কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৩ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

যৌতুক না পেয়ে স্ত্রীকে কুপিয়েছে পাষণ্ড স্বামী

প্রকাশিত : ১৩ এপ্রিল ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী ॥ বাম হাতের কনুইয়ের ওপর হাসুয়ার আঘাতের গভীর ক্ষত। শরীরের অন্যান্য স্থানেও আঘাতের চিহ্ন। রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ওসিসিতে যন্ত্রণায় কাতরাচ্ছেন গৃহবধূ শেফালী। যৌতুকলোভী স্বামীর নির্যাতনে তার এ অবস্থা। ১৪ বছরের বিবাহিত জীবনে সর্বশেষ স্বামীর হাতে গত শুক্রবার নির্মম নির্যাতনের শিকার হন তিনি। শনিবার রাতে এ ঘটনায় জেলার বাঘা থানায় মামলা করেছে গৃহবধূর ভাই।

অভিযোগে জানা যায়, ১৪ বছর আগে বাঘা উপজেলার ঝিনা গ্রামের বাদশার ছেলে আরিফের সঙ্গে বিয়ে হয় নাটোরের লালপুর উপজেলার লক্ষণবাড়িযা গ্রামের মন্টু প্রামাণিকের মেয়ে শেফালির। বিয়ের কয়েক বছর যেতে না যেতেই স্ত্রী শেফালি বেগমকে যৌতুকের জন্য চাপ দিতে থাকে স্বামী আরিফ। আর তার এ কাজে উৎসাহ যোগায় আরিফের মা চাম্পা বেগম। কথায় কথায় বিয়ের পর থেকেই নির্যাতন করে আসছে আরিফ।

শেফালী জানায়, সর্বশেষ শুক্রবার বাবার বাড়ি থেকে টাকা নিয়ে আসার জন্য চাপ দেয়া হয় তাকে। এতে রাজি না হওয়ায় অমানুষিক নির্যাতন চালিয়ে শরীরের বিভিন্ন স্থানে লাঠি দিয়ে পিটিয়ে জখম করে। এক পর্যায়ে হাঁসুয়া দিয়ে হাতের ওপরে কোপ দিয়ে রক্তাক্ত জখম করে আরিফ। খবর পেয়ে পরদিন শনিবার সকালে তার বাবার বাড়ির লোকজন শেফালিকে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। ওইদিন রাতেই থানায় অভিযোগ দায়ের করে তার ভাই। বাঘা থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আমিনুর রহমান জানান, ঘটনার পর মামলার খবর পেয়েই আসামি আরিফ বাড়ি থেকে পালিয়েছে।

প্রকাশিত : ১৩ এপ্রিল ২০১৫

১৩/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: