কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

বগুড়া ও মুন্সীগঞ্জে ঝড়ে বিধ্বস্ত বিদ্যুত সরবরাহ স্বাভাবিক হয়নি

প্রকাশিত : ১০ এপ্রিল ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার, বগুড়া অফিস ॥ ঝড়ে লণ্ডভণ্ড হওয়া বগুড়ায় ৫ দিনেরও বিদ্যুত পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়নি। ক্ষতিগ্রস্ত প্রায় এক লাখ পরিবারের সাড়ে ৪ লাখ মানুষ এখনও মানবেতর জীবনযাপন করছে। ২৮ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্র্থীরা টিনের চালা উড়ে যাওয়ায় খোলা ছাদের তলায় ক্লাস করছে। এদিকে সরকারীভাবে যে বরাদ্দ দেয়া হয়েছে তা এতটাই অপ্রতুল যে প্রতি পরিবার পাবে দেড় কেজিরও কম চাল এবং ১৪ টাকা ৭০ পয়সা করে। সরকারী বরাদ্দের পরিমাণ ১শ’ ৩৪ টন চাল, ১৪ লাখ ৭০ হাজার টাকা ও ২শ’ বান্ডেল ঢেউটিন। বরাদ্দের এ অর্থ চাল ও টিন এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ক্ষতিগ্রস্তদের কাছে পৌঁছেনি। জেলা ত্রাণ বিভাগের কথা এরচেয়ে বেশি অর্থ ও চাল বরাদ্দ না এলে তাদের করার কিছু নেই, যা বরাদ্দ হয়েছে তা উপজেলা পর্যায়ে পৌঁছানোর কাজ শুরু হয়েছে। এবারের ঝড়ে সবচেয়ে বড় বিপর্যয়ের সৃষ্টি হয়েছে বিদ্যুত বিভাগে। জাতীয় গ্রিড সঞ্চালনের ১শ’ ৩২ কেভির ৯টি টাওয়ার ভেঙ্গে পড়েছে। এছাড়াও বিদ্যুত উন্নয়ন বোর্ড (বিউবো) ও পল্লীবিদ্যুত সমিতির (পবিস) অন্তত দুই হাজার খুঁটি ভেঙ্গে পড়েছে। শহরাঞ্চলের আংশিক এলাকায় বিদ্যুত সরবরাহ করা গেছে। পবিসের প্রায় সাড়ে ৬ হাজার কিলোমিটার সঞ্চালন লাইনের ক্ষতি হয়েছে। এই লাইনে ১১ হাজার ৫২ ফিডারের মধ্যে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত ৩৭টি ফিডারে বিদ্যুত সরবরাহ করা গেছে। পবিস সূত্র জানায় ২ হাজার পয়েন্টে তার ছিঁড়ে পড়েছে, দেড় হাজার ক্রস কানেক্টর আর্মস নষ্ট হয়েছে। লোকবল কম থাকায় পাশের জেলাগুলো থেকে পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের কর্মীদের আনা হয়েছে। তারপরও গ্রামাঞ্চলে বিদ্যুত ঠিকঠাক হতে আরও অন্তত দুই সপ্তাহ সময় লাগবে।

প্রকাশিত : ১০ এপ্রিল ২০১৫

১০/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: