়। তাৎক্ষণিক চৌমুহনী ফায়ার স্টেশনে খবর দেয়া হলে দ্রুত একটি ইউনিট ঘটনাস্থলে এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। ফলে আগুন ভয়াবহ রূপ ধারণ করতে পারেনি।

তিনি বলেন, রবির এই টাওয়ার থেকে বৃহত্তর নোয়াখালীর লক্ষ্মীপুর, নোয়াখালী ও ফেনী জেলায় নেটওয়ার্ক নিয়ন্ত্রণ করা। অগ্নিকা-ের কারণে টেকনিক্যাল সমস্যা দেখা দেয়ায় তিন জেলায় রবি গ্রাহকরা বিপাকে পড়েছে। বন্ধ রয়েছে রবি সংযোগ। এছাড়া রবির ওই টাওয়ারটি সম্পূর্ণ শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত হওয়ায় এসি থেকে লাইন থেকে বৈদ্যুতিক শটসার্কিট হওয়ায় পার্শ্ববর্তী সার্কেস কম্পিউটারের গোডাউনসহ মার্কেটের ৮-১০টি প্রতিষ্ঠানের ৫টি সিসি ক্যামেরা, ৫টি কম্পিউটার পিসি, ১৫০ থেকে ১৮০টি বৈদ্যুতিক ব্লাপ ও পাখা বিস্ফোরণ ঘটে বিদ্যুতায়িত হয়। অগ্নিকা-ের ঘটনায় রবি টেকনোলজি হাউজ ছাড়াও মার্কেটের ব্যবসায়ীদের পাঁচ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে। নেটওয়ার্ক বিচ্ছিন্ন থাকায় রবি’র কর্মকর্তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করা যায়নি।

সিলেটে তুচ্ছ ঘটনায় পরিবহন শ্রমিকদের সংঘর্ষ ॥ আহত ৭

স্টাফ রিপোর্টার, সিলেট অফিস ॥ শনিবার দুপুর দেড়টায় নগরীর মদিনা মার্কেট এলাকায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে সিএনজি-অটোরিক্সা ও মাইক্রোবাস শ্রমিকদের মধ্যে সংঘর্ঘে ৭ জন আহত হয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। জানা যায়, শনিবার বেলা ১১টায় ত্রিমুখী এলাকায় সুবিদবাজার মাইক্রোবাস স্ট্যান্ডের সদস্য আব্দুস সাত্তার ও টুকেরবাজার সিএনজি অটোরিক্সা স্ট্যান্ডের সদস্য আলমগীরের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। আব্দুস সাত্তার সুবিদবাজার মাইক্রোবাস স্ট্যান্ডে এসে বিষয়টি ওই স্ট্যান্ডের সহ-সভাপতি কদরিছ আলীকে অবগত করেন। এ সময় কদরিছ আলীর নেতৃত্বে এক দল শ্রমিক মদিনা মার্কেট সিএনজি-অটোরিক্সা ষ্ট্যান্ডে গিয়ে স্ট্যান্ডের সভাপতি আব্দুল কাদিরকে বিষয়টি অবগত করেন। কাদির আলমগীর মদিনা মার্কেট স্ট্যান্ডের সদস্য নয় বলে জবাব দিলে তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি শুরু হয়। এক পর্যায়ে উভয় পক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এ নিয়ে উত্তেজনা বিরাজ করছে।

মুক্তিযোদ্ধাকে চিকিৎসার অভাবে মরতে হবে না ॥ মোজাম্মেল

নিজস্ব সংবাদদাতা, ঝিনাইদহ, ১৮ এপ্রিল ॥ কোন মুক্তিযোদ্ধাকে আর বিনা চিকিৎসায় মরতে হবে না বলে আশা প্রকাশ করেছেন মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক মন্ত্রী আ.ক.ম মোজাম্মেল হক। শনিবার বিকেলে ঝিনাইদহ মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সে মুক্তিযোদ্ধাদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে তিনি একথা বলেন। মন্ত্রী বলেন, জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের হাসপাতালগুলোতে মুক্তিযোদ্ধাদের বিনা টাকায় চিকিৎসা সেবা দেয়া হবে। আর কোন বীর সৈনিককে বিনা চিকিৎসায় মরতে হবে না। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মুক্তিযোদ্ধাদের সুবিধার্থে ভাতা দ্বিগুণ করবেন। জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মকবুল হোসেনের সভাপতিত্বে ঝিনাইদহ জেলা প্রশাসক শফিকুল ইসলাম, জেলা পরিষদ প্রশাসক এ্যাড. আব্দুল ওয়াহেদ জোয়ার্দ্দারসহ জেলার ও উপজেলার মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডারবৃন্দ বক্তব্য রাখেন।

প্রকাশিত : ১৯ এপ্রিল ২০১৫

১৯/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: