কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

প্রিমিয়ার ফুটবল লীগের স্পন্সর মান্যবর

প্রকাশিত : ৬ এপ্রিল ২০১৫
প্রিমিয়ার ফুটবল লীগের স্পন্সর মান্যবর
  • টাইটেল স্পন্সর ‘মান্যবর বাংলাদেশ’
  • বাফুফের সঙ্গে চুক্তি সম্পন্ন
  • ১১ দলের আসরের ম্যাচ তিন ভেন্যুতে
  • খেলা হবে দুই লেগে

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ তিন দফা তারিখ পেছানো হয়েছে। তবে এবার আর পেছাচ্ছে না বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগ ফুটবল। মঙ্গলবার থেকেই শুরু হচ্ছে এর সপ্তম আসর। রবিবার এ আসরের টাইটেল স্পন্সরের সঙ্গেও চুক্তি স্বাক্ষর করে ফেলেছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)। এবার প্রিমিয়ার লীগের পৃষ্ঠপোষক প্রতিষ্ঠান হয়েছে ভিনটেইজ ডেনিম লিমিটেড। দুপুরে বাফুফে ভবনে চুক্তি স্বাক্ষরের পর এবার লীগের টাইটেল স্পন্সর হিসেবে ঘোষণা করা হয় ‘মান্যবর বাংলাদেশকে’। সে কারণে এবার লীগের নাম হবে মান্যবর বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগ ২০১৪-১৫। চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে বাফুফের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও পেশাদার ফুটবল লীগ কমিটির চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম মুর্শেদী এবং স্পন্সর প্রতিষ্ঠান ভিনটেইজের পক্ষে ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইমরান ইসলাম চৌধুরী স্বাক্ষর করে। এ সময় বাফুফে সভাপতি কাজী মোঃ সালাহউদ্দিন, পেশাদার ফুটবল লীগ কমিটির ডেপুটি চেয়ারম্যান আব্দুর রহিম, বাফুফে সাধারণ সম্পাদক মোঃ আবু নাইম সোহাগ ছাড়াও বাফুফে ও স্পন্সর প্রতিষ্ঠানের অন্য কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। লীগের অফিসিয়াল পার্টনার হয়েছে প্রগতি ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড, ট্রেজার সিকিউরিটিজ লিমিটেড, কেএফসি এবং আম্বার গ্রুপ।

ঘরোয়া ফুটবলের সর্বোচ্চ আসর বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগ শুরুর তারিখ তিনবার পেছানো হয়েছে। বেশকিছু কাজও বাকি ছিল বাফুফের। তবে সব আনুষ্ঠানিকতা শেষ। গত আসরের সঙ্গে এবার একটি দল বাড়িয়ে করা হয়েছে ১১। তবে শুক্রবার পেশাদার ফুটবল লীগ কমিটির ৫৩তম সভার পর মঙ্গলবার থেকে লীগ শুরুর ঘোষণা দেয়া হয়েছে। সেটা যে নিশ্চিতভাবে হচ্ছেই তাও বোঝা গেল রবিবার টাইটেল স্পন্সরের সঙ্গে বাফুফের চুক্তি স্বাক্ষরের পর। এবার অংশগ্রহণকারী দলগুলোর দ্বিগুণ লাভবান হওয়ার সুযোগ। গত মৌসুমে ক্লাবগুলো বাফুফের কাছ থেকে অংশগ্রহণ ফি বাবদ পেয়েছে ১০ লাখ টাকা করে। কিন্তু এবার ক্লাবগুলোর দাবি মেনে অংশগ্রহণ ফি হিসেবে ২৫ লাখ টাকা করে দেবে বাফুফে। প্রাথমিকভাবে ইতোমধ্যেই সব ক্লাবকে ৫ লাখ টাকা করে দেয়া হয়েছে। আনুষ্ঠানিকতা শেষ। এবার দল বাড়ানো হয়েছে লীগে। গত আসরে ১০ দল খেলেছিল। সেখান থেকে রেলিগেশনের খাড়ায় পড়ে অবনমিত হয়েছে উত্তর বারিধারা ক্লাব। তবে যোগ হয়েছে নতুন করে দুটি দল। বাংলাদেশ চ্যাম্পিনয়নশিপ লীগে গত মৌসুমে যথাক্রমে চ্যাম্পিয়ন ও রানার্সআপ হওয়ার সুবাদে এবার প্রিমিয়ার লীগ খেলার সুযোগ পেয়েছে ফরাশগঞ্জ স্পোর্টিং ক্লাব এবং রহমতগঞ্জ মুসলিম ফ্রেন্ডস সোসাইটি। দল বাড়লেও এবার লীগের পরিধি কমবে। কারণ গত মৌসুমে তিন লেগে খেলা হয়েছে যা পরবর্তীতে বিরক্তির উদ্রেক করেছে। কিন্তু এবার দুই লেগে খেলা হবে। ফলে স্বাভাবিকভাবেই লীগ শেষ হওয়ার সময়সীমা কমে আসবে।

এবার লীগের ম্যাচগুলোর জন্য তিন ভেন্যু নির্ধারণ করেছে বাফুফে। ঢাকার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়াম ছাড়াও খেলা হবে চট্টগ্রামের এমএ আজিজ স্টেডিয়াম ও গোপালগঞ্জের শেখ ফজলুল হক মনি স্টেডিয়ামে। তবে দেশে চলমান রাজনৈতিক অস্থিরতার জন্য লীগের প্রথম পর্বের খেলাগুলো ঢাকাতেই অনুষ্ঠিত হবে। পরিস্থিতি অনুকূলে থাকলে ঢাকার বাইরে হবে দ্বিতীয় পর্বের খেলা।

সবকিছু ঠিক থাকলে এবং নিয়মিত খেলা চালানো সম্ভব হলে প্রথম লেগ ২৪ মে’র মধ্যেই শেষ করার আশা বাফুফের। আগামী মৌসুমে লীগের দল বাড়িয়ে করা হবে ১২। সে কারণে এবারও লীগ শেষে পয়েন্ট তালিকায় সবার নিচে থাকা দলটি অবনমিত হবে এবং নতুন দুটি দল সুযোগ করে নেবে প্রিমিয়ার লীগ খেলার। তরুণ ও দক্ষ ফুটবলার তৈরির লক্ষ্যে লীগে বিদেশী ফুটবলার কমানোর জন্য বাফুফের প্রতি যে চাপ ছিল, তা থেকে এবারও সরে আসেনি তারা। এবারও প্রতি ক্লাব ৫ বিদেশী ফুটবলারকে নিবন্ধন করাতে পারবে, তবে ম্যাচে খেলতে পারবে ৩ জন। তবে পরের মৌসুমে এটা কমতে পারে বলে আগেই জানিয়েছেন সালাম।

প্রকাশিত : ৬ এপ্রিল ২০১৫

০৬/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: