মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

আসছে চলচ্চিত্র ‘ছুঁয়ে দিলে মন’

প্রকাশিত : ৯ এপ্রিল ২০১৫
  • ঢালিউড

হাল আমলের দেশীয় চলচ্চিত্র নিয়ে অনেক কথাই হয়। বাকপটুদের কথার ঝলকে দারুণ পলকে ভেসে যায় ভাল অনেক কিছুও। অনেকেই কথার কথা হিসেবে বলেন, সাম্প্রতিক সময়ে ভাল চলচ্চিত্র হচ্ছে না। কেউ বলেন, ভাল নির্মাতা আর দক্ষ কারিগড়ের অভাবের কবলে পড়েছে চলচ্চিত্র। আবার কেউ বা বলেন, চলচ্চিত্র অঙ্গনে প্রকৃত প্রযোজকের সঙ্কটের সুযোগে অতি মাত্রায় লোভী ব্যবসায়ীরা ঢুকে পড়েছে। কারণ এখন যারা চলচ্চিত্রে অর্থ লগ্নী করেন তারা প্রযোজক নন ইনভেস্টর। আবার বেশিরভাগ লোকের মুখেই শোনা যায় ভাল গল্পের অভাবে চলচ্চিত্রের প্রতি দর্শকদের অনীহা। কারণ একই ধরনের গল্পের চলচ্চিত্র দেখতে দেখতে দর্শকরা আগে থেকেই বলে দিতে পারেন এর কাহিনী কোন দিকে যাবে। তবে যে যাই বলুন, যেভাবেই বলুন না কেন এটা স্বীকার্য যে ভাল চলচ্চিত্রের একটা সঙ্কট তো চলছেই। এ অবস্থা উত্তরণে অনেকেই ভাবছেন। কেউ কেউ চেষ্টাও করছেন কিছু একটা করার। তবে আশার কথা প্রায় বেশিরভাগই যখন হতাশা আর শঙ্কার কথা বলেন, সেই সময় সিনিয়র এবং গুণী ব্যক্তিদের পাশাপাশি কেউ কেউ দিকহারা নাবিককে কা-ারির মতো পথের দিশা দেখান। হতাশ ব্যক্তিকে আশার কথা বলেন। এই যখন অবস্থা তখন দেশীয় চলচ্চিত্রের দর্শকদের ভাল একটি কাজ উপহার দিতে আশা জাগানিয়াদের সঙ্গে যুক্ত হয়েছেন তরুণ মেধাবী পরিচালক শিহাব শাহীন। কারণ স্বপ্লীল আর রোমান্টিক দর্শকদের মন ছুঁয়ে দিতে আসছে চলচ্চিত্র ‘ছুঁয়ে দিলে মন’। আগামীকাল শুক্রবার দেশব্যাপী মুক্তি পাচ্ছে তরুণ পরিচালক শিহাব শাহীনের প্রথম প্রচেষ্টা চলচ্চিত্র ‘ছুঁয়ে দিলে মন’।

চলচ্চিত্র প্রসঙ্গে শিহাব শাহীন বলেন, আমি আমার প্রথম প্রচেষ্টা হিসেবে দর্শকদের জন্য এ চলচ্চিত্রটি বানিয়েছি। প্রথম চলচ্চিত্র হিসেবে ভাল করার সর্বোচ্চ চেষ্টা করেছি। আশা করি দর্শকরা হতাশ হবেন না। অতীতের মতো আমার কাজকে তারা পছন্দ করবেন বলে আমার বিশ্বাস। অভিনেতা আরেফিন শুভ বলেন, আমার অনেকগুলো কাজের মধ্যে এটি ভাল একটি কাজ হয়েছে। কাজের সময় মনে হয়েছে দর্শকদের জন্য ভাল একটা কিছু করছি। আমার বিশ্বাস দর্শকদের এ চলচ্চিত্রটি ভাল লাগবে। অভিনেত্রী জাকিয়া বারী মম বলেন, আমি আমার আগের কাজের অভিজ্ঞতায় বলতে পারি এটি অবশ্যই একটি ব্যতিক্রম কাজ হয়েছে। আমি চেষ্টা করেছি পরিচালকের নির্দেশনা অনুযায়ী কাজ করতে। আমি মনে করি ‘ছুঁয়ে দিলে মন’ চলচ্চিত্রটি দর্শকদের মন ছুঁয়ে যাবে। চলচ্চিত্র প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান কর্তৃপক্ষও অভিনেতা অভিনেত্রীদের মতো চলচ্চিত্রটি নিয়ে আশাবাদী। কারণ এটি তাদের প্রথম প্রযোজিত চলচ্চিত্র।

তবে শুধু কুশীলবদের কথাই নয় চলচ্চিত্রটির টেলার দেখে যতটা মনে হয়েছে এটি রোমান্টিক গল্পের চলচ্চিত্র। এই চলচ্চিত্রের অন্যতম আকর্ষণ মনে হয়েছে এই সময়ের ক্রেজ পারফেক্ট অভিনেতা আরেফিন শুভ এবং লাক্স তারকাখ্যাত অভিনেত্রী জাকিয়া বারীর মন মাতানো অভিনয়। চমৎকার লোকেশনে নির্মিত এই চলচ্চিত্র দর্শকদের আলাদা আনন্দ দেবে এ কথা বলার অপেক্ষা রাখে না। পাশাপাশি চলচ্চিত্রে যথেষ্ট এ্যাকশনও রয়েছে। এছাড়া চলচ্চিত্রের গানগুলোও বেশ ভালই মনে হয়েছে। বিশেষ করে চলচ্চিত্রের ‘তুমি ছুঁয়ে দিলে মন আমি উড়ব আজীবন’ শীর্ষক গানটির কথা ও সুর চমৎকার হয়েছে। এতে শিল্পী তাহসান এবং সাকিলা সাকি গানটি বেশ ভাল গেয়েছেন। লোকেশন অনুযায়ী গানটির চিত্রায়ন মানানসই মনে হয়েছে। তবে এ চলচ্চিত্রে অন্যতম দিক ছোট পর্দার জনপ্রিয় মুখ ইরেশ জাকেরের নেগেটিভ চরিত্রে অভিনয়। টেলারে যতটুকু দেখা গেছে তাতে মনে হয়েছে ছোট পর্দার অভিনেতা ইরেশ বড় পর্দাতেও নেগেটিভ চরিত্রে মাত করবেন। তার জন্য শুভ কামনা। এছাড়া চলচ্চিত্রের অন্যতম বলিষ্ঠ অভিনেতা আলীরাজ এতে প্রাণখুলে অভিনয় করেছেন। ভাল করেছেন মাহমুদুল ইসলাম মিঠু। অভিনেত্রী মমও ভাল করেছেন। তিনি বরাবরই ভাল করবেন সেটাই স্বাভাবিক। কারণ তিনি নাট্যকলার ওপর পড়াশোনা করেছেন, একসময় সেরা সুন্দরী হিসেবে খেতাব পেয়েছেন। বিভিন্ন টিভি নাটক ও টেলিফিল্মে তিনি তাঁর যোগ্যতার প্রমাণ দিয়েছেন। মিডিয়ায় তাঁর কাজ দেখে মনে হয় তিনি বেছে কাজ করেন। সুতরাং তাঁর যে কোন কাজ ভাল হওয়া চাই। সে হিসেবে ‘ছুঁয়ে দিলে মন’ চলচ্চিত্রটি মমর ক্যারিয়ারে ভাল একটি কাজ হবে সেটাই প্রত্যাশা। সবমিলে বাংলাদেশের চলচ্চিত্রে একটি ভাল চলচ্চিত্র মুক্তি পেতে যাচ্ছে। তবে এখন দেখার বিষয় চলচ্চিত্রের ল্যাবরেটরিতে শিহাব শাহীনের মতো ছোটপর্দার এক নিরীক্ষকের প্রথমবারের মতো বড় পর্দার এই এক্সপেরিমেন্ট দর্শকরা কিভাবে নেয়। বিশেষ করে আরেফিন শুভ ও মম জুটি পর্দায় উপস্থাপনা দর্শক কতটা নেয় সেটাই দেখার বিষয়।

এদিকে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে দর্শকদের প্রত্যাশার নাগালে পৌঁছুতে পরিচালক শিহাব শাহীনের কর্মযজ্ঞের সঙ্গে যুক্ত হয়েছে দেশের অন্যতম প্রধান পৃষ্ঠপোষক ফেয়ার এ্যান্ড লাভলী। সঙ্গে আরও আছে মাইক্রোসফট, নিউ জরোয়া হাউস এবং এখানেই ডটকম। তাঁরা চলচ্চিত্রকে সমৃদ্ধ করতে ব্র্যান্ড পার্টনার হিসেবে কাজ করেছেন। আর এ চলচ্চিত্রের নির্বাহী প্রযোজক হিসেবে ভালবাসা আকুণ্ঠ বিলিয়েছেন দেশ বরেণ্য সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব বিশিষ্ট অভিনেত্রী সারা যাকের। এ চলচ্চিত্রে আরেফিন শুভ, জাকিয়া বারী মম, ইরেশ যাকের, আলীরাজ ছাড়া আরও অভিনয় করেছেন মিঠু সওদাগর, মাহমুদুল ইসলাম মিঠু, খালেকুজ্জামান, সুষমা সরকার, নওশাবাসহ আরও অনেকে। এই চলচ্চিত্রে গান রয়েছে ৬টি। গানগুলে লিখেছেন মারজুক রাসেল, সাজু খাদেম, শাহান কবন্ধ, সিরাজুম মনির ও সোমেশ্বর অলি। সুর করেছেন হাবীব ও সাজিদ সরকার।

কণ্ঠ দিয়েছেন হাবীব, তাহসান, কনা, ইমরান, শাকিলা সাকি, শাওন ও নির্জ হাবিব। সবার আন্তরিক প্রচেষ্টায় একটি ভাল চলচ্চিত্র তৈরি হয়েছে এমনি প্রত্যাশা সংশ্লিষ্টদের। এখন শুধু চলচ্চিত্রটির মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছেন দর্শকরা।

প্রকাশিত : ৯ এপ্রিল ২০১৫

০৯/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: