মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১১ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

দেড় লাখ বৃক্ষ জীবন দিয়ে ঠেকিয়ে দেয় মহাদুর্যোগ

প্রকাশিত : ১১ এপ্রিল ২০১৫
  • ভূগর্ভের শিলাস্তরও কেঁপে উঠেছিল

সমুদ্র হক ॥ বগুড়ায় গত শনিবারের ঝড় কতটা ভয়ঙ্কর ছিল তার হিসাব মিলছে এখন। ভেঙ্গে পড়া ১ লাখ ৬০ হাজার বৃক্ষ মহাদুর্যোগ থেকে বাঁচিয়ে দিযেছে বগুড়াকে। ওই দিন ছিল চন্দ্র গ্রহণ। তারও একটা প্রভাব পড়েছিল। কেঁপে উঠেছিল মাটি। খোলা জায়গায় বাতাসের কম্পন ও ভূ-অভ্যন্তরের শিলাস্তর কেঁপে ওঠার শব্দও শুনেছে গ্রামের মানুষ। প্রলয়ঙ্করি এই ঝড়ের কবল থেকে অবকাঠামো ও জানমাল রক্ষা করেছে বগুড়ার বিভিন্ন এলাকার বড় বৃক্ষ ও তার শাখা প্রশাখা। পরিবেশ ও বন বিভাগের মতে এই বৃক্ষগুলো বাতসের তীব্র গতিবেগের সঙ্গে যুদ্ধ করে জীবন দিয়ে প্রতিহত করে ঠেকিয়ে দিয়েছে মহাদুর্যোগ। যার আরও বড় প্রমাণ বিদ্যুতের ১৩২ কেভি গ্রীড পোল ও গ্রীড ইন্টারকানেক্টর পোল ভেঙ্গে পড়ে যে ক্ষতি হয়েছে গত ৫০ বছরেও তা হয়নি। বৃক্ষের সঙ্গে প্রায় ৫ হাজার পোল বাতাসকে ঠেকিয়ে গতিবেগ কমিয়ে দিয়েছে। আবহাওয়া বিভাগের মতে ১২১ কিলোমিটার বেগে প্রায় ১২ মিনিটের ঝড়ে বর্তমানে যে ক্ষতি হয়েছে তারচেয়ে কয়েকশ’ গুণ বেশি ক্ষতি হতো বৃক্ষ না থাকলে। বন বিভাগের হিসাবে ১ লাখ ৫৭ হাজার ৮শ’ ৩টি গাছ উপড়ে পড়েছে। যার আনুমানিক দাম ১ হাজার ১শ’ কোটি টাকারও বেশি। বগুড়া পৌর মেয়র জানিয়েছেন এ্যাডওয়ার্ড পার্কের ৮শ’ গাছের মধ্যে ৬শ’ গাছ ভেঙ্গে পড়েছে। এক সপ্তাহের জন্য পার্কে সাধারণের প্রবেশ নিষিদ্ধ করা হয়। তবে শুক্রবার আংশিক খুলে দেয়া হয়েছে। সরকারি আযিযুল হক কলেজের অধ্যক্ষ সামস উল আলম জানান, কলেজের ২শ’ বৃক্ষ উপড়ে পড়ে ক্যাম্পাসের সৌন্দর্য বিনষ্ট হয়েছে। তবে সান্ত¡না এইটুকু এ বৃক্ষ কলেজের অবকাঠামো ধ্বংসের হাত থেকে রক্ষা করেছে। পরিবেশ অধিদফতরের একজন কর্মকর্তা বলেন, গাছ যে প্রাকৃতিক দুর্যোগের হাত থেকে কিভাবে রক্ষা করে তার বড় প্রমাণ ৪ এপ্রিল শনিবারের বগুড়ার ভয়াবহ ঝড়। গাছ জীবন দিয়ে পরিবেশ রক্ষা করে মানুষের সম্পদ বাঁচিয়েছে। এই গাছই অক্সিজেন সরবরাহ করে মানুষের প্রাণ বাঁচায়। বগুড়ায় এত বৃক্ষের ক্ষতির নেতিবাচক একটা প্রভাবও পড়বে। এর হাত থেকে রক্ষা পেতে পরিবেশ অধিদফতর থেকে সুপারিশ করা হয়েছে, যত গাছ ভেঙ্গে পড়েছে তার দ্বিগুণ গাছ রোপণ করা দরকার। সরকারী সড়কের ধারে, বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে সরকারী উদ্যোগে এখনই বৃক্ষের চারা বিতরণ ও রোপণ জরুরী হয়ে পড়েছে। বিশেষ করে যে গাছ দ্রুত বেড়ে ওঠে সেই গাছ ও ফলদ বৃক্ষ একসঙ্গে এখনই রোপণ করা দরকার। এদিকে আরেক সূত্র জানায়, ঝড়ের কবলে পড়া বৃক্ষের ৫০ শতাংশ বন বিভাগের আওতায় নেয়া হয়েছে। বাকি গাছ দুর্বৃত্তের কুঠারের আঘাতে লুট হয়ে গেছে। এমন কি এক শ্রেণীর সুযোগ সন্ধানী গোপনে ভাল বৃক্ষ কেটে নিয়ে গেছে।

প্রকাশিত : ১১ এপ্রিল ২০১৫

১১/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: