মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

আবারও এ্যাটলেটিকোয় আটকে গেল রিয়াল

প্রকাশিত : ১৬ এপ্রিল ২০১৫
  • চ্যাম্পিয়ন্স লীগে দুই মাদ্রিদের দ্বৈরথ ড্র, সেমির টিকেটের ফয়সালা হবে কোয়ার্টার ফাইনালের দ্বিতীয় লেগে, সেমির পথে এগিয়ে জুভেন্টাস

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ এ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের বিরুদ্ধে জয় যেন ভুলেই গেছে রিয়াল মাদ্রিদ। চলমান মৌসুমে মাদ্রিদ ডার্বিতে মোট সাতবার নগর প্রতিদ্বন্দ্বীদের বিরুদ্ধে খেলেছে ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নরা। কিন্তু জয় নেই একটিতেও! সর্বশেষ মঙ্গলবার রাতে উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লীগ ফুটবলের কোয়ার্টার ফাইনালের প্রথম লেগের ম্যাচটিও গোলশূন্য ড্র হয়েছে। ভিসেন্টে ক্যালডেরনে ড্র নিয়ে ফেরায় অবশ্য কিছুটা সুবিধাজনক অবস্থায় আছে কার্লো আনচেলত্তির দল। আগামী ২২ এপ্রিল নিজেদের মাঠ সান্টিয়াগো বার্নাব্যুতে দ্বিতীয় লেগের ম্যাচে এ্যাটলেটিকোর মুখোমুখি হবে রিয়াল। ওই ম্যাচেই ফয়সালা হবে কোন দল সেমির টিকেট পাবে।

এ্যাটলেটিকোর বিরুদ্ধে গেরো খুলতে শুরু থেকেই স্বাগতিকদের উপর চড়াও হয়ে খেলতে থাকে অতিথি রিয়াল। কিন্তু গোলরক্ষকের দৃঢ়তায় গ্যালাক্টিকোদের বিরুদ্ধে সাফল্য ধরে রেখেছে দিয়াগো সিমিওনের দল। ম্যাচের তৃতীয় মিনিটেই এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ এসেছিল আসরের বর্তমান চ্যাম্পিয়নদের। কিন্তু গ্যারেথ বেলের শট রুখে দেন স্বাগতিক গোলরক্ষক। ৩২ মিনিটে আবারও বেলকে হতাশ করেন গোলরক্ষক ওবলাক। ২৫ গজ দূর থেকে ওয়েলস উইঙ্গারের আচমকা শট ফিরিয়ে দেন তিনি। পাঁচ মিনিট পর ফের এ্যাটলেটিকোর ত্রাতা সেøাভেনিয়ার গোলরক্ষক। বিশ্বকাপের গোল্ডেন বুট বিজয়ী জেমস রড্রিগুয়েজের দূরপাল্লার শট তিনি রুখে দেন। ৪৩ মিনিটে সংঘবদ্ধ আক্রমণ থেকে রড্রিগুয়েজের শট অসাধারণ দক্ষতায় পাঞ্চ করে দলকে রক্ষা করেন এ্যাটলেটিকো গোলরক্ষক। পরের মিনিটে দারুণ একটি সুযোগ হাতছাড়া করেন স্ট্রাইকার করিম বেনজেমা। ডি বক্সে ফাঁকা জায়গায় থেকে হেড করেও লক্ষ্যভেদ করতে পারেননি ফরাসী তারকা। বিরতির পর ৪৮ মিনিটে ম্যাচে প্রথম সুযোগ পায় এ্যাটলেটিকো। জুয়ানফ্রানের ক্রসে আরডা টুরানের হেড লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়। দ্বিতীয়ার্ধে নিজেদের রক্ষণ অনেকটাই গুছিয়ে নেয় স্প্যানিশ লা লিগার বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। শেষ দিকে রিয়ালের উপর চড়াও হয়েও খেলতে থাকেন টোরেস, মিরান্ডা, গাবিরা। কিন্তু অতিথি গোলরক্ষক ও অধিনায়ক ইকার ক্যাসিয়াস রিয়ালকে বিপদের হাত থেকে রক্ষা করেন। শেষ পর্যন্ত অমীমাংসিতভাবেই শেষ হয় দু’দলের আরেকটি দ্বৈরথ।

ম্যাচ শেষে রিয়াল মাদ্রিদ কোচ কার্লো আনচেলত্তি বলেন, আমি মনে করি, আমাদের প্রথমার্ধের পারফর্মেন্সের কারণে গোলশূন্য ফলের চেয়ে ভাল কিছু প্রাপ্য ছিল। প্রথমার্ধে অসাধারণ চার সেভ করে রিয়ালকে গোলবঞ্চিত করেন এ্যাটলেটিকোর সেøাভেনিয়ার গোলরক্ষক ইয়ান ওবলাক। ম্যাচ শেষে প্রতিপক্ষ এই গোলরক্ষকের প্রশংসা করে রিয়াল কোচ বলেন, আমরা প্রথমার্ধে প্রত্যাশামতো আক্রমণ করতে পেরেছি। কিন্তু ওবলাক দারুণ পারফর্ম করেছে। রিয়াল অধিনায়ক ক্যাসিয়াস বলেন, আমরা অসাধারণ ওবলাকের মুখোমুখি হয়েছি।

এ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ কোচ দিয়াগো সিমিওনে প্রথম লেগ ড্র করেও সেমির স্বপ্ন দেখছেন। ম্যাচ শেষে তিনি বলেন, এই ফলের পর লড়াইটা উন্মুক্ত। তবে আমরা পরের লেগে সেমিফাইনালে খেলার উদ্দেশ্যেই লড়ব।

ম্যাচে রিয়াল মাদ্রিদ ডিফেন্ডার দানি কারভাজাল নিজেকে সৌভাগ্যবান ভাবতেই পারেন। এ্যাটলেটিকো ফরোয়ার্ড মারিও মানদুকিচকে ঘুষি মেরেও লাল কার্ড পাননি তিনি ঘটনাটি রেফারির চোখ এড়িয়ে যাওয়ায়। ম্যাচের দ্বিতীয়ার্ধে কারভাজাল ও মানদুকিচের বল দখলের লড়াইয়ের এক পর্যায়ে ঘটনাটি ঘটে। টিভি রিপ্লেতে দেখা যায়, কারভাজাল এই লড়াইয়ের এক পর্যায়ে স্পষ্টভাবেই মানদুকিচকে ঘুষি মারেন। তবে বিষয়টি রেফারির চোখ এড়িয়ে যায়। স্প্যানিশ সংবাদ মাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, কারভাজাল ওই সময় মানদুকিচের বাহুতে কামড় দেয়ারও চেষ্টা করেন! অবশ্য সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমের ভিডিও ফুটেজ দেখে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যায়নি। আর অভিযুক্ত কারভাজাল কামড় দেয়ার চেষ্টার বিষয়টি অস্বীকার করেছেন।

উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লীগ ফুটবলে সেমিফাইনালের পথে এক পা দিয়ে রেখেছে জুভেন্টাস। মঙ্গলবার রাতে কোয়ার্টার ফাইনালের প্রথম লেগের ম্যাচে ইতালিয়ান চ্যাম্পিয়নরা ১-০ গোলে হারায় ফরাসী ক্লাব মোনাকোকে। টুরিনের জুভেন্টাস স্টেডিয়ামে জুভেন্টাসের হয়ে পেনাল্টি থেকে জয়সূচক গোল করেন আর্টুরো ভিদাল। এই জয়ে এগিয়ে থাকলেও শেষ আটের দ্বিতীয় লেগের ম্যাচটি হবে মোনাকোর মাঠে।

প্রকাশিত : ১৬ এপ্রিল ২০১৫

১৬/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: