মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১১ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

বেনাপোল সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে দুই বাংলাদেশী রাখাল নিহত

প্রকাশিত : ১২ এপ্রিল ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার, বেনাপোল ॥ বেনাপোল সীমান্তে বাংলাদেশী দুই গরু রাখালকে গুলি করে হত্যা করেছে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিএসএফ) সদস্যরা। শনিবার ভোরে দৌলতপুর এলাকা দিয়ে তারা গরু আনতে ভারতে গেলে বিএসএফ সদস্যরা তাদের লক্ষ্য করে গুলি চালায়। এতে গুলিবিদ্ধ হয়ে দু’জন মারা যান, আহত হন কয়েকজন।

স্থানীয়রা জানান, শনিবার ভোরে কয়েকজন রাখাল দৌলতপুর সীমান্ত দিয়ে গরু আনতে ভারতে যায়। সকালে গরু নিয়ে ফেরার পথে বিএসএফ সদস্যরা তাদের লক্ষ্য করে গুলি চালায়। এতে অকো, শান্ত, রহমত ও সাইফুলসহ আরও কয়েকজন গুলিবিদ্ধ হন। এ সময় তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়ার পথে সকাল সাড়ে সাতটার দিকে কাগজপুকুর এলাকায় শান্তর মৃত্যু হয়। সেখানেই তার মৃতদেহ রেখে সহযোগীরা অকোকে শার্শা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে ভর্তি করেন। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সকাল আটটার দিকে তারও মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় আহতরা বিভিন্ন ক্লিনিকে চিকিৎসা নিচ্ছেন। নিহতরা হলো ঝিনাইদহ সদরের গাংনা ইউনিয়নের বেতাই দুর্গাপুর গ্রামের ছাত্তার মোড়লের ছেলে শান্ত (৪৫) ও বেনাপোল পোর্ট থানার পুটখালী গ্রামের আনিছুর রহমানের ছেলে অকো (২৯)। শান্ত বেনাপোলের পুটখালীতে থাকত।

এদিকে বিএসএফের গুলিতে আহত দু’জনের নাম জানা গেছে। এরা হলেন বেনাপোলের দৌলতপুর গ্রামের আলীর ছেলে রহমত (২৮) ও একই গ্রামের আলতাফের ছেলে সাইফুল (৩০)। এদের মধ্যে একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

নিহত শান্তর স্ত্রী আশুরা বেগম জানান, বিগত কয়েক বছর যাবত তারা ঝিনাইদহ থেকে পেটের তাগিদে বেনাপোলে আসে। এখানে থেকে তারা স্বামী-স্ত্রী মিলে গ্রামে গ্রামে ফেরি করে গরুর ভুড়ি ও মাথা বিক্রি করতেন। তাতে যা আয় হতো, তা দিয়ে তাদের সংসার চলত। অভাবের সংসারে সন্তান ছেলেমেয়ে নিয়ে দিনাতিপাত করায় একটু সুখের আশায় কয়েকদিন যাবত পুটখালী গ্রামে মধুর বাড়িতে ভাড়ায় বসবাস শুরু করি। একটু বাড়তি আয়ের আশায় বাড়িওয়ালা মধুর কথায় আমার স্বামী শনিবার ভোরে যায় ভারত থেকে গরু আনতে। কিন্তু বিএসএফের বন্দুকের গুলি আমার স্বামীকে চিরদিনের মতো নিয়ে গেল। এ কথা বলতে বলতে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন তিনি।

বেনাপোল পোর্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অপূর্ব হাসান বলেন, বেনাপোলের দৌলতপুর সীমান্ত দিয়ে একদল বাংলাদেশী রাখাল গরু আনতে ভারতে যায়। এ সময় ভারতীয় বিএসএফের গুলিতে একজন নিহত হয়। যারা গরু আনতে গিয়েছিল তারাই ওকে উদ্ধার করে কাগজপুকুর মোড়ে ফেলে যায়। আরেকজনকে নাভারণ হাসপাতালে নিয়েছিল বলে জানতে পারি। কিন্তু সেখানে তার লাশ পাওয়া যায়নি। গ্রামের বাড়ি পুটখালীতে তাকে নেয়া হয়েছে বলে জানা যায়। পরে সেখান থেকে অকোর লাশ উদ্ধার করা হয়। লাশ দুটি ময়নাতদন্তের জন্য যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। সেখান থেকে নিহতের আত্মীয়স্বজনের কাছে লাশ হস্তান্তর করা হয়।

এ বিষয়ে ২৬ বিজিবি ব্যাটালিয়নের কমান্ডিং অফিসার (সিও) লে. কর্নেল জাহাঙ্গীর হোসেন জানান, শনিবার সকালে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিএসএফ) সদস্যরা দুই বাংলাদেশী গরু রাখালকে গুলি করে হত্যা করেছে।

বিজিবি সূত্রে জানা গেছে, চলতি বছরের ১১ এপ্রিল পর্যন্ত বেনাপোল সীমান্ত এলাকায় বিএসএফ সদস্যরা সাত বাংলাদেশীকে গুলি করে ও নদীতে ফেলে স্পিডবোটের আঘাতে হত্যা করেছে এবং পাঁচজনকে পিটিয়ে আহত করেছে।

প্রকাশিত : ১২ এপ্রিল ২০১৫

১২/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: