কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৩ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

কিশোরগঞ্জের ৫ জনের বিরুদ্ধে ফরমাল চার্জ দাখিলের নির্দেশ

প্রকাশিত : ১৬ এপ্রিল ২০১৫
  • যুদ্ধাপরাধী বিচার

স্টাফ রিপোর্টার ॥ আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের রায় নিয়ে বিরুপ মন্তব্য করা ও হরতাল ডাকায় আইনজীবী তাজুল ইসলামসহ তিন জামায়াত ও দুই শিবির নেতার আদালত অবমাননার অভিযোগের শুনানি শেষ হয়েছে। আদেশের জন্য ২০ এপ্রিল দিন নির্ধারণ করা হয়েছে। মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগে কিশোরগঞ্জের পাঁচজনের বিরুদ্ধে ১০ মে আনুষ্ঠানিক অভিযোগ (ফরমাল চার্জ) দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন। জাতীয় পার্টির নেতা সাবেক সংসদ সদস্য সাখাওয়াত হোসেনের বিরুদ্ধে ১৭ মে তদন্তের অগ্রগতি প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। পলাতক সৈয়দ মোঃ হাসান আলী ওরফে হাছেন আলীর বিরুদ্ধে ও চাঁপাইনবাবগঞ্জের মাহিদুর-চুটুর বিরুদ্ধে যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শুরু করেছেন প্রসিকিউশন। হাসানের বিরুদ্ধে যুক্তিতর্ক রবিবার পর্যন্ত এবং মাহিদুর-চুটুর বিরুদ্ধে যুক্তিতর্ক সোমবার পর্যন্ত মুলতবি রাখা হয়েছে। অন্যদিকে, পটুয়াখালীর ফোরকান মল্লিকের বিরুদ্ধে তদন্ত কর্মকর্তা সত্যরঞ্জন রায়কে আসামিপক্ষের জেরা পিছিয়ে আগামী রবিবার নির্ধারণ করা হয়েছে। বুধবার আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১ ও ২ এ আদেশগুলো প্রদান করেছেন। জামায়াত নেতাদের তাজুল ইসলামসহ তিন জামায়াত নেতা ও দুই শিবির নেতার আদালত অবমাননার অভিযোগ শুনানি শেষ হয়েছে। আগামী ২০ এপ্রিল আদেশের দিন ধার্য করেছেন ট্রাইব্যুনাল। চেয়ারম্যান বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিমের নেতৃত্বে তিন সদস্য বিশিষ্ট আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১ এ আদেশ প্রদান করেছেন। ট্রাইব্যুনালে অন্য দুই সদস্য ছিলেন বিাচরপতি মোঃ মুজিবুর রহমান মিয়া ও বিচারপতি মোঃ শাহিনুর ইসলাম।

আদালত অবমাননায় অভিযুক্ত জামায়াত-শিবির নেতারা হচ্ছেনÑ জামায়াতের ভারপ্রাপ্ত আমির মকবুল আহমেদ, ভারপ্রাপ্ত নায়েবে আমির মুজিবুর রহমান ও ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারি জেনারেল ড. শফিকুর রহমান এবং ছাত্রশিবিরের সভাপতি আব্দুল জব্বার ও সাধারণ সম্পাদক মোঃ আতিকুর রহমান।

বুধবার জামায়াত-শিবির নেতাদের পক্ষে শো’কজ নোটিসের জবাব দিয়ে শুনানি করেন তাদের আইনজীবী মশিউজ্জামান ও তারিকুজ্জামান। প্রসিকিউশনের পক্ষে উপস্থিত ছিলেন প্রসিকিউটর জেয়াদ আল মালুম ও ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজ। ২৮ জানুয়ারি রায় নিয়ে বিরূপ মন্তব্য করায় আদালত অবমাননার অভিযোগে ট্রাইব্যুনালের শো’কজ নোটিসের জবাবে নিঃশর্ত ক্ষমা প্রার্থনা করেন জামায়াত নেতা তাজুল ইসলাম।

কিশোরগঞ্জের ৫ রাজাকার ॥ একাত্তরের মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগে কিশোরগঞ্জের পাঁচজনের বিরুদ্ধে ১০ মে আনুষ্ঠানিক অভিযোগ দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন ট্রাইব্যুনাল। চেয়ারম্যান বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিমের নেতৃত্বে তিন সদস্য বিশিষ্ট আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১ বুধবার এ আদেশ প্রদান করেছেন। একটি মামলায় ওই পাঁচ আসামি হচ্ছেন করিমগঞ্জের দুই সহোদর সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত ক্যাপ্টেন মোঃ নাসিরউদ্দিন আহমেদ ও কিশোরগঞ্জ জেলা বারের আইনজীবী মোঃ শামসুদ্দিন আহমেদ এবং কিশোরগঞ্জের রাজাকার কমান্ডার গাজী আব্দুল মান্নান, হাফিজ উদ্দিন ও আজহারুল ইসলাম। পাঁচজনের বিরুদ্ধেই ট্রাইব্যুনাল-১ গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করলেও এ পর্যন্ত কেবলমাত্র গ্রেফতার হয়েছেন আইনজীবী শামসুদ্দিন আহম্মেদ।

বুধবার এ মামলায় তদন্তের চূড়ান্ত প্রতিবেদন দাখিল করেন প্রসিকিউটর সুলতান মাহমুদ সিমন। গত ১৩ এপ্রিল এ প্রতিবেদন পেয়েছেন জানিয়ে তিনি যাচাই-বাছাই করে আনুষ্ঠানিক অভিযোগ দাখিলের জন্য সময়ের আবেদন জানান। আসামিপক্ষের আইনজীবী ব্যারিস্টার আতিকুর রহমান ট্রাইব্যুনালে উপস্থিত ছিলেন।

প্রকাশিত : ১৬ এপ্রিল ২০১৫

১৬/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: