মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

লীগ কাপে চ্যাম্পিয়ন পিএসজি

প্রকাশিত : ১৩ এপ্রিল ২০১৫
  • বাস্তিয়াকে উড়িয়ে পঞ্চম শিরোপা লরেন্ট ব্লাঙ্কের দলের

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ নিজেদের দাপট অব্যাহত রেখেছে প্যারিস সেইন্ট জার্মেই (পিএসজি)। শনিবার বাস্তিয়াকে ৪-০ গোলে বিধ্বস্ত করে লীগ কাপের শিরোপা অক্ষুণœ রেখেছে লরেন্ট ব্লাঙ্কের দল। সেইসঙ্গে চলতি মৌসুমে চার শিরোপা জয়ের স্বপ্নও বাঁচিয়ে রাখল পিএসজি।

১৯৯৫ সালের মতোই প্রথমার্ধ যেমন ছিল সুইডিশ তারকার দখলে, দ্বিতীয়ার্ধ ঠিক তেমনিভাবে নিজের করে নিয়েছিলেন উরুগুয়ের এডিনসন কাভানি। আর এই দুই তারকার দুটি করে গোলেই লীগ ওয়ান চ্যাম্পিয়নদের শিরোপা নিশ্চিত হয়। আগামী বুধবারই উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লীগে মাঠে নামবে পিএসজি। তার আগে দুর্দান্ত জয়ের ফলে চ্যাম্পিয়ন্স লীগের কোয়ার্টার ফাইনালে বার্সিলোনার বিপক্ষে ফেবারিট হিসেবেই মাঠে নামবে লরেন্ট ব্লাঙ্কের শিষ্যরা। তাছাড়া আগামী মাসেই ফ্রেঞ্চ কাপের ফাইনাল। যেখানে তাদের প্রতিপক্ষ অক্সেরে। এই জয় সে সেই ম্যাচের জন্য অতিরিক্ত আত্মবিশ্বাস যোগাবে তা অনুমিতই।

লীগ কাপই পিএসজির নতুন মৌসুমের প্রথম শিরোপা। আর এই শিরোপা জয়ের পর উচ্ছ্বাসের জোয়ারে ভাসছে পিএসজি শিবির। চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পরই ক্লাবের সভাপাতি নাসির আল-খেলাফি ফ্রেঞ্চ-২ টেলিভিশনকে দেয়া এক সাক্ষাতকারে বলেন, ‘এটা আমাদের প্রথম শিরোপা। আমাদের প্রথম লক্ষ্য পূরণ হয়েছে। এখন আমরা দারুণ খুশি। আমরা বেশি খুশি এ জন্য যে, নতুন করে দলে কোন ইনজুরি নেই। এখন আমরা বার্সিলোনার বিপক্ষে লড়াইয়ের জন্য পুরোপুরি প্রস্তুত।’ তবে স্প্যানিশ জায়ান্ট বার্সিলোনার বিপক্ষে দলের সেরা তারকা জ¬াতান ইব্রাহিমোভিচকে পাচ্ছে না পিএসজি। মূলত চেলসির বিপক্ষে শেষ ষোলোর লড়াইয়ে হলুদ কার্ড পাওয়ার কারণে ন্যুক্যাম্পে দর্শক হয়ে ম্যাচ উপভোগ করতে হবে ইব্রাকে। এই ইব্রা যে পিএসজির জন্য অপরিহার্য সেটা আবারও প্রমাণ করলেন এদিন।

বাস্তিয়ার বিপক্ষে ফাইনালে পিএসজিকে এগিয়ে দিতে সুইডিশ তারকার সময় লেগেছে মাত্র ২১ মিনিট। বাস্তিয়ার ডিফেন্ডার সেবাস্টিন স্কুইলাসি ডি বক্সের ভেতরে এজেকুয়েল লাভেজ্জিকে ফেলে পেনাল্টির নির্দেশ দেন রেফারি। আর সেই স্পট কিক থেকেই দুর্দান্ত গোল করে দলকে এগিয়ে দেন তিনি। বিরতির ঠিক পূর্ব মুহূর্তে আবারও গোল করেন এই সুইডিশ তারকা। এর ফলে শেষ পাঁচ ম্যাচে নিজের দশম গোল পূর্ণ করেন সাবেক বার্সিলোনার এই সুইডিশ ফরোয়ার্ড। ম্যাথু পেবার্নেসের বাজে হেডের সুযোগে বল পেয়ে প্রথমার্ধের ৪১ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন ইব্রাহিমোভিচ।

দ্বিতীয়ার্ধের ৮০ মিনিটে সার্জে অরিরের ক্রস থেকে অসাধারণ হেডের সাহায্যে দলের জয় নিশ্চিত করেন উরুগুয়ের স্ট্রাইকার কাভানি। ইনজুরি টাইমে বদলি খেলোয়াড় কাভানি মৌসুমের ২০তম গোলের মাধ্যমে দলের চতুর্থ গোল পূর্ণ করেন। এর মধ্য দিয়ে লীগ টেবিলের ১৪তম স্থানে থাকা বাস্তিয়ার বিপক্ষে বড় জয় নিশ্চিত হয় পিএসজির। সেইসঙ্গে পঞ্চমবারের মতো লীগ কাপের শিরোপা জয় করে পিএসজি। এর আগে ১৯৯৫, ১৯৯৮, ২০০৮ এবং ২০১৪ সালে লীগ কাপে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করেছিল পিএসজি।

প্রকাশিত : ১৩ এপ্রিল ২০১৫

১৩/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: