মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১১ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

স্বপ্নের ঢাকা গড়ে তোলাসহ নানা প্রতিশ্রুতি প্রার্থীদের

প্রকাশিত : ১৩ এপ্রিল ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার ॥ ঢাকা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ঢাকাকে স্বপ্নের নগরী হিসেবে গড়ে তোলাসহ নানান প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন প্রার্থীরা। এছাড়া ভোটারদের দ্বারে দ্বারে গিয়ে ভোট চাওয়ার পাশাপাশি তাদের নানা অভিযোগ শুনছেন তারা। নির্বাচিত হলে নগরবাসীর সমস্যা সমাধানের বিভিন্ন আশ্বাসও দিচ্ছেন। রবিবার পঞ্চম দিনের মতো ঢাকা সিটির প্রায় সব প্রার্থী নির্বাচনী প্রচার অব্যাহত রেখেছেন। এছাড়া নির্বাচনের প্রচারের পাশাপাশি বিভিন্ন প্রার্থীর প্রতীক ও ছবি সম্বলিত পোস্টারও এখন শোভা পাচ্ছে। এছাড়া প্রচারের পাশাপাশি প্রার্থীরা নির্বাচিত হলে ঢাকার কোন কোন বিষয়ের ওপর গুরুত্ব দেবেন তা নিয়েও নির্বাচনী ইশতেহার ভোটারদের সামনে তুলে ধরছেন। ইতোমধ্যে ঢাকা উত্তরের আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী আনিসুল হক ও ঢাকা দক্ষিণের মোঃ সাঈদ খোকন তার নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা করেছেন।

এদিকে মেয়র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করলেও এখনও নির্বাচনী প্রচারে প্রকাশ্যে আসেননি ঢাকা দক্ষিণের বিএনপি সমর্থিত মেয়র প্রার্থী মির্জা আব্বাস। তাঁর পক্ষে স্ত্রী আফরোজা আব্বাস প্রতিদিন ভোটারদের দ্বারে দ্বারে গিয়ে ভোট প্রার্থনা করছেন। রবিবার রাজধানীর মালিবাগ মোড়, মৌচাক, সিদ্ধেশ্বরী, ভিকারুননিসা নূন স্কুল, বেইলি রোড, সার্কিট হাউস রোড হয়ে শান্তিনগর এলাকায় গণসংযোগ করেন দুপুর পর্যন্ত। বিকেলে হোসনী দালান, নাজিমউদ্দিন রোডসহ পুরান ঢাকার বিভিন্ন এলাকায় গণসংযোগে অংশ নেন। এ সময় তিনি সাংবাদিকদের বলেন, মির্জা আব্বাস এ ঢাকারই সন্তান। তার একটাই স্বপ্ন, ঢাকাকে আধুনিক নগরী হিসেবে গড়ে তোলা। এ স্বপ্ন বাস্তবায়নে যানজট নিরসন, পয়নিষ্কাশন, রাস্তাঘাট উন্নয়নসহ নাগরিক সমস্যা সমাধানে বেশি গুরুত্ব দেয়া হবে। তিনি বলেন, দুষ্কৃতকারীরা আমাদের প্রচারে বিভিন্নভাবে বিঘœ সৃষ্টি করছে। রমনা এলাকায় আমাদের দু’কর্মীকে হয়রানি করা হয়েছে। এ সব বিষয়ে নির্বাচন কমিশনের কাছে লিখিত অভিযোগ দেয়া হবে উল্লেখ করেন।

তিনি বলেন, যেভাবে ভোটারদের কাছে গিয়ে সাড়া পাচ্ছি তাতে আব্বাসের জয়ের বিষয়ে একশ’ ভাগ নিশ্চিত। তিনি বলেন, আমাদের নেতাকর্মীরা বেশির ভাগই কারাবন্দী অথবা মামলায় এলাকা ছাড়া হয়েছেন। সাবেক কমিশনার যারা তাদের অনেকেই এবারও প্রার্থী। তারাও মামলার কারণে আত্মগোপনে রয়েছেন। নিজেদের ক্যাম্পেইন করতে পারছেন না। এ কারণে মির্জা আব্বাসের পাশাপাশি কমিশনারদের হয়ে প্রচার চালাচ্ছেন। সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, বিএনপিতে সাদেক হোসেন খোকা-মির্জা আব্বাস গ্রুপ বলে কিছু নেই। এ দলে তাদের কোন অনুসারীও নেই। সবাই শহীদ জিয়ার অনুসারী। মির্জা আব্বাস অতি সত্বর জামিন নিতে আদালতে যাবেন উল্লেখ করেন। এ সময় বিএনপির স্থানীয় নেতাদের পাশাপাশি সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা আফরোজা আব্বাসের সঙ্গে ছিলেন।

এদিকে নির্বাচনী প্রচারের পাশাপাশি নির্বাচনী ইশতেহার প্রকাশ করছেন প্রার্থীরা। ইতোমধ্যে ঢাকা উত্তরের প্রার্থী আনিসুল হক ঢাকাকে সবুজ নগরী হিসেবে গড়ে তোলার প্রতিশ্রুতি দিয়ে নির্বাচনী ইশতেহার প্রকাশ করছেন। রবিবার ঢাকা দক্ষিণের আওয়ামী লীগ সমর্থিত সাঈদ খোকন পাঁচটি বিষয়ে অগ্রাধিকার দিয়ে ইশতেহার প্রকাশ করেন। রাজধানীর ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে ঢাকার যানজট নিরসনসহ দূষণমুক্ত, নাব্য ও নিরাপদ বুড়িগঙ্গা, পানি, গ্যাস ও বিদ্যুত তিনটি প্রধান নাগরিক সেবা নিশ্চিত করা; পরিচ্ছন্ন ও দূষণমুক্ত স্বাস্থ্যকর মহানগরী গড়ে তোলা, দুর্নীতি, সন্ত্রাস ও চাঁদাবাজির বিরুদ্ধে যুদ্ধ এবং নাগরিক নিরাপদ জীবন নিশ্চিত করার কথা উল্লেখ করে তার নির্বাচনী ইশতেহার প্রকাশ করেন। এ সময় তিনি বলেন, আসুন ঢাকাকে বদলে দিই। স্বপ্নের আধুনিক ঢাকা গড়ে তুলি।

এদিকে সাঈদ খোকন রবিবার সন্ধ্যায় রাজধানীর ধানম-ি এলাকায় নির্বাচনী প্রচরণায় অংশ নেন। ঢাকা-১০ আসনের সংসদ সদস্য ফজলে নূর তাপসের আয়োজনে এক পথ সভায় অংশ নেন সাঈদ খোকন। এ সময় বিপুলসংখ্যক নেতাকর্মী সাঈদ খোকনের প্রতি তাদের সমর্থন ব্যক্ত করেন।

এদিকে ঢাকার নাগরিক সমস্যার সমাধানে দুর্নীতি আর অপচয় মুক্ত নগর-সরকার গড়ার অঙ্গীকার নিয়ে চিড়িয়াখানা-গুদারাঘাট এলাকায় রবিবার গণসংযোগ করেছেন ঢাকা (উত্তর) সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের মেয়র পদপ্রার্থী জোনায়েদ সাকি। এ সময় তিনি মিরপুর চিড়িয়াখানা, গুদারাঘাট পর্যন্ত নির্বাচনী প্রচারকালে মানুষের সঙ্গে মতবিনিময় করে তাদের পরামর্শ, অভিযোগের কথা শোনেন গণসংহতি আন্দোলন সমর্থিত এ প্রার্থী। নির্বাচিত হলে তাদের সমস্যার সমাধানের কথা বলেন। তিনি মেয়র নির্বাচনে তাকে ভোট দেয়ার আহ্বান জানান।

এ সময় তিনি বলেন, গ্যাস-পানি-বিদ্যুত আলাদা আলাদা কর্তৃপক্ষের হাতে থাকার কারণে অপচয় আর দুর্নীতির মাত্রা বহুগুণ বৃদ্ধি পাচ্ছে। আসন্ন সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে তিনি মেয়র নির্বাচিত হলে নগর-সরকার প্রতিষ্ঠা করে এ অবস্থার নিরসনের সর্বোচ্চ উদ্যোগ নেবেন বলে উল্লেখ করেন।

ঢাকা দক্ষিণের প্রার্থীদের নিয়ে ইসির মতবিনিময় আজ ॥ আজ ঢাকা দক্ষিণের মেয়র, কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত কাউন্সিলদের সঙ্গে মতবিনিময় করবেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী রকিব উদ্দিন আহমেদ। রজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে বেলা ১১টায় এ মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়েছে। এ সভায় ঢাকা দক্ষিণের সব মেয়র, কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলরদের উপস্থিত থাকতে বলা হয়েছে। কমিশন জানিয়েছে প্রার্থীরা যাতে নির্বাচনের আচরণবিধি মেনে চলেন সেজন্য এ সভার আয়োজন করা হয়েছে। মতবিনিময় সভায় প্রধান নির্বাচন কমিশনারসহ চার নির্বাচন কমিশনার উপস্থিত থাকবেন। রবিবার ঢাকা উত্তরের প্রার্থীদের নিয়ে মতবিনিময় সভা করেন প্রধান নির্বচন কমিশনার কাজী রকিব উদ্দিন আহমেদ। এতে মেয়র প্রার্থীসহ কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলর, নির্বাচন কমিশনের সদস্যসহ উর্ধতন কর্মকর্তা ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কর্মকর্তরা উপস্থিত ছিলেন।

প্রকাশিত : ১৩ এপ্রিল ২০১৫

১৩/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: