কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

কামারুজ্জামানের ফাঁসি কার্যকরে কালক্ষেপণ করা হচ্ছে ॥ ডাঃ ইমরান

প্রকাশিত : ৮ এপ্রিল ২০১৫
কামারুজ্জামানের ফাঁসি কার্যকরে কালক্ষেপণ করা হচ্ছে ॥ ডাঃ ইমরান

বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার ॥ গণজাগরণ মঞ্চের একাংশের মুখপাত্র ডাঃ ইমরান এইচ সরকার বলেছেন, জামায়াতে ইসলামীর সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল মুহাম্মদ কামারুজ্জামানের ফাঁসির রায় হয়েছিল দুই বছর আগে। কিন্তু বিভিন্ন কারণ দেখিয়ে সেই রায়ও কার্যকর করা হয়নি। এখন আবার মৃত্যুপরোয়ানা জারি করা হলেও বিভিন্ন অজুহাত দেখিয়ে কালক্ষেপণ করা হচ্ছে। হাইকোর্ট থেকে নাজিমউদ্দিন রোড পর্যন্ত এখনও বাহন সঙ্কটের কারণে রায়ের কপি পৌঁছায়নি। আমরা আশা করি, এই বাহন সঙ্কট সমাধান হলে, রায় কার্যকরের মাধ্যমে দেশবাসীর প্রত্যাশা পূরণ হবে। মঙ্গলবার বিকেলে মঞ্চ আয়োজিত বিক্ষোভ মিছিল শেষে তিনি সাংবাদিকদের এ সব কথা বলেন। যুদ্ধাপরাধী কামারুজ্জামানের রায় কার্যকর না হওয়া পর্যন্ত শাহবাগে অবস্থান কর্মসূচী চালিয়ে যাওয়া হবে বলেও জানান তিনি। এর আগে দুপুরে জাতীয় জাদুঘরের সামনে মঞ্চের নেতাকর্মীরা অবস্থান নিয়ে সেøাগান দিতে থাকে। বিকেলের বিক্ষোভ মিছিলটি জাদুঘরের সামনে থেকে শুরু হয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসির রাজু ভাস্কর্য ঘুরে আবার সেখানে গিয়ে শেষ হয়।

যুদ্ধাপরাধীদের বিচার বাধার সম্মুখীন হচ্ছে উল্লেখ করে এ সময় তিনি আরও বলেন, যুদ্ধপরাধিদের বিচার চাইতে এসে আমরা পদে পদে বাধার সম্মুখীন হচ্ছি। একদিকে বিচারের জটিলতা, অন্যদিকে রাষ্ট্রের পক্ষ থেকে টিয়ারশেল ও পুলিশী হামলা। পাশাপাশি ধর্মের দোহাই দিয়ে চাপাতি দিয়ে আমাদের সহকর্মীদের হত্যা তো আছেই। যারা যুদ্ধাপরাধীদের বিচার দাবি করছে তাদের নাস্তিক আখ্যায়িত করে নৃশংসভাবে হত্যা করা হচ্ছে। হত্যা করার আগে বলা হয় এরা নাস্তিক। খুনীদের কাছে আমাদের প্রশ্ন একাত্তরের মানুষ হত্যার বিচার চাওয়াই কি তাদের অপরাধ? প্রশ্ন করেন তিনি।

ইমরান বলেন, মানুষ হত্যার বিচার চাওয়ার অধিকার সকল ধর্মেই আছে। যারা অন্যায়ের বিরোধিতা করে, খুনীদের বিচার চায়, যুদ্ধাপরপাধীদেও বিচার চায় তাদেরকে হত্যা করা হচ্ছে। এরপরেও আমরা ন্যায় বিচারের দাবিতে আন্দোলন করে যাচ্ছি।

দেশে কোন আইনের শাসন নেই অভিযোগ করে তিনি বলেন, ধর্মের নামে দেশে হত্যাকা- চলছে। যারা শক্তিশালী তারা সংখ্যালঘুদের হত্যা করছে। দেশে কোন আইনের শাসন নেই। কোন বিচার হচ্ছে না। যার কারণে যুদ্ধাপরাধীদের বিচার বার বার বাধাগ্রস্ত হচ্ছে। আইনের শাসনের দাবিতে গণজাগরণ মঞ্চের আন্দোলন অব্যাহত থাকবে বলে তিনি ঘোষণা দেন।

প্রকাশিত : ৮ এপ্রিল ২০১৫

০৮/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: