হালকা কুয়াশা, তাপমাত্রা ১৮.৯ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

স্বাস্থ্য সেবায় বাংলাদেশ উন্নয়নশীল বিশ্বের মডেল ॥ বার্নিকাট

প্রকাশিত : ১৪ এপ্রিল ২০১৫
  • বাণিজ্য বৃদ্ধিতে যুক্তরাষ্ট্রের আগ্রহ

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ তৈরি পোশাক খাত নিয়ে বাংলাদেশের নেয়া গৃহীত পদক্ষেপে সন্তোষ প্রকাশের পাশাপাশি বাণিজ্য বৃদ্ধিতে আগ্রহ প্রকাশ করেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। একইসঙ্গে বাংলাদেশের গ্রামীণ স্বাস্থ্যসেবার উন্নয়নের ভূয়সী প্রশংসা করে যুক্তরাষ্ট্র বলেছে, স্বাস্থ্যসেবার প্রসারে বাংলাদেশ আজ বিশ্বব্যাপী পথপ্রদর্শকের ভূমিকা পালন করছে। স্বাস্থ্যসেবায় উন্নয়নশীল বিশ্বের কাছে বাংলাদেশ একটি মডেল। এছাড়া আসন্ন তিন সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে অনুষ্ঠিত হবে বলেও যুক্তরাষ্ট্র সরকারের পক্ষ থেকে আশাবাদ ব্যক্ত করা হয়েছে।

সোমবার সচিবালয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ এবং স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিমের সঙ্গে পৃথক বৈঠকে বাংলাদেশে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত মার্সিয়া ব্লুম বার্নিকেট এমন আশাবাদ ব্যক্ত করেন। বৈঠকে মার্কিন রাষ্ট্রদূত সরকারের এই দুই প্রভাবশালী মন্ত্রীর সঙ্গে বিভিন্ন ইস্যুতেও কথা বলেন।

বাণিজ্যমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক ॥ বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদের সঙ্গে ঘণ্টাব্যাপী বৈঠকে মার্কিন রাষ্ট্রদূত মার্সিয়া ব্লুম বার্নিকাট তৈরি পোশাক খাত ছাড়াও বিভিন্ন ইস্যুতে কথা বলেন। এ সময় তৈরি পোশাক খাত নিয়ে বাংলাদেশের নেয়া গৃহীত পদক্ষেপে যুক্তরাষ্ট্র সরকারের সন্তোষ প্রকাশের কথাও জানান বার্নিকাট।

বৈঠক শেষে বাণিজ্যমন্ত্রী সাংবাদিকদের জানান, অপ্রত্যাশিত রানা প্লাজা দুর্ঘটনার পর সরকারের নেয়া গৃহীত বিভিন্ন পদক্ষেপ এবং অর্জিত সাফল্যে ইউনাইটেড স্টেট ট্রেড রিপ্রেজেনটেটিভ (ইউএসটিআর) সন্তোষ প্রকাশ করেছে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রসহ ক্রেতাগোষ্ঠীর দেয়া ১৬ দফা শর্ত পূরণের অগ্রগতিতে যুক্তরাষ্ট্র সন্তোষ্ট। তিনি বলেন, এই দেশটি বাংলাদেশের সঙ্গে বাণিজ্য বৃদ্ধিতে আগ্রহী। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে বাংলাদেশী পণ্যের রফতানি বৃদ্ধি পাচ্ছে। এক্ষেত্রে চলমান সমস্যাগুলো সমাধানের বিষয়ে উভয় দেশ পদক্ষেপ গ্রহণ করতে সম্মত। তিনি বলেন, বাংলাদেশের রফতানি বাণিজ্য বেড়ে চলছে। বিগত তিন মাসের রাজনৈতিক অস্থিরতায় কোন কারখানা বন্ধ হয়নি। জিডিপির প্রবৃদ্ধি ৬ ভাগের বেশি থাকবে।

তোফায়েল আহমেদ বলেন, বাংলাদেশ সরকার তৈরি পোশাক খাতের শ্রমিকদের কর্মবান্ধব ও নিরাপদ কাজের পরিবেশ সৃষ্টি করতে সক্ষম হয়েছে। শুল্কমুক্ত সুবিধায় ফায়ার সেফটি ডোর আমদানির সুযোগ দেয়া হয়েছে। এছাড়া কারখানার বিল্ডিং সেফটি, ফায়ার সেফটি নিশ্চিত করা হয়েছে। সরকার সফলতার সঙ্গে ক্রেতাগোষ্ঠীর দেয়া এ্যাকশন প্ল্যান বাস্তবায়ন করেছে। ক্রেতাদের সংগঠন এ্যাকোর্ড এবং এ্যালায়েন্স এ পর্যন্ত প্রায় আড়াই হাজার কারখানা বিল্ডিং পরিদর্শন করেছে। এর মধ্যে মাত্র ২৯টি কারখানা ভবন ব্যবহার অযোগ্য ঘোষিত হয়েছে, সেগুলো তাৎক্ষণিকভাবে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। আনুপাতিক হারে এর সংখ্যা শতকরা দু’ভাগের কম। আন্তর্জাতিকভাবে শতকরা দু’ভাগের বেশি গ্রহণযোগ্য।

স্বাস্থ্যমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক ॥ পরে সচিবালয়ে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিমের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাত করেন মার্কিন রাষ্ট্রদূত মার্সিয়া ব্লুম বার্নিকেট। বৈঠকের শুরুতেই তাঁরা বাংলা নববর্ষের শুভেচ্ছা বিনিময় করেন। বৈঠকে গ্রামীণ স্বাস্থ্যসেবাসহ দেশের সামগ্রিক স্বাস্থ্য ব্যবস্থা নিয়ে আলোচনার সময় এ খাতে বাংলাদেশের বিশাল অগ্রগতি বিশেষ করে সরকারের গ্রামীণ স্বাস্থ্যসেবার উন্নয়নে গৃহীত পদক্ষেপের ভূয়সী প্রশংসা করেন। একইসঙ্গে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সরকার বাংলাদেশের স্বাস্থ্য খাতে বিভিন্ন সহযোগিতার যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে, স্বাস্থ্যমন্ত্রী সে বিষয়ে অবহিত করেন বার্নিকেট।

সাক্ষাতকালে মার্কিন রাষ্ট্রদূত বাংলাদেশের গ্রামীণ স্বাস্থ্যসেবার প্রশংসা করে বলেন, তৃণমূল পর্যায় পর্যন্ত স্বাস্থ্যসেবার প্রসারে বাংলাদেশ আজ বিশ্বব্যাপী পথপ্রদর্শকের ভূমিকা পালন করছে। স্বাস্থ্যসেবায় বাংলাদেশ যেসব পদক্ষেপ নিয়েছে তা উন্নয়নশীল বিশ্বের কাছে মডেল হিসেবে দাঁড়িয়েছে। তিনি আরও বলেন, শিশু ও গর্ভকালীন মাতৃমৃত্যুর হার কমিয়ে আনার ক্ষেত্রে বাংলাদেশ এশিয়ার অন্যান্য দেশের তুলনায় এগিয়ে রয়েছে।

প্রকাশিত : ১৪ এপ্রিল ২০১৫

১৪/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: