কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

লিবীয় উপকূলে জাহাজ ডুবে চার শ’ অভিবাসীর মৃত্যু

প্রকাশিত : ১৬ এপ্রিল ২০১৫
  • ১শ’ ৪৪ জন উদ্ধার

লিবীয় উপকূলের অদূরে রবিবার একটি জাহাজ ডুবে ৪শ’ অবৈধ অভিবাসী প্রাণ হারিয়েছে। দুর্ঘটনায় বেঁচে যাওয়া আরোহীদের ইতালি নিয়ে যাওয়া হয়েছে। সোমবার ইতালির উপকূলরক্ষীরা জানান, তাঁরা ডুবে যাওয়া জাহাজ থেকে ১শ’ ৪৪ জনকে উদ্ধার করেছেন। এছাড়া উদ্ধার করা হয়েছে ৯টি মৃতদেহ। জাহাজটি ডুবে যাওয়ার সময় সেখানে ৫শ’ থেকে সাড়ে ৫শ’ যাত্রী ছিল। খবর এএফপির।

ইন্টারন্যাশনাল অর্গানাইজেশন ফর মাইগ্রেশন ও দাতব্য সংস্থা সেভ দ্য চিলড্রেন জানিয়েছে, মঙ্গলবার সকালে দুর্ঘটনাকবলিত জাহাজটির উদ্ধার করা আরোহীদের ইতালির দক্ষিণাঞ্চলীয় রেগিও ক্যালাব্রিয়ায় পৌঁছে দেয়া হয়েছে। জীবিতদের উদ্ধৃতি দিয়ে সেভ দ্য চিলড্রেন এক বিবৃতিতে জানায়, ডুবে যাওয়া জাহাজের ভেতর প্রায় ৪শ’ মৃতদেহ রয়েছে। এটি লিবিয়া উপকূল ছেড়ে আসার ২৪ ঘণ্টা পর এ দুর্ঘটনা ঘটে।

দুর্ঘটনার কারণ খতিয়ে দেখা হচ্ছে। সম্প্রতি ভূমধ্যসাগরের আবহাওয়া ভাল থাকায় লিবিয়া থেকে অবৈধভাবে ইউরোপের এই দেশটিতে অভিবাসী পাড়ি দেয়ার সংখ্যা বহুগুণে বেড়েছে। লিবিয়ায় ক্রমবর্ধমান সহিংসতা ও অস্থিতিশীল পরিস্থিতি মূলত এর জন্য দায়ী। সহিংসতা ও রাজনৈতিক অস্থিরতা দেশটির বাসিন্দাদের ইউরোপে রাজনৈতিক আশ্রয় চাওয়ার সুযোগ সৃষ্টি করেছে। ফলে বিপুলসংখ্যক লোক একে ইউরোপে আশ্রয়ের সুযোগ হিসেবে গ্রহণ করছে। ইতালি কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ২০১৫ সালে ১৫ হাজারেরও বেশি লোক অবৈধভাবে ইতালিতে প্রবেশ করেছে। গত বছরের শুধু এপ্রিল মাসেই ১৫ হাজার লোক ইতালিতে ঢোকে। এছাড়াও জুন থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত প্রতি মাসে গড়ে ২৫ হাজার লোক ইউরোপের দেশটিতে অবৈধভাবে পাড়ি জমায়। ইতালির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় আঞ্চলিক কর্তৃপক্ষগুলোকে জরুরী ভিত্তিতে ৬ হাজার ৫শ’ অবৈধ অভিবাসীর জন্য বাসস্থানের ব্যবস্থার নির্দেশ দিয়েছে। তাদের এই পদক্ষেপকে বিরোধী দল সমালোচনা করে বলেছে, পদক্ষেপটি অবৈধ অভিবাসীদের সমুদ্রপথে বিপজ্জনকভাবে ইতালি প্রবেশে উৎসাহিত করবে।

প্রকাশিত : ১৬ এপ্রিল ২০১৫

১৬/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: